চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ২৬ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভুয়া চিকিৎসক শ্রীঘরে, হাসপাতাল সিলগালা

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ২৬, ২০২২ ৭:৫১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

প্রতিবেদক, ডাকবাংলা: ঝিনাইদহে এক ভুয়া চিকিৎসকের দুই বছরের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। গতকাল সোমবার দুপুরে উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) শারমিন আক্তার সুমী দণ্ডাদেশ দেন। সেই সাথে অনুমোদন না থাকায় হাসপাতালটি সিলগালা করা হয়।

আদালত সূত্রে জানা যায়, সদর উপজেলার সাধুহাটি ইউনিয়নের সাধুহাটি বাজারে দীর্ঘদিন ধরে রাহেলা জেনারেল হাসপাতালটি অনুমোদন না নিয়ে মানুষের চিকিৎসা দিয়ে আসছিল হাসপাতালের মালিক সোহরাব হোসেন। তিনি নিজেকে এমবিবিএস চিকিৎসক হিসেবে দাবি করে সেবা দিচ্ছিল। বিষয়টি জানতে পেরে ঝিনাইদহ সদর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্মকর্তা ডা. মিথিলা ইসলাম নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট শারমিন আক্তার সুমী সেখানে অভিযান চালান। অভিযানে সোহরাব ভুয়া চিকিৎসক প্রমাণিত হওয়ায় তাঁকে দুই বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ড প্রদান করে আদালতের বিচারক। সেই সাথে হাসপাতালটি সিলগালা করা হয়।

এদিকে স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ভুয়া চিকিৎসক সোহরাব হোসেন তার হাসপাতালে হরিণাকুণ্ডু উপজেলার নারায়ণকান্দী ইউনিয়নের পুলতাডাঙ্গা গ্রামের ইয়াসুর মিয়ার মেয়ে আংগরী খাতুন মৌকে নার্স হিসেবে নিয়োগ দিয়েছিল প্রায় বছরখানেক পূর্বে। নিয়োগের পর থেকেই মৌএর সাথে পরকীয়ায় আসক্ত হয়ে পড়ে ডা. সোহরাব হোসেন। সম্প্রতি গত রোববারে সোহরাব হোসেন নার্স মৌএর বিষয়টি লোকমুখে মুখরোচক হয়ে এলাকায় ভাসতে থাকলে নার্স মৌ ঘরের মধ্যে দরজা বন্ধ করে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে। অবশেষে ঘরের দরজা ভেঙে তাকে উদ্ধার করা হয়। পরে সালিশে প্রায় দেড় লাখ টাকায় বিষয়টি রফা হয়। মৌ বর্তমানে ঝিনাইদহের হরিণাকুণ্ডু উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি আছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।