চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৪ মার্চ ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভূমি কর্মকর্তাদের নতুন স্কেলে বেতন বন্ধের নির্দেশ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
মার্চ ৪, ২০২২ ১১:৫৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন:

এবার ধাক্কা খেল ভূমি প্রশাসন। দীর্ঘ ৯ বছরের জটিলতা দূর করে তহশিলদার ও সহকারী তহশিলদের বেতন স্কেল উন্নীত করে দেওয়া আদেশের কার্যকারিতা স্থগিত করেছে মহাহিসাব নিরীক্ষকের কার্যালয়। মানউন্নীত পদের বেতন পুননির্ধারিত স্কেলে কাউকে প্রদান না করতেও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। সব বিভাগীয় কার্যালয়ে এই নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক (ডিসি), উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কার্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীদের টানা আন্দোলনের দ্বিতীয় দিনে এ ধরনের পদক্ষেপ নেওয়া হলো। ফলে আন্দোলনে সম্ভবত এখন আরো একটি অংশ যুক্ত হতে যাচ্ছে। ঐ সব অফিসের কর্মচারীরাও বেতন বৈষম্য দূর করাসহ পদোন্নতি ও পদবি পরিবর্তনের দাবি করে আসছেন।

২০১৩ সাল থেকে তহশিলদার ও সহকারী তহশিলদাররা পদবি পরিবর্তন ও বেতন স্কেল উন্নীত করার দাবি করে আসছিলেন। প্রধানমন্ত্রীর সম্মতি ও সচিব কমিটির অনুমোদনক্রমে গত ২৩ ফেব্রুয়ারি ভূমি মন্ত্রণালয় থেকে তহশিলদারের পদকে ইউনিয়ন ভূমি সহকারী কর্মকর্তা এবং বেতন স্কেল ১৬ নম্বর থেকে ১১ নম্বরে উন্নীত করে। এ ছাড়া সহকারী তহশিলদারের নাম পরিবর্তন করে ইউনিয়ন ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা ও বেতন স্কেল ১৭ নম্বর থেকে ১২ নম্বরে উন্নীত করে। তবে ঐ আদেশে ২০২২ সালের ৩১ জানুয়ারির পূর্বের বেতনভাতা পুনর্র্নিধারিত স্কেলে পাবেন না বলে আদেশে উল্লেখ করে দেওয়া হয়। আন্দোলনের মধ্যেই ভূমি প্রশাসনের এই আদেশ নতুন পরিস্হিতি সৃষ্টির আশঙ্কা করছেন অনেকে। এই পদের ও বেতন স্কেল পরিবর্তন হলেও নিজেদের দাবি পূরণ না হওয়ায় আন্দোলনে নেমেছেন বিভাগীয় কমিশনার, জেলা প্রশাসক (ডিসি), উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) এবং উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) কার্যালয়ের তৃতীয় শ্রেণির কর্মচারীরা। এদিকে তৃতীয় দিনের মতো গতকালও এসব অফিসে কোনো কাজকর্মে যোগ দেননি তারা।

পদবি পরিবর্তন ও পদোন্নতিসহ বেতন স্কেল পরিবর্তনের দাবিতে কর্মচারীরা এই কর্মবিরতি পালন করছে। আগামী ২৪ মার্চ পর্যন্ত এই কর্মসূচি চলবে বলে সংগঠনের নেতারা আগেই জানিয়েছেন। এদিকে বুধবার বিকালে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব নবীরুল ইসলামের সঙ্গে কর্মচারী নেতারা বৈঠকে বসেন। তবে দাবি মানার আশ্বাস নাকচ করে দিয়ে কর্মচারীরা আন্দোলন অব্যাহত রেখেছেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।