মেহেরপুরে ঈদ-উল আযহা পালন উপলক্ষে আলোচনা সভায় ডিসি আনোয়ার হোসেন

439

সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির মাধ্যমে কোরবানি ঈদ পালন করতে হবে
মেহেরপুর অফিস: পবিত্র ঈদ-উল আযহার প্রথম জামাত সকাল ৮টায় মেহেরপুর পৌর ঈদগাহ মাঠে এবং ২য় বৃহত্তম জামাত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮-১৫ মিনিটে মেহেরপুর পুরাতন ঈদগাহ মাঠে। এছাড়াও সকাল ৯টায় মহিলাদের জামাত সাড়ে ৮টায় কোর্ট জামে মসজিদ এবং সকাল সাড়ে ৭টায় মেহেরপুর সদর থানা জামে মসজিদে অনুষ্ঠিত হবে। গত বৃহস্পতিবার জেলা প্রশাসনের আয়োজনে এক আলোচনা সভায় ওই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেনের সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সরকার বিভাগের উপ-পরিচালক খায়রুল হাসান, পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তৌফিকুর রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার শেখ জাহিদুল ইসলাম, জেল সুপার একেএম কামরুল হুদা, জেলা তথ্য অফিসার মোহাম্মদ আলী, সদর থানার ওসি রবিউল ইসলাম খান, জেলা প্রাণি সম্পদ কর্মকর্তা ডা. রফিকুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা আশকার আলী, জেলা ইমাম সমিতির সভাপতি আনসার উদ্দীন বেলালী, বড় বাজার জামে মসজিদের পেশ ইমাম আ. হান্নান প্রমূখ।
সভায় জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ আনোয়ার হোসেন বলেন, মেহেরপুর জেলার মানুষ অত্যান্ত শান্তি প্রিয় মানুষ। পবিত্র ঈদ-উল আযহা যাতে করে মানুষ শান্তিপূর্ণভাবে পালন করতে পারে তার জন্য সকলকে আন্তরিক হতে হবে। তিনি বলেন, সৌহার্দ্য ও সম্প্রীতির মাধ্যমে ঈদ-উল আযহা বা কোরবানি ঈদ পালন করতে হবে। আলোচনা সভায় পৌর মেয়র মাহফুজুর রহমান রিটন বলেন, পবিত্র ঈদ-উল আযহা উপলক্ষে আমি আশা করবো শহর পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন রাখার লক্ষে নির্ধারিত স্থানে পশু জবাই করবেন। তিনি আরও বলেন, এই শহর পরিষ্কার-পরিছন্ন রাখার দায়িত কেবল আমার একার নয়, সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। সভায় আসন্ন পবিত্র ঈদুল আযহা উপলক্ষে অবৈধ্য নছিমন, করিমন, আলগামনে অতিরিক্ত যাত্রী না তোলার জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। পাশাপাশি ওই সমস্ত যানে কোন ধরনের মাইক বাজানো এবং পটকা ফাটানো নিষিদ্ধ ঘোষণা করা হয়।