চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২৯ ডিসেম্বর ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রাসুল (সা.) প্রেমিক হওয়ার শপথ

সমীকরণ প্রতিবেদন
ডিসেম্বর ২৯, ২০১৭ ১০:৫৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ধর্ম ডেস্ক: মহানবী (সা.) সৃষ্ট জগতের জন্য রহমতস্বরূপ। মুসলমান-অমুসলমান নির্বিশেষে মানবজাতি, প্রাণিকুল এবং প্রকৃতির প্রতি তার যে আচরণ, তা ছিল কল্যাণকর, যথাযথ এবং সবার জন্য অনুসরণীয়। ব্যক্তিজীবন, পারিবারিক জীবন, সাংস্কৃতিক জীবন, সামাজিক ও রাষ্ট্রীয় জীবনসহ মানবজীবনের সার্বিক ক্ষেত্রে তিনি রেখে গেছেন বাস্তবসম্মত অনুপম ও সুষম বার্তা। আমরা জানি, জীবনের বিচিত্র সম্পর্ক সূত্রে আল্লাহতায়ালার বিধিবিধানকে মেনে নিয়ে প্রকৃত আনুগত্য প্রদর্শনের নামই হলো ইসলাম। ইসলামের নবী বিশেষ কোনো সম্প্রদায়ের জন্য আবির্ভূত হননি। তিনি সব দেশের সব মানুষের জন্য মহান আল্লাহতায়ালার বার্তা পৌঁছে দেয়ার দায়িত্ব পালন করেছেন। আর এই দায়িত্ব তার ওপর অর্পণ করেছেন স্বয়ং আল্লাহ। তাই তো আমরা তাকে বলি বিশ্বনবী। যারা বিশ্বনবীকে সামগ্রিকভাবে অনুসরণের মাধ্যমে নিজেকে মানবজাতির কল্যাণে নিয়োজিত করতে সমর্থ হবে তারাই তো প্রকৃত মুসলিম। শুধু মুসলিম পরিবারে জš§গ্রহণ করে মুসলিম হওয়া যায় না। আসলে আল্লাহতায়ালার নির্দেশিত গুণাবলি অর্জনের মাধ্যমেই হওয়া যায় প্রকৃত মুসলিম। যার শ্রেষ্ঠ উদাহরণ হজরত রাসুলুল্লাহ (সা.)। পবিত্র কোরানে কারিমেও মুসলমানদের পরিচয় সম্পর্কে বলা হয়েছে, ‘তোমরা শ্রেষ্ঠ উম্মত, তোমাদের সৃষ্টি করা হয়েছে মানবজাতির কল্যাণের জন্য, তোমরা ন্যায়ের প্রতিষ্ঠা এবং অন্যায়ের প্রতিরোধ করবে।’ পবিত্র কোরানে কারিমের এই বার্তার আলোকে পর্যালোচনা করলে, বর্তমান সময়ের মুসলমানদের জীবনযাত্রা ও কর্মতৎপরতায় অনেক গরমিল লক্ষ্য করা যাবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।