চুয়াডাঙ্গা বুধবার , ১১ জানুয়ারি ২০২৩
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মাঠে থাকবে আওয়ামী লীগ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জানুয়ারি ১১, ২০২৩ ৭:৫৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

সমীকরণ প্রতিবেদন:
সরকারের বিরুদ্ধে বিএনপি’র ডাকা কর্মসূচি ঘিরে ব্যাপক তৎপর থাকবে আওয়ামী লীগ। আজ গণঅবস্থান কর্মসূচি দিয়েছে রাজপথের বিরোধী দল। এর পাল্টা কোনো কর্মসূচি না দিলেও বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে রাজধানীতে কর্মসূচি পালন করবেন আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা। রাজধানীর প্রতিটি মোড়ে মোড়ে দলীয় কর্মীদের উপস্থিত থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। পাশাপাশি নিজ নিজ এলাকার অলিগলিতে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের সারাদিন মহড়া দিতে বলা হয়েছে। সরকারের পদত্যাগ, সংসদ বাতিল, নির্দলীয় নিরপেক্ষ তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনে নির্বাচনসহ ১০ দফা দাবিতে আজ দেশব্যাপী গণঅবস্থান কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে বিএনপি। বেলা ১১টা থেকে ৩টা পর্যন্ত টানা চার ঘণ্টা গণঅবস্থান কর্মসূচি পালন করা হবে। বিএনপি’র এ কর্মসূচিকে গুরুত্ব সহকারে নিয়েছে আওয়ামী লীগ। দলটির সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের বলেন, ১০ই ডিসেম্বর তো গেল, আওয়ামী লীগ কী মোকাবিলা করেনি? আজকে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ অতীতের যে কোনো সময়ের চেয়ে অনেক বেশি ঐক্যবদ্ধ, অনেক বেশি শক্তিশালী। আমরা যেকোনো ধরনের ষড়যন্ত্র, যেকোনো ধরনের আন্দোলনের নামে সহিংসতার সমুচিত জবাব দিতে প্রস্তুত। এদিকে গতকাল প্রথমে বিএনপি’র কর্মসূচির পাল্টা কর্মসূচির ঘোষণা দেয় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ।
তাতে বলা হয়- সন্ত্রাস ও নৈরাজ্যের প্রতিবাদে বঙ্গবন্ধু এভিনিউয়ের সামনে সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত অবস্থান কর্মসূচি ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এই কর্মসূচি ঘোষণার কিছুক্ষণ পরই সংশোধিত কর্মসূচি ঘোষণা করে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগ। তাতে বলা হয়- সর্বকালের সর্বশ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি থাকবেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। সভাপতিত্ব করবেন আবু আহমেদ মন্নাফী। এতে সময় দেয়া হয় সকাল সাড়ে দশটা। বিএনপি’র কর্মসূচিতে টার্গেট করে কর্মসূচি পালন করবে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগ। তাদের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে- বিএনপি জামায়াতের নৈরাজ্যের প্রতিবাদে রাজধানীর মিরপুরে শান্তি সমাবেশের আয়োজন করা হয়েছে। এতেও প্রধান অতিথি হিসেবে থাকবেন ওবায়দুল কাদের। অন্যদিকে যুবলীগের পক্ষ থেকেও রাজধানীতে বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের উদ্যোগ নেয়া হয়েছে।
মহানগর উত্তর যুবলীগের উদ্যোগে বেলা ১১টায় ফার্মগেট ও ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের উদ্যোগে কেন্দ্রীয় শহীদ মিনারে বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন উপলক্ষে সমাবেশের ডাক দেয়া হয়েছে। এসব সমাবেশে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য জাহাঙ্গীর কবির নানক, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক আ ফ ম বাহাউদ্দিন নাছিম, সাংগঠনিক সম্পাদক মির্জা আজম, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, যুবলীগের সভাপতি শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল। এছাড়া বিভিন্ন কর্মসূচি পালনের ঘোষণা দিয়েছে ছাত্রলীগ। ঐক্যবদ্ধ ছাত্র সমাজের অবস্থান কর্মসূচি নামে ছাত্রলীগের ওই কর্মসূচি পালন করা হবে শাহবাগে। এজন্য সময় নির্ধারণ করা হয়েছে সকাল ১১টা থেকে বিকাল ৩টা পর্যন্ত। ছাত্রলীগ জানিয়েছে- বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী ষড়যন্ত্র, অগ্নি সন্ত্রাসের প্রচেষ্টা ও সংবিধানবিরোধী অপতৎপরতার বিরুদ্ধে ওই কর্মসূচি পালন করা হবে। বিএনপি’র কর্মসূচি প্রসঙ্গে যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, যুবলীগের প্রত্যেকটি নেতাকর্মী বিএনপি-জামায়াতের ‘দেশবিরোধী নৈরাজ্য’ ও সব কর্মকাণ্ডের জবাব দিতে প্রস্তুত রয়েছে।
তিনি বলেন, বিএনপি-জামায়াত সবসময় দেশকে নিয়ে ষড়যন্ত্র করেছে। তারা কখনো সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়ায়নি। বিএনপি-জামায়াতের সব ষড়যন্ত্রের বিষয়ে সজাগ থাকতে হবে। যদি ১১ই জানুয়ারি কর্মসূচির নামে স্বাভাবিক পরিস্থিতি নষ্ট করতে চায়, তাহলে যুবলীগের প্রত্যেকটি নেতাকর্মী বিএনপি-জামায়াতের দেশবিরোধী কর্মকাণ্ডের জবাব দিতে প্রস্তুত। তিনি বলেন, আগামী নির্বাচনে বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নৌকা মার্কায় ভোট দিয়ে জয়যুক্ত করতে হবে। সেই লক্ষ্যে কাজ করবে যুবলীগের সর্বস্তরের নেতাকর্মী। এদিকে বিএনপি’র কর্মসূচি নিয়ে কড়া বক্তব্য দিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল। তিনি বলেন, পূর্ব ঘোষিত ‘গণঅবস্থান’ কর্মসূচিকে ঘিরে বিএনপি রাজধানীতে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি করলে তা সহ্য করা হবে না। তিনি বলেন, রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি’র কর্মসূচিতে সরকার কখনো বাধা দেয়নি। কিন্তু বিগত সব কর্মসূচিতে সহিংসতার ঘটনা ঘটেছে। আর গণঅবস্থানের নামে রাস্তা অবরোধ, ভাঙচুর বা ধ্বংসাত্মক কাজ করলে নিরাপত্তা বাহিনী তা প্রতিহত করবে।

 

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।