চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ২১ মার্চ ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মেধাবী ছাত্র অনিককে বাঁচাতে এগিয়ে আসুন

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
মার্চ ২১, ২০২২ ৮:০৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ঝিনাইদহ অফিস:

ঢাকা কলেজের ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগের অনার্স প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী অনিক মেহমুদের জীবন থমকে গেছে হজকিন লিম্ফোমা ক্যানসারে। যদিও অনিককে বাঁচানোর চেষ্টায় কমতি রাখেনি তাঁর পরিবার। মধ্যবিত্ত পরিবারটি ক্যানস্যরের সঙ্গে লড়াই করতে করতে নিঃস্ব হয়ে পড়েছে। ব্যয়বহুল চিকিৎসা চালাতে ইতঃমধ্যে অনিকের পরিবারের ব্যয় হয়েছে ১৫ লাখ টাকা। সবশেষ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক দল তাঁকে বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট করার পরামর্শ দিয়েছেন। তবেই বাঁচবে অনিক। এ জন্য প্রয়োজন আরও ১৫ লাখ টাকা, যা মধ্যবিত্ত পরিবারটির পক্ষে যোগাড় করা অসম্ভব।

পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে, ঝিনাইদহ শহরের মহিলা কলেজপাড়ার শরিফুল ইসলামের ছেলে অনিক মেহমুদ ২০১৭ সাল থেকে হজকিন লিম্ফোমা ক্যানসারে আক্রান্ত। জেলা শহরের কাঞ্চননগর মডেল হাইস্কুল অ্যান্ড কলেজ থেকে ২০১৬ সালে এসএসসিতে জিপিএ-৫ পায় অনিক। এইচএসসি পাস করার পর ঢাকা কলেজে ভূগোল ও পরিবেশ বিভাগে ভর্তি হন। এরপরই ক্যানসার ধরা পড়ে অনিকের।

অনিকের বাবা শরিফুল ইসলাম জানান, চার বছর ধরে হজকিন লিম্ফোমা ক্যানসারে আক্রান্ত তাঁর আদরের ধন। ভারতের চেন্নাইয়ের অ্যাপোলো ক্যানসার ইনস্টিটিউট হাসপাতালে রোগ নির্ণয়ের পর চিকিৎসা শুরু করা হয় অনিকের। চিকিৎসকরা তাঁর জীবন বাঁচাতে বোনম্যারো ট্রান্সপ্ল্যান্ট করার পরামর্শ দিয়েছেন। এ জন্য ব্যয় হবে ১৫ লাখ টাকা। বর্তমান অনিক ঢাকার সিএমএইচ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন আছেন। ছেলের চিকিৎসায় অনিকের পিতা আর্থিক সহায়তার জন্য সমাজের বিত্তবানদের প্রতি অনুরোধ করেছেন। আর্থিক সহায়তা পাঠানোর ঠিকানা: হিসাব নম্বর ১০০১২৭১৯৭৮০১ (জনতা ব্যাংক লিমিটেড, ঝিনাইদহ শাখা); বিকাশ অ্যাকাউন্ট ০১৭৭৬৫৫৩৬৬৩। প্রয়োজনে যোগাযোগ করুন ০১৭৪৪৯৬৯৩২৯ এই নম্বরে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।