চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ৭ অক্টোবর ২০১৮
আজকের সর্বশেষ সবখবর

রাজনীতি এখন গরিবের বউয়ের মত: রাষ্ট্রপতি

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ৭, ২০১৮ ৯:৩৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ডেস্ক রিপোর্ট: রাজনীতি এখন গরিবের বউয়ের মত হয়ে গেছে বলে মন্তব্য করেছেন রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ। তিনি বলেন, আমাদের গ্রামে প্রবাদ আছে গরিবের বউ নাকি সবার ভাবি। রাজনীতিও হয়ে গেছে গরিবের বউয়ের মতো। যে কেউ যে কোনো সময় ঢুকে পড়তে পারে, বাধা নাই। গতকাল শনিবার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৫১তম সমাবর্তনে তিনি এসব কথা বলেন। বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য আবদুল হামিদ বলেন, আমি যদি বলি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ফিজিক্সের লেকচারার হইতাম চাই, নিশ্চয়ই ভিসি সাহেব আমারে নেবেন না। বা কোনো হাসপাতালে গিয়া বলি, এতদিন রাজনীতি করছি, হাসপাতালে ডাক্তারি করতে দেন। বোঝেন অবস্থাটা কী হবে? এগুলো বললে হাসির পাত্র হওয়া ছাড়া আর কিছু হবে না। যদি বলি এত বছর রাজনীতি করছি ইঞ্জিনিয়ারিংয়ে সুপারিন্টেন্ডেন্ট এর পদ দিতে পার। সেখানে আমাকে দিবে? কিন্তু রাজনীতি গরিবের ভাউজ। ভাউজ মানে ভাবি। রাষ্ট্রপতি বলেন, সবাই ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ি, ডাক্তারি পড়ি। ভিসি সাহেবও অবসরের পর রাজনীতি করবেন। যারা সরকারি চাকরি করেন। জজ সাহেব যারা আছেন ৬৭ বছর চাকরি করবেন। অবসরের পর বলবেন, আমিও রাজনীতিবিদ। আর্মির জেনারেল হওয়া সেনাপ্রধান হওয়া, সরকারি সচিব, প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি, কেবিনেট সেক্রেটারি চাকুরি থেকে অবসর নিয়ে বলেন, আমি রাজনীতি করবো। কোনো রাখঢাক নাই। যার ইচ্ছা, যখন ইচ্ছা তখনই রাজনীতি ঢোকে।
তিনি বলেন, চাকরি করে যা করার করছে। এরপর বলছে রাজনীতি করবো। আমার মনে হয় সকল রাজনৈতিক দলকে এটা চিন্তা করা উচিত। হ্যাঁ, এক্সপার্টের দরকার আছে। অনেক সময় বলা হয় পেশাভিত্তিক পার্লামেন্ট। হ্যাঁ, পেশাভিত্তিক করেন। এমবিবিএস পাস করে সরাসরি রাজনীতি করেন। কোনো অসুবিধা নেই। ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ে চাকরিতে না ঢুকে সরাসরি রাজনীতিতে ঢোকেন। বিসিএস পরীক্ষা দিয়ে সরাসরি রাজনীতিতে আসেন। রাজনৈতিক দলগুলোকে এসব ব্যাপারে চিন্ত-ভাবনা করতে হবে। এই যে রাজনীতিবিদদের সমস্যা এই সমস্যার কারণও এটা। বিজনেসম্যানরা তো আছেইৃ শিল্পপতি-ভগ্নিপতিদের আগমন এভাবে হয়ে যায়। এগুলো থামানো দরকার। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) নির্বাচন নিয়ে আবদুল হামিদ বলেন, ডাকসু নির্বাচন নিয়ে আশার আলো দেখছি। ছাত্র সমাজকে বিনীতভাবে অনুরোধ জানাই। যখন তফসিল হয়, দেখা যাবে অনেক ক্যালকুলেশন হবে। ভেজাল সৃষ্টি করে দিতে পারে। অনেকে অনেক স্বার্থে করতে পারে। কিন্তু সমস্ত ছেলেমেয়েদের বঞ্চিত করা উচিৎ না। এ ব্যাপারে তৎপর থাকতে হবে। যাতে কোনোভাবে নির্বাচন বাধাগ্রস্থ করতে না পারে। যারা ব্যক্তি বা অন্য স্বার্থ দেখতে চায় এদেরকে সম্মিলিতভাবে প্রতিহত করতে হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।