মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা, আলোচনাসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ

49

মার্চ মাসে বিভিন্ন জাতীয় দিবস পালনে আলমডাঙ্গা ও জীবননগরে প্রস্তুতি সভা
সমীকরণ প্রতিবেদন:
মার্চ মাসে বিভিন্ন জাতীয় দিবস পালনে আলমডাঙ্গা ও জীবননগরে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার পৃথক আয়োজনে এ প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়।
আলমডাঙ্গা:
মার্চ মাসে বিভিন্ন জাতীয় দিবস পালনে আলমডাঙ্গায় প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় আলমডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের হলরুমে এ প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার পুলক কুমার মণ্ডলের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আইয়ুব হোসেন।
সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন আলমডাঙ্গা পৌর মেয়র ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি আলহাজ্ব হাসান কাদির গনু, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. খন্দকার সালমুন আহম্মদ ডন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু, সহকারী কমিশনার (ভূমি) হুমায়ন কবির ও আলমডাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর কবির।
কৃষি সম্প্রসারণ কর্মকর্তা সোহেল রানার উপস্থাপনায় সভায় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন জেলা চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি হারদী ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম, উপজেলা চেয়ারম্যান সমিতির সভাপতি কাউসার আম্মদ বাবলু, সম্পাদজক নুরুল ইসলাম নুরু, ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল হালিম মণ্ডল, আমিরুল ইসলাম মণ্টু, আবু তাহের আবু, আমিনুল ইসলাম রোকন, মাসুদ পারভেজ, নুরুল ইসলাম, আবু সাইদ পিণ্টু, তরিকুল ইসলাম, আব্দুস সালাম বিল্পব, বীর মুক্তিযোদ্ধা শেখ নুর মোহাম্মদ জকু, বীর মুক্তিযোদ্ধা আব্দুল কুদ্দুস, বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. শাহাবুদ্দিন, বীর মুক্তিযোদ্ধা মইনদ্দিন, কৃষি অফিসার সোহরোয়ার্দি, সমাজসেবা কর্মকর্তা আফাজ উদ্দিন, মেডিকেল অফিসার ডা. রাগিব সাহরিয়ার, প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. আব্দুল্লাহিল কাফি, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান খান, খাদ্য কর্মকর্তা মোফাখাইরুল ইসলাম, সমবায় কর্মকর্তা মজিবর রহমান প্রমুখ।
জীবননগর:


জীবননগরে মার্চ মাসে বিভিন্ন জাতীয় দিবসসমূহ পালনের লক্ষে প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বৃহস্পতিবার বেলা ১১টায় উপজেলা পরিষদের সভাকক্ষে এ প্রস্তুতি সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মুনিম লিংকনের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান হাফিজ।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম মোর্তুজা, উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান আবু মো. আব্দুল লতিফ অমল, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম ইশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকী, জীবননগর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) সাইফুল ইসলাম, উপজেলা শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান, উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার দ্বীনেশ চন্দ্র পাল, উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা সেলিমা আখতার, উপজেলা প্রাণিসম্পদ কর্মকর্তা ডা. তানভির হাসান, সমাজসেবা কর্মকর্তা জাকির হোসেন মোড়ল, উপজেলা কৃষি অফিসার শারমিন আক্তার ও উপজেলার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহমুদা খাতুন।
এছাড়াও সভায় উপস্থিত ছিলেন জীবননগর সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ আলাউদ্দীন, উপজেলা আনসার ভিডিপি প্রশিক্ষক জসিম উদ্দীন, জীবননগর সাংবাদিক সমিতির সভাপতি জি এ জাহিদুল ইসলাম জাহিদ বাবু, জীবননগর ডিগ্রি কলেজের প্রভাষক আমিনুল ইসলাম, জীবননগর সরকারি মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক যাদব কুমার প্রামাণিক, জীবননগর থানা পাইলট মডেল মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী প্রধান শিক্ষক রেবেকা সুলতানা, জীবননগর শাপলাকলি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক নাসিরুল হক, হাসাদাহ ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম বিশ^াস, রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুর রশিদ শাহ, সীমান্ত ইউপি চেয়ারম্যান মঈন উদ্দীন ময়েন, সাবেক উপজেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নিজাম উদ্দীন, সাবেক ডেপুটি কমান্ডার বদর উদ্দীন, দলিল উদ্দীন দলু, ওয়েভ ফাউন্ডেশনের প্রকল্প সমন্বয়ক আব্দুল আলিম সজল, ঊষা বাংলাদেশ এনজিওর সমন্বয়ক আলগীর হোসেন, বিভিন্ন দপ্তরের, কলেজ ও বিদ্যালয়ের প্রধানগণ উপস্থিত ছিলেন।
প্রস্তুতি সভায় ৭ মার্চ জাতির জনকের ভাষণ, ১৭ মার্চ জাতির জনকের জন্মদিন উপলক্ষে কেক কাটা, ২৫ মার্চ রাত ৯টা থেকে ৯ টা ১ মিনিট পর্যন্ত বাতি নিভিয়ে এমনকি যার যার বাড়িতে আইপিএস আছে, তা বন্ধ রেখে পালনের জন্য বলা হয় এবং ২৬ মার্চ স্বাধীনতা দিবস উদ্যাপনে সামাজিক দূরত্ব মেনে শরীরচর্চা, খেলাধুলা, সংগীতানুষ্ঠান, মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা, মুক্তিযোদ্ধার কবর জিয়ারত, আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণের কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়।