চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৩০ আগস্ট ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

মঙ্গলগ্রহের পরিবেশে বিজ্ঞানীদের এক বছর!

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ৩০, ২০১৬ ১০:৪৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

1472441725প্রযুক্তি ডেস্ক: মঙ্গলগ্রহের পরিবেশে সফলভাবে ১ বছর পার করল নাসার বিজ্ঞানীরা! শুনে অবাক হতে পারেন, কিন্তু বিষয়টি সত্যি। হাওয়াইতে মঙ্গলগ্রহে যাবার মহাকাশযান ও মঙ্গলগ্রহের পরিবেশ তৈরি করে বিজ্ঞানীদের এক বছর রাখা হয়েছিল। যা শেষ হয়েছে ২৯ আগস্ট। দীর্ঘ এক বছর বিচ্ছিন্ন থেকে সফলভাবে পরীক্ষাটি শেষ করেছেন ৬ সদস্যের একটি দল। হাওয়াই বিশ্ববিদ্যালয় নাসার অর্থায়নে এই দীর্ঘ মেয়াদী পরীক্ষাটি চালিয়েছে। রাশিয়ার ৫২০ দিন চালানো একটি গবেষণার পর এটিকেই সবচাইতে দীর্ঘমেয়াদী গবেষণা হিসেবে ধরা হচ্ছে যেখানে এক দল বিজ্ঞানীকে সম্পূর্ণ পৃথিবী থেকে আলাদা রাখা হয়েছে। ‘হাওয়াই স্পেস এক্সপ্লোরেশন অ্যানালগ অ্যান্ড সিমুলেশন’ নামের এই গবেষণা কার্যক্রমের প্রধান গবেষক কিম বিনিস্টেড বলেন, গবেষকেরা সমুদ্রের তীরে খোলা হাওয়া দেখার জন্য এবং ডোর্মের (তাদের জন্য তৈরি বিশেষ আবাস্থল) বাইরের খাবার খাওয়ার জন্য উন্মুখ হয়ে আছেন। ফ্রান্সের একজন জীববিজ্ঞানী, জার্মানির একজন পদার্থবিজ্ঞানী এবং চার জন আমেরিকানের মধ্যে একজন পাইলট, একজন আর্কিটেক্ট, একজন সাংবাদিক ও একজন মৃত্তিকা বিজ্ঞানীর সমন্বয়ে এই দলটি গঠন করা হয়েছিল। মূলত মানুষের আচরণগত বৈশিষ্ট্য বিশ্লেষণের জন্য এই গবেষণা চালানো হয়। গবেষণা চলাকালীন সময় এই ছয়জন ব্যক্তিকে থাকতে হয়েছে ডোর্মের ভেতরে। যেভাবে নভোচারীরা মহাকাশযানে থাকা বা পৃথিবীর বাহিরে অন্যকোথাও অবতরণ করলে যেভাবে থাকবে, সেভাবে রাখা হয়েছিল তাদের। এ সময় ডোর্মের বাহিরে যেতে হলে তাদের ব্যবহার করতে হয়েছে স্পেস স্যুট। পুরো এক বছর তারা পাউডার করা পনির ও টুনা মাছ খেয়েছে। এ ছাড়াও সামান্য পরিমাণে অন্যান্য রসদ তাদের দিয়ে রাখা হয়েছিল ২০১৫ সালের ২৯ আগস্ট। এ সময় তাদের বাহিরের সঙ্গে সকল যোগাযোগ বন্ধ রাখা হয়েছিল। সেই সঙ্গে নিজেদের মধ্যেও যেন অন্তঃকোন্দল না হয় তা খেয়াল রাখতে হয়েছে। বিবিসি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।