যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য মাসুদকে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা

90
?????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????????

সমীকরণ প্রতিবেদন:
আলমডাঙ্গার কৃতী সন্তান মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য নির্বাচিত হওয়ায় চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের পক্ষ থেকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেল চারটায় চুয়াডাঙ্গা শ্রীমন্ত টাউন হলে জাকজমকপূর্ণ আয়োজনের মধ্যদিয়ে তাঁকে সংবর্ধনা প্রদান করা হয়। এর আগে মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদের বহনকরা গাড়ি চুয়াডাঙ্গা শহরের অদূরে ঘোড়ামারা ব্রিজের নিকট পৌঁছালে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের নেতা-কর্মীরা তাঁকে বরণ করে নেন। চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দারের নেতৃত্বে মোটরসাইকেল শোভাযাত্রা নিয়ে শহরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে শ্রীমন্ত টাউন হলে এস সমাপ্তি হয়। পরে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের আয়োজনে শ্রীমন্ত টাউন হলে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভার শুরুতে যুবলীগের কেন্দ্রীয় কমিটির নবনির্বাচিত সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয় এবং ক্রেস্ট প্রদান করা হয়। চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দারের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য দেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির নবনির্বাচিত সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগের পূর্বের কমিটির থেকে বর্তমান কমিটি অনেক সুসংগঠিত। চুয়াডাঙ্গা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দারসহ যেসব নেতা-কর্মীরা আছেন, তাঁদের সবরকম দলীয় কার্যকলাপে কেন্দ্রীয় কমিটি খুশি। তিনি আরও বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালি করতে যুবলীগকে আরও সুসংগঠিতভাবে কাজ করতে হবে।
আলোচনা সভায় সভাপতির বক্তব্যে জেলা যুবলীগের আহ্বায়ক নঈম হাসান জোয়ার্দ্দার বলেন, যুবলীগের হাতকে আরও শক্তিশালি করতে জেলাসহ সকল ইউনিয়নের নেতা-কর্মীদের একত্রিত হয়ে কাজ করতে হবে। আমাদের চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগকে দমানোর জন্য আমাদের ওপর মামলা দেওয়াসহ জেল খাটানো হয়েছে। কেন আমাদের নেতা-কর্মীদের নামে মিথ্যা মামলা করা হবে। মিথ্যা অপরাধে কেনইবা আমাদের জেল খাটতে হবে। আমরা একই দল করি। আমরা সবাই নৌকার লোক। মামলা দিয়ে চুয়াডাঙ্গা জেলা যুবলীগকে দমিয়ে রাখা যাবে না।
জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক জিল্লুর রহমান জিল্লুর সঞ্চালনায় আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য দেন জেলা যুবলীগের যুগ্ম আহ্বায়ক শামসুদ্দোহা মল্লিক হাসু, জেলা যুবলীগের সদস্য হাফিজুর রহমান হাপু, অ্যাড. তসলিম উদ্দিন ফিরোজ, সাজেদুল ইসলাম লাভলু, শরীফ হোসেন দুদু, আলমগীর আজম খোকা, চুয়াডাঙ্গা পৌর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নাঈম পারভেজ সজল, আলমযাঙ্গা উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সোনাহার মণ্ডল প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জেলা যুবলীগের সদস্য আবুবক্কর সিদ্দিক আরিফ, আজাদ আলী, যুবলীগ নেতা পিরু মিয়া, মাসুদুর রহমান মাসুম, আল ইমরান শুভ, শেখ সাহি, বিপ্লব হোসেন, টুটুল, জুয়েল, পলেন, রামিম হাসান সৈকত, সুইট, লোকমান, দিপু, জাকির, সুমন, ইমরানসহ চুয়াডাঙ্গা-আলমডাঙ্গা উপজেলার সকল ইউনিয়নের সভাপতি, সাধারণ সম্পাদকসহ যুবলীগের নেতা-কর্মীরা।