মেহেরপুরে টাকা না পেয়ে স্ত্রীকে পিটিয়ে জখম

270

মেহেরপুর অফিস: মেহেরপুর সদর উজেলার যাদবপুর গ্রামে জাকিয়া পারভিন (৪৫) নামের এক গৃহবধুকে পিটিয়ে জখম আহত করেছে পাষন্ড এক স্বামী। জাকিয়া পারভিন যাদবপুর গ্রামের নয়মুদ্দিনের ছেলে দাউদ আলীর ২য় স্ত্রী। আহত অবস্থায় বর্তমানে সে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে। আহত গৃহবধু জাকিয়া পারভিন জানান, দুই বছর আগে তার স্বামী মারা যায়। এরপর গ্রামের দাউদ আলী আমাকে ভয়ভীতি দেখিয়ে জোর করে বিয়ে করে। বিয়ের পর আমার কাছে থাকা ৬ লাখ টাকা সে হাতিয়ে নেই। বিয়ের প্রথম দিকে সংসার ভালই চলছিল। কয়েক মাস আগে থেকে আবারো আমাকে টাকার জন্য বিভিন্নভাবে চাপ দিতে থাকে। আমি টাকা দিতে অস্বীকার করলে আমার উপর অত্যাচার শুরু করে। গতকাল শুক্রবার সকালে আবারো টাকা চাওয়াকে কেন্দ্র করে আমাকে মারপিট শুরু করে। এসময় সে আমাকে বেদম মারপিট করলে আমি চিৎকার শুরু করি। পরে স্থানীয়রা আমাকে আহত অবস্থায় উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে। দাউদ আলীর আগের পক্ষের স্ত্রী আছে। এরপর আমার টাকার উপর লোভ করে সে আমাকে বিয়ে করেছিল। এ বিষয়ে থানায় একটি অভিযোগ দাখিল করা হয়েছে। মেহেরপুর সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রবিউল ইসলাম জানান, এধরনের একটি অভিযোগ পেয়েছি। অপরাধীর বিরুদ্ধে দ্রুত আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।