মানুষ যেভাবে পরিপূর্ণ মুনাফিকে পরিণত হয়

349

ধর্ম ডেস্ক: নিফাক বা অন্তরে কপটাতা পোষণ করা সবচেয়ে নিকৃষ্ট কাজ। যারা সমাজে নেফাকির সবগুলো কাজ করে থাকে তারাই মুনাফিক। আর আল্লাহর ঘোষণা অনুযায়ী মুনাফিকের স্থান হবে জাহান্নামের সর্ব নি¤œস্তরে। যাকে হলা হয় ‘হাবিয়া’। কুরআনুল কারিমে আল্লাহ তাআলা মুনাফিকের অবস্থান নির্ণয় করে বলেন- ‘নিশ্চয় মুনাফিক (ব্যক্তিরা) জাহান্নামের সর্বশেষ স্তরে অবস্থান করবে। আর তাদের জন্য কখনো কোনো সাহায্যকারী থাকবে না।’ (সুরা নিসা : আয়াত ১৪৫) হাদিসে পাকে প্রিয়নবি সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম পরিপূর্ণ মুনাফিকের পরিচয় ও মুনাফিকের স্বভাব তুলে ধরেছেন। যাতে মুমিন মুসলমান এ সব কাজ থেকে নিজেদের হেফাজত করতে পারেন। আর তাহলো- হজরত আব্দুল্লাহ ইবনে আমর রাদিয়াল্লাহু আনহু বলেন, রাসুলুল্লাহ সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম বলেছেন, ৪টি স্বভাব যার মধ্যে থাকবে সে প্রকৃত (পরিপূর্ণ) মুনাফিক। আর যার মধ্যে উহার (৪টির) একটি থাকবে তার মধ্যে মুনাফিকের (স্বভাব) চিহ্ন থাকবে; যে পর্যন্ত না সে তা পরিহার করে। (আর মুনাফিকের ৪টি স্বভাব হলো-) যখন তার কাছে কিছু আমানত রাখা হয়, তা সে খেয়ানত করে। যখন সে কথা বলে মিথ্যা বলে। ওয়াদা করলে তা ভঙ্গ করে। ঝগড়া করলে অশ্লীল বাক্য ব্যবহার করে।’ (বুখারি ও মুসলিম) যারা এ সব কাজে জড়িত থাকবে তারাই পরিপূর্ণ অর্থাৎ প্রকৃত মুনাফিক। তাদের জন্য জাহান্নামের সবচেয়ে তলদেশ সুনির্ধারিত। আর জাহান্নামের তলদেশকে বলা হয় (هاَوِيَة) হাবিয়াহ। উল্লেখিত মুনাফেকির স্বভাব থেকে আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে রক্ষা করুন।