চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৯ জানুয়ারি ২০১৮
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মুজিবনগরে অদক্ষ চালকের কারণে স্কুল ছাত্রীর মর্মান্তিক মৃত্যু

সমীকরণ প্রতিবেদন
জানুয়ারি ৯, ২০১৮ ১২:১৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

মুজিবনগর প্রতিনিধি: মেহেরপুর মুজিবনগর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে পাওয়ারট্রিলারের সাথে ধাক্কা লেগে স্নগ্ধিা খাতুন (১০) নামের এক স্কুল ছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। গতকাল সোমবার সকাল পৌনে দশটার দিকে মুজিবনগর উপজেলার ভবানীপুর গ্রামে এ দুর্ঘটনা ঘটে। নিহত স্নগ্ধিা খাতুন একই গ্রামের আসলাম আলীর মেয়ে। সে স্থানীয় কেদারগঞ্জ জিনিয়াস স্কুলের তৃতীয় শ্রেণীর ছাত্রী ছিল। ঘটনার পর থেকে পাওয়ারট্রলারের চালক তৌফিক পলাতক রয়েছে।
প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, স্নিগ্ধা রাত্রে কেদারগঞ্জ বাজারে তার খালার বাড়িতে ছিল সকালে বাজারের রাস্তায় ছোট বাইসাইকেল চালাচ্ছিল এসময় রামনগর গ্রামের রিফিউজিপাড়ার আখের আলীর ছেলে তৌফিক পাওয়ারট্রিলারে বালি বোঝায় করে কেদারগঞ্জ বাজারের ময়েন উদ্দিনের বাড়ি যাওয়ার পধিমধ্যে ওই সড়কের ইলিয়াসের স্কয়ার ইলেক্ট্রনিক্স দোকানের সামনে অদক্ষ চালক তৌফিক বাইসাইকেলে একেবারে রাস্তার পাশে থাকা স্নিগ্ধাকে ধাক্কা দেয়। এসময় চালক তৌফিক জখম বাচ্চাটিকে উদ্ধার না করে পালিয়ে যায়। পরে পাওয়ার ট্রিলার ধাক্কায় রাস্তায় ছিটকে পড়া স্কুলছাত্রী স্নগ্ধিাকে স্থানীয়রা দ্রুত উদ্ধার করে মুজিবনগর স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালে রেফার্ড করেন। মেহেরপুর হাসপাতালে নিলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।
প্রত্যক্ষদর্শী ও স্থানীয়রা স্নিগ্ধার মৃত্যুর জন্য পাওয়ারট্রলারের চালক তৌফিককে দায়ী করেন। তৌফিকের বেপরোয়া গাড়ি চালনা ও অদক্ষতাকে দায়ি করে তার দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছে।
মুজিবনগর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মনিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, এবিষয়ে একটি নিয়মিত মামলা হয়েছে। লাশ ময়নাতদন্তের পর পরিবারের হাতে হস্তান্তর করা হয়েছে। শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত বাদ এশা ভবানিপুর কবরস্থহানে শিশু স্নিগ্ধার দাফনকার্য সম্পন্ন করা হয়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।