চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ২২ মে ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভ্রাম্যমাণ আদালতে বর ও কাজীর জেল

সমীকরণ প্রতিবেদন
মে ২২, ২০২১ ১০:৪৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

চুয়াডাঙ্গায় গভীর রাতে বাল্যবিয়ের আয়োজন, ইউএনওর হানা
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার পিরোজখালী গ্রামে বাল্যবিয়ের অনুষ্ঠান পণ্ড করে দিয়েছেন ইউএনও মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান। এসময় বাল্যবিয়েতে অংশ নেওয়া ও বিয়ে পড়ানোর অপরাধে বর ও কাজিকে ভিন্ন মেয়াদে কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার দিকে এ অভিযান চালানো হয়। দণ্ডপ্রাপ্ত বর রকি আলী (২৩) সদর উপজেলার পিরোজখালী গ্রামের আইনাল হকের ছেলে ও কাজী জাহিদুল ইসলাম (৪২) একই গ্রামের মৃত রমজান আলীর ছেলে।
ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, পিরোজখালী গ্রামে গভীর রাতে বাল্যবিয়ের আয়োজন চলছে, এমন খবরের পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছান সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান। এসময় বাল্যবিয়ের সকল আয়োজন পণ্ড করে দেওয়া হয়। পরে সেখানে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বর রকি আলীকে ১ মাস ও কাজী জাহিদুল ইসলামকে তিন মাসের বিনাশ্রম কারাদণ্ডাদেশ দেওয়া হয়। তাঁদেরকে গতকাল রাতেই জেলাহাজতে পাঠানো হয়েছে।
ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক ও চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান জানান, নাবালক এক কিশোরীর সাথে পিরোজখালী গ্রামে বিয়ের আয়োজন করা হয়েছিল। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিয়ের সকল অনুষ্ঠান ভেঙে দেওয়া হয়। সেই সাথে বর ও কাজিকে কারাদণ্ডে দণ্ডিত করা হয়। বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন, ২০১৭ এর ৭ ধারায় তাঁদেরকে দণ্ডিত করা হয়। ভ্রাম্যমাণ আদালতের সহযোগিতায় ছিলেন পেশকার সোবহান আলী, আরমান আলী এবং সদর থানা পুলিশের এসআই নীতিশ কুমার।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।