চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ২৭ ডিসেম্বর ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মিন্টুকে আদালতে সোপর্দ করা হবে আজ : টাউন দারোগার শারিরীক অবস্থার উন্নতি

সমীকরণ প্রতিবেদন
ডিসেম্বর ২৭, ২০১৭ ১২:১৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

চুয়াডাঙ্গা সদর ফাঁড়ির টিএসআই ওহিদের উপর হামলাকারী সন্ত্রাসীকে রাজশাহী থেকে ফিরিয়ে আনা হয়েছে
নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গায় সদর ফাড়ির টিএসআই ওহিদুল ইসলাম ওহিদের উপর হামলাকারী মিন্টুকে পুলিশ পাহারায় চুয়াডাঙ্গায় ফিরিয়ে আনা হয়েছে। গতকাল রাতে সদর থানা পুলিশ হেফাজতে নেয়া হয় তাকে। আজ বুধবার সকালে তাকে আদালতে সোপর্দ করা হবে। এদিকে টিএসআই ওহিদুল ইসলামকে কুপিয়ে জখম করার ঘটনায় আলাদা দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে চুয়াডাঙ্গা সদর থানায়। সোমবার রাতেই চুয়াডাঙ্গা সদর থানায় দুটি মামলা দায়ের করেন শহর ফাঁড়ির (এএসআই) নুর হোসেন। মামলায় সরকারি কাজে বাধাদান ও উপ-পরিদর্শক ওহিদুল ইসলামকে হত্যা প্রচেষ্টার অভিযোগ আনা হয়েছে। মামলায় ৯ জনের নাম উল্লেখ করে অজ্ঞাতনামা ৮/১০ জনকে আসামি করা হয়েছে বলে জানা গেছে।
চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তোজাম্মেল হক জানান, ‘হামলাকারীরা সবাই সরকারি দলের যুব ও ছাত্র সংগঠনের নেতাকর্মী। তাদের গ্রেপ্তারে সোমবার রাত থেকেই সাঁড়াশি অভিযান চালানো হচ্ছে। তবে, হামলার সময় মিন্টুকে ছাড়া আর কোনো আসামিকে গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।’
এ প্রসঙ্গে চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আব্দুল মোমেন জানান, পুলিশের ওপর হামলা ও দারোগা ওহিদুল ইসলামকে হত্যা চেষ্টার সঙ্গে জড়িতরা ইতোমধ্যে চিহ্নিত হয়েছে। তারা চুয়াডাঙ্গা জেলা পুলিশের তালিকাভুক্ত আসামি। এদের প্রত্যেকের নামে সদর থানায় মামলা রয়েছে।’
এদিকে হামলার শিকার টিএসআই ওহিদুল ইসলাম ওহিদ ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। তার শারিরীক অবস্থার অনেকটা উন্নতি হয়েছে। কর্তব্যরত চিকিৎসকদের ভাষ্য অনুযায়ী তিনি এখন বিপদ মুক্ত। গতকাল তাকে দেখতে ও শারিরীক অবস্থার খোঁজখবর নিতে আসেন আইজিপি প্রতিনিধি, রেঞ্জ ডিআইজিসহ পুলিশের উর্দ্ধতন কর্মকর্তারা। এ সময় পুলিশ কর্তারা এহেন নৃশংস ঘটনার সাথে জড়িতদের দ্রুত গ্রেপ্তার পূর্বক আইনের আশ্রয়ে নেয়ার নির্দেশ দিয়েছেন।
উল্লেখ্য, গত সোমবার রাত সাড়ে ৯ টার দিকে চুয়াডাঙ্গা শহরের ফার্মপাড়া এলাকায় পুলিশের একটি টহল দলের ওপর হামলা চালায় দুর্বৃত্তরা। এ সময় দুর্বৃত্তরা শহর পুলিশ ফাঁড়ির উপ-পরিদর্শক (এসআই) ওহিদুল ইসলামকে কুপিয়ে জখম করে। হামলার পর পরই স্থানীয় জনতা হামলাকারীদের মধ্যে মিন্টু (৩২) নামে এক যুবককে আটক করে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দেয়। গুরুতর আহত টিএসআই ওহিদুল ইসলামকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকাতে রেফার্ড করা হয়েছে। গতকাল ভোরে অ্যাম্বুলেন্সেযোগে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। একইসঙ্গে হামলার পর গণধোলাই শেষে আটক হওয়া মিন্টুকেও রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করা হয়েছে। কর্তব্যরত চিকিৎস বলেন, হামলাকারি মিন্টুর অবস্থাও আশঙ্কাজনক। তার মাথায় আঘাতের কারনে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রেফার করা হয়েছে। আজ মিন্টুকে চুয়াডাঙ্গা আদালতে সোপর্দ করা হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।