মিয়ানমারে আরও তিন বিক্ষোভকারী নিহত, কারখানা-ব্যাংক বন্ধ

22

বিশ্ব ডেস্ক:
মিয়ানমারে সেনাশাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে গুলিবিদ্ধ হয়ে আরও তিন জন নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় আরও দুই জন গুলিবিদ্ধ হয়েছেন। গতকাল সোমবার ফেসবুকে পোস্ট করা ছবিতে উত্তরাঞ্চলীয় শহর মাইতকিইনার রাস্তায় দুই ব্যক্তির মৃতদেহ পড়ে থাকে। মাইতকিইনার প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, তারা জান্তাবিরোধী বিক্ষোভ করার সময় পুলিশ স্টান গ্রেনেড ও কাঁদুনে গ্যাস ছোড়ে, ওই সময় নিকটবর্তী ভবনগুলো থেকে গুলি ছোড়া হলে বেশ কয়েকজন গুলিবিদ্ধ হয়। মৃতদেহগুলো সরাতে সাহায্য করা একজন প্রত্যক্ষদর্শী জানিয়েছেন, মাথায় গুলি লাগার পর দুই ব্যক্তি ঘটনাস্থলেই মারা যান। পরে গুলি বিদ্ধ হয়ে আরও এক জন মারা গেছে। প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন, বিক্ষোভস্থলে পুলিশ ও সামরিক বাহিনীর উপস্থিতি থাকলেও কারা গুলি ছুড়েছে তাৎক্ষণিকভাবে তা পরিষ্কার ছিল না।
এদিকে, সামরিক শাসকদের বিরুদ্ধে গড়ে ওঠা আন্দোলনের অংশ হিসেবে আজ বৃহত্তম শহর ইয়াঙ্গুনে দোকানপাট, কারখানা ও ব্যাংক বন্ধ ছিল। গত ১ ফেব্রুয়ারি বেসামরিক সরকারকে উৎখাত করে অং সান সু চিসহ তার দলের শীর্ষস্থানীয় নেতা-কর্মীদের গ্রেফতার করার পর থেকে মিয়ানমারে আন্দোলন চলছে। এরইমধ্যে সামরিক শাসনের বিরুদ্ধে বিক্ষোভে বিভিন্ন শহরে মারা গেছেন প্রায় ৬০ জন। নিয়মিতভাবে চলা বিক্ষোভ ও নিরাপত্তা বাহিনীর দমনাভিযানে প্রশাসনিক কার্যক্রম এবং ব্যবসা-বাণিজ্যেও নেমে এসেছে স্থবিরতা। সূত্র: রয়টার্স।