চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ৭ সেপ্টেম্বর ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

যুক্তরাষ্ট্রকে ‘আরও উপহার দেবে’ উত্তর কোরিয়া

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৭ ২:০৪ অপরাহ্ণ
Link Copied!

বিশ্ব ডেস্ক: জাতিসংঘে উত্তর কোরিয়ার রাষ্ট্রদূত হান তায়ে সং বলেছেন, ধারাবাহিক উসকানি ও চাপ প্রত্যাহার না করলে তার দেশ যুক্তরাষ্ট্রকে ‘আরও উপহার’ পাঠাতে প্রস্তুত। মঙ্গলবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় অস্ত্রনিরোধ সম্মেলনে হান এ হুঁশিয়ারি দেন বলে রয়টার্স জানিয়েছে। “আত্মরক্ষার্থে নেয়া আমার দেশ ডিপিআরকে-র সাম্প্রতিক কর্মসূচি ছিল যুক্তরাষ্ট্রের জন্য উপহার, অন্য কারও জন্য নয়। “বেপরোয়া উসকানি ও চাপ প্রয়োগের বৃথা চেষ্টা যতদিন যুক্তরাষ্ট্র করে যাবে, ততদিনই এ ধরণের উপহার তারা পেতে থাকবে,” বলেন হান। উত্তর কোরিয়ার সর্বশেষ পারমাণবিক পরীক্ষার পর যুক্তরাষ্ট্র দেশটির ওপর সম্ভাব্য কঠোর নিষেধাজ্ঞা আরোপে জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে আহ্বান জানানোর একদিন পর উত্তর কোরিয়ার এ প্রতিক্রিা এলো। সোমবার জাতিসংঘে যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত নিকি হ্যালি অনেক বেশি দেরি হওয়ার আগেই উত্তর কোরিয়ার বিরুদ্ধে কঠোর হওয়ার আহ্বান জানান। হ্যালি সতর্ক করে বলেন, উত্তর কোরিয়ার সঙ্গে ব্যবসায়িক লেনদেনে নিয়োজিত দেশগুলোও তাদের পারমাণবিক উচ্চাকাঙ্খায় সহায়তা করছে। কিম জং উন তার কর্মকা-ের মাধ্যমে যুদ্ধের পথে হাঁটার অভিলাষ দেখাচ্ছেন বলেও মন্তব্য করেন হ্যালি। “আমরা এখন যুদ্ধ চাইছি না। তবে আমাদের দেশের ধৈর্য্যও অসীম নয়।” অন্যদিকে রাশিয়া বলছে, পিয়ংইয়ংয়ের ওপর বাড়তি নিষেধাজ্ঞা চাপিয়ে কোনও লাভ হবে না। এভাবে উত্তর কোরিয়াকে পারমাণবিক কর্মসূচি থেকে বিরত রাখা যাবে না বলেও মন্তব্য করেছেন রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন। “তারা ঘাস খেয়ে বাঁচবে, তবু পারমাণবিক কর্মসূচি বাতিল করবে না।” উত্তর কোরিয়া সঙ্কটকে কেন্দ্র করে যে ‘যুদ্ধের উন্মাদনা’ শুরু হয়েছে তা বিশ্বে জন্য বিপর্যয় ডেকে আনবে বলেও পুতিন সতর্ক করেছেন। তিনি চীনের সুরে সুর মিলিয়ে আলোচনার পথেই উত্তর কোরিয়া সঙ্কটের সমাধানের কথা বলেন। মঙ্গলবার জাতিসংঘে রাশিয়ার রাষ্ট্রদূত ভাসিলি নেবেনজিয়াও কূটনৈতিক পথের ওপর জোর দিয়েছেন। ১১ সেপ্টেম্বর নিরাপত্তা পরিষদে উত্তর কোরিয়ার ওপর নতুন নিষেধাজ্ঞা চেয়ে করা যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব নিয়ে ভোট হবে। সেখানে মস্কো ভেটো দিতে পারে এমন ইঙ্গিত দিয়ে ভাসিলি বলেন, উত্তর কোরিয়ায় নতুন করে নিষেধাজ্ঞা আরোপের পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়নি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।