ভিক্ষুকদের পূর্নবাসনের মধ্যেদিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে জীবননগরকে ভিক্ষুকমুক্ত ঘোষনা করলেন এমপি টগর

312

জীবননগর অফিস: ভিক্ষা নয়, কর্মই হোক আপনার পরিচয় এই প্রতিপাদ্যকে সামনে রেখে পর্যায়ক্রমে ১৪৩জন ভিক্ষুকদের মাঝে ২টি করে ছাগল, নগদ ৫শত টাকা ও ভিজিডি কার্ড বিতরণের মধ্যেদিয়ে চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর এমপি প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে জীবননগর উপজেলাকে আনুষ্ঠানিকভাবে ভিক্ষুকমুক্ত ঘোষনা করেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার বক্তব্যে বলেন, ভিক্ষা একটি ভাল কাজ নয়, যারা ভিক্ষা করে তাদেরকে সমাজে কেউ পছন্দ করে না, সম্মান করে না এমন কি যে সমস্থ ব্যক্তি ভিক্ষা করে তাদের সন্তানদের অনেক ধরনের কথা শুনতে হয়। ভিক্ষুক কথাটিই একেবারে একটি বাজে শব্দ। তিনি আরো বলেন, অতিতে যে সমস্থ সরকার বাংলাদেশে ক্ষমতায় এসেছে, তারা বেশির ভাগই বিদেশী সাহায্যের ওপর নির্ভর করতো। শুধু মাত্র বর্তমান সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সুযোগ্য কন্যা জননেন্ত্রী শেখ হাসিনা কোন দেশের কাছে সাহায্য না নিয়েই বাংলাদেশেকে একটি মধ্যে আয়ের দেশ হিসাবে গড়ে তোলার জন্য দেশের মানুষের কাছে যে প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন, তা তিনি বাস্তবে প্রমান করেই ছাড়বেন। শুধু তাই নয় তিনি বাংলাদেশকে একটি ক্ষুধামুক্ত দেশ হিসাবে গড়ে তোলার জন্য যে প্রতিশ্রুত দিয়েছিলেন তারই বাস্তব রুপ এ দেশের মানুষকে দেখিয়ে দিয়েছেন, আজ দেশে খাদ্যের কোন ঘাটতি নেই, সারের জন্য চাষীদের আর ভোগান্তি পেতে হচ্ছে না সাধারন মানুষের গোরদোড়ায় আজ সব কিছু পৌছে দিচ্ছে সরকার। বর্তমান সরকার বাংলাদেশ থেকে ভিক্ষুকমুক্ত ঘোষনা করার যে ঘোষনা দিয়েছিলেন তা আজ বাস্তব রুপ দেশের মানুষ প্রমান পেয়েছে প্রতিটি ভিক্ষুককে তাদের ঘর তৈরি, তাদের কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা, ভিজিডি কার্ড সহ নানা ধরনের উপকরণ দিয়ে  তাদের পাশে দাড়িয়েছেন যাতে করে বাংলাদেশ থেকে ভিক্ষুকমুক্ত হয়। এ জন্য তিনি প্রতিনিয়ত কাজ করে যাচ্ছেন। এ সময় তিনি উপস্থিত সকল সুধী সমাজকে আহবান করেন যে আপনারা ভিক্ষা না দিয়ে তাদের একটি কাজের ব্যবস্থা করে দিবেন এবং সকলে আজ থেকে ভিক্ষাকে না বলবেন। গতকাল বৃহস্পতিবার বিকাল ৪টার সময় জীবননগর উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে উপজেলা নির্বাহী অফিসার নুরুল হাফিজের সভাপতিত্বে জীবননগর উপজেলা চক্তরে জীবননগর পৌরসভায় ১৫জন, আন্দুলবাড়িয়া ইউনিয়নে ২৪জন এবং সীমান্ত ইউনিয়নের ২০জন এভাবে পর্যায়ক্রমে অনান্য ইউনিয়নে ৮৪জন ভিক্ষুকদের মাঝে ২টি ছাগল, নগদ অর্থ সহ বিভিন্ন উপকরণ বিতরণের মধ্যেদিয়ে প্রধান অতিথি চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের মাননীয় সংসদ সদস্য হাজী আলী আজগার টগর এমপি। জীবননগর উপজেলাকে ভিক্ষুকমুক্ত ঘোষনা করেন। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আবু.মো.আ.লতিফ অমল, জীবননগর পৌরসভার মেয়র জাহাঙ্গীর আলম, উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েশা সুলতানা লাকী, জীবননগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক উপজেলা চেয়ারম্যান গোলাম মোর্তূজা, সীমান্ত ইউপি চেয়ারম্যান ময়েন উদ্দিন মঈন, আন্দুলবাড়িয়া ইউপি চেয়ারম্যান শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার।  এছাড়াও অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন দর্শনা পৌর আওয়ামীলীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা শহিদুল ইসলাম, রায়পুর ইউপি চেয়ারম্যান তাহাজ্জদ মির্জা, হাসাদহ ইউপি চেয়ারম্যান সিরাজুল ইসলাম, উথলী ইউনিয়ন পরিষদের (ভারপ্রাপ্ত) চেয়ারম্যান আ.হান্নান, চুয়াডাঙ্গা জেলা পরিষদের মহিলা সদস্য মিতা খাতুন, উথলী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক সোহরাব হোসেন খান, মহিলা নেন্ত্রী রেনুকা, সাজেদা, চামেলী, আসমাসহ জীবননগর থানা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক ওয়াসিম রাজা, জীবননগর ডিগ্রী কলেজ ছাত্রলীগের সভাপতি মেহেদী হাসান এবং আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, মহিলালীগ, ছাত্রলীগের বিভিন্ন ইউনিটের নেতাকর্মী, সাংবাদিক ও সুধী মহল উপস্থিত ছিলো। উক্ত অনুষ্ঠানটি উপস্থাপনা করেন সিএ ইসমাইল হোসেন।