মেহেরপুরে নারী মাদকব্যবসায়ী ফিরোজার জেল

232

মেহেরপুর প্রতিনিধি: মেহেরপুরে ফেনসিডিল রাখার অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ফিরোজা বেগম নামের এক নারীর ৩ বছরের সশ্রম কারাদ- ও ৩ হাজার টাকা জরিমানা এবং অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদন্ড প্রদান করেছে বিজ্ঞ আদালত। মেহেরপুর স্পেশাল ট্রাইব্যুনাল ২য় আদালতের বিচারক মো. নুরুল ইসলাম এই আদেশ দেন। সাজাপ্রাপ্ত ফিরোজা বেগম সদর উপজেলার বুড়িপোতা গ্রামের ছায়েদ আলীর স্ত্রী।
মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০১২ সালের ২৫ সেপ্টেম্বর মেহেরপুর গাংনী র‌্যাব ক্যাম্পের একটি দল গোপন সুত্রে খবর পেয়ে সদর উপজেলার বুড়িপোতা গ্রামের মোছাদ মোল্লার মুদি দোকানের সামনে থেকে ফিরোজা বেগমকে ২০ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক করে। এঘটনায় ১৯৭৪ সারের বিশেষ ক্ষমতা আইনের ২৫ বি (২) ধারায় রিরোজা বেগমের নামে একটি মামলা দায়ের করা হয়। যার মামনা নং ৫। জি, আর কেস নং ৬৬৪/১২। এস,টি.সি নং ২। পরে মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা মামলার প্রাথমিক তদন্ত শেষ করে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। মামলার মোট ৭ জন সাক্ষি প্রদান করে। এতে আসামী দোষী প্রমাণিত হওয়ায় আদালত ফিরোজা বেগমকে ৩ বছরের সশ্রম কারাদ- ও ৩ হাজার টাকা জরিমান অনাদায়ে আরো ৩ মাসের কারাদ- দেন। মামলায় রাষ্ট্রপক্ষের এ্যাড. এসএম ইব্রাহিম শাহীন কৌসুলী ছিলেন। ফিরোজা বেগম ২০১২ সালের ২৬ সেপ্টেম্বর থেকে ৩১ অক্টোবর পর্যন্ত কারাভোগ করায় সাজা থেকে ওই দিনগুলো বাদ দেয়া নির্দেশ দেন। উদ্ধারকৃত ফেন্সিডিল ধ্বংস করে ফেলার নির্দেশ দেয়া হয়।