চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ১৮ জানুয়ারি ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মিষ্টি নিয়ে তৈমূরের বাড়িতে আইভী

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জানুয়ারি ১৮, ২০২২ ১১:১৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশনের নবনির্বাচিত মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভী পরাজিত মেয়র প্রার্থী তৈমূর আলম খন্দকারের বাড়িতে যান মিষ্টি নিয়ে। রবিবার এ সিটিতে ভোট গ্রহণ হয়। ভোটের পরের দিন গতকাল বিকাল সোয়া ৫টার দিকে তিনি শহরের মাসদাইরে তৈমূরের বাসায় যান। আইভী প্রথমে তাঁর তৈমূর ‘কাকাকে’ মিষ্টি মুখ করান। তৈমূরও তাঁর ‘ভাতিজি’ আইভীকে মিষ্টিমুখ করান, মাথায় হাত রেখে দোয়া করেন। এ সময় তৈমূর আলম বলেন, আমি সদ্য বিজয়ী এই মেয়রের পাশে আছি। আইভী বলেন, রাজনীতি রাজনীতির জায়গায় কিন্তু আমাদের পারিবারিক সম্পর্কে কখনো ঘাটতি হবে না। ভবিষ্যতে কাজ করতে গেলে অবশ্যই তৈমূর কাকার পরামর্শ নেব। এই সৌহাদ্যপূর্ণ আচরণ নারায়ণগঞ্জের রাজনৈতিক সংস্কৃতিতে ভিন্নমাত্রা এনেছে।

তৈমূর আলম খন্দকার নবনির্বাচিত মেয়র সেলিনা হায়াৎ আইভীকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, আইভীর বাবা আলী আহম্মদ চুনকার সঙ্গে আমার আধ্যাত্মিক সম্পর্ক। এই সম্পর্ক কখনো নষ্ট হবে না। আপনারা সবাই আইভীকে সহযোগিতা করবেন। আমার শ্রদ্ধা আলী আহম্মদ চুনকার জন্য আজীবন থাকবে। তাঁর মেয়ে আইভীর পাশে সব বিপদ-আপদে আছি, থাকব। অদৃশ্য শক্তির মতো পাশে থাকব। মেয়র নির্বাচন করতে গিয়ে বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়ার উপদেষ্টার পদ হারানো প্রবীণ নেতা তৈমূর বলেন, এটা নির্বাচন ছিল। আমরা আগামীতে সুন্দরমতো থাকব। এখানে অন্য কথাবার্তা কাজে আসবে না। আমি আগেই বলেছি, আইভীর সঙ্গে আমার অন্তরের ও আধ্যাত্মিক সম্পর্ক। তিনি সবার প্রতি আহ্বান জানান মেয়রকে সহযোগিতা করার। বাবার সহযোদ্ধার কাছ থেকে এসব কথা শুনে টানা তৃতীয়বারের মতো নির্বাচিত মেয়র আইভী বলেন, ভবিষ্যতে কাজ করতে গেলে অবশ্যই তাঁর (তৈমূর) পরামর্শ নেব। আমি পৌরসভার মেয়র থাকাকালে তাঁর কাছ থেকে অনেক পরামর্শ নিয়েছি। আমাদের মধ্যে পারস্পরিক সহযোগিতা থাকবে। আমাদের পারিবারিক সম্পর্ক বজায় থাকবে। রাজনীতির জায়গায় রাজনীতি, কিন্তু পারিবারিক সম্পর্কের জায়গায় সম্পর্কটা থাকবে। সিটি নির্বাচনে ৬৬ হাজার ৫৩৫ ভোটের ব্যবধানে হাতি প্রতীকের তৈমূরকে হারানো আইভী বলেন, আমরা যে যেই দল করি না কেন, আমরা সবাই নারায়ণগঞ্জের মানুষ। আমরা একত্রে বসবাস করব।’ ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মেয়র আইভী শুধু সমালোচনার জন্য সমালোচনা নয়, বরং সবার সহযোগিতা কামনা করেন। সাংবাদিকদের উপস্থিতিতে ‘কাকা’-‘ভাতিজি’ পরস্পরকে মিষ্টিমুখ করানো এবং কথাবার্তার একপর্যায়ে তৈমূর নতুন মেয়র আইভীর মাথায় হাত রেখে দোয়া করেন। গত ১৬ জানুয়ারি নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী আইভী পেয়েছেন ১ লাখ ৫৯ হাজার ৯৭ ভোট। আর তাঁর নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী হাতি প্রতীকে পেয়েছেন ৯২ হাজার ৫৬২ ভোট। ফলে ৬৬ হাজার ৫৩৫ ভোটের ব্যবধানে বেসরকারি ফলাফলে নির্বাচিত হন ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।