রংপুর-কুমিল্লার ম্যাচে প্রতিপক্ষ বৃষ্টিও

303

খেলাধুলা ডেস্ক: আজ রোববার সন্ধ্যা ৬টা’য় মিরপুর শের-ই-বাংলা জাতীয় ক্রিকেট স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত হবে বিপিএলের চলতি আসরের দ্বিতীয় কোয়ালিফায়ার ম্যাচ। যেখানে মাশরাফির রংপুর রাইডার্সকে মোকাবেলা করবে তামিমের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। দু’দলের জন্য ম্যাচটি এতটাই গুরুত্বপূর্ণ যে, জয়ী দল উঠে যাবে টুর্নামেন্টের ফাইনালে। আর হেরে যাওয়া দল আসর থেকে বিদায় নেবে। ম্যাচটিকে তাই দু’দলের জন্য বাঁচা-মরার লড়াই বললে এতটুকুও ভুল হবে না। আর বাঁচা-মরার এই ম্যাচেই বাধ সেধেছে বৃষ্টি। তাই মূল এই দুই প্রতিপক্ষের বাইরেও এই ম্যাচে তৃতীয় প্রতিপক্ষ হিসেবে আবির্ভূত হয়েছে অগ্রাহায়নের বৃষ্টি। বাংলাদেশ আবহাওয়া অধিদপ্তরের দেয়া তথ্যমতে, শনিবারের মতো হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টির ধারাবাহিকতা অব্যাহত থাকবে রোববারও। তাহলে কী হবে? উত্তরটি সবারই জানা, ম্যাচটিই অনুষ্ঠিত হবে না। তাতে করে ম্যাচের ভাগ্য যেভাবে নির্ধারিত হবে সেটি রংপুর রাইডার্সের জন্য বয়ে আনবে বর্ণনাতীত হতাশা। কেননা বিপিএলের বাইলজ অনুযায়ী গ্রুপ পর্বে পয়েন্ট টেবিলে যে দল এগিয়ে থাকবে তারাই চলে যাবে ফাইনালে। সেই হিসেবে এগিয়ে কিন্তু তামিম ইকবালের কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। আর যদি বৃষ্টি থেমে কার্টেল ওভারে গড়ায়, সে ক্ষেত্রে সর্বনিম্ন ৫ ওভার করে খেলা হবে। সেটিও না হলে কাট অফ টাইমের পরে সুপার ওভার (১ ওভার) অনুষ্ঠিত হবে। সুপার ওভার খেলা সম্ভব না হলে বাইলজ অনুসারে খেলা নিস্পত্তি হবে। বৃষ্টিতে ম্যাচ পরিত্যক্ত হলে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকায় ফাইনালের টিকিট নিশ্চিত করবে ২০১৫ বিপিএলের শিরোপাধারীরা। আর টেবিলের চতুর্থস্থানে থাকায় টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নেবে মাশরাফির রংপুর রাইডার্স।। তাই দু’দলকেই তৃতীয় এই প্রতিপক্ষকে মাথায় রাখতেই হচ্ছে। অথচ গেইলের দানবীয় ব্যাটিংয়ে এলিমিনেটর ম্যাচে কী অভাবনীয় খেলাই না উপহার দিলো রংপুর। মাহমুদউল্লাহ রিয়াদদের দেয়া ১৬৮ রানের চ্যালেঞ্জিং লক্ষ্যেই পৌঁছে যায় মাত্র ২ উইকেটের খরচায়, তাও ২৮ বল হাতে রেখে। পক্ষান্তরে পুরো টুর্নামেন্টে ভালো খেলেও প্রথম কোয়ালিফায়ারে ঢাকার বিপক্ষে কুমিল্লার হারটি ছিলো সত্যিই নিদারুণ বেদনার। গ্রুপ পর্বে দুইবারের মোকাবেলায় যে ঢাকাকে হারের অমানিষায় ডুবিয়ে মাঠ ছেড়েছিলো, তাদের কাছেই মেনে নিতে হয়েছে ৯৫ রানের বড় হার।