ভাড়া খাটতে এসে কোটচাঁদপুরে দেশীয় অস্ত্রসহ ১১জন গ্রেফতার

314

কোটচাঁদপুর (ঝিনাইদহ) প্রতিনিধি: ভাড়া খাটতে এসে ঝিনাইদহের কোটচাঁদপুর উপজেলা থেকে ৫টি দেশীয় অস্ত্র, ২টি মাইক্রোবাসসহ ১১ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এছাড়া অন্য ঘটনায় পুলিশ দুই জামায়াত কর্মীকে আটক করেছে। গ্রেফতারকৃতরা হলেন কালীগঞ্জ উপজেলার একতারপুর গ্রামের আসলাম হোসেন, আরমান হোসেন, চাপালি গ্রামের ইনজামুল হক মাসুক, দুর্গাপুর গ্রামের আকরাম হোসেন, ভাটপাড়া গ্রামের আবু তালেব, আরিফ হোসেন, সুন্দপুর গ্রামের রিয়ান, ছোট ভাটপাড়া গ্রামের মাহমুদ আল মামুন, শ্রীরামপুর গ্রামের ইমরান হোসেন, কাশিপুর গ্রামের নাজমুল হোসেন ও বলিদাপাড়া গ্রামের রিয়াজ উদ্দিন। পুলিশ ভাড়ায় সন্ত্রাসী কর্মকান্ড চালাতে আসা ব্যক্তিদের কাছ থেকে ২টি ছুড়ি, ১টি হাসুয়া, ১টা রামদা ও ১টি চাইনিজ কুড়াল উদ্ধার করে। অপরদিকে একই রাতে নাশকতা মামলার আসামী দুই জামায়াত কর্মী কোটচাঁদপুর উপজেলার কাঠালিয়া গ্রামের আবুল কাসেমের ছেলে জিল্লুর রহমান মন্ডল ও তার ভাই জামায়াত কর্মী লিটন মন্ডলকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ঘটনার বিবরণে জানা যায়, বন্ধুর প্রেমের বদলা নিতে এসে ১১বন্ধু পুলিশের খাচায় বন্দি হয়েছে। ভুক্তভোগী ইউ,পি সদস্য নাসির উদ্দিন বলেন, গেল শনিবার কোটচাঁদপুরের জালালপুর গ্রামের রশিদ মেম্বরের ছেলে আলমগীর হোসেন তাঁর বন্ধুদের নিয়ে ওই গ্রামের জনৈক্য ব্যক্তির মেয়েকে মাইক্রোবাসে করে তুলে নিতে আসে। বিষয়টি জানতে পেরে আমি ঘটনাস্থলে গিয়ে ওই মেয়েকে তাদের  কবল থেকে উদ্ধার করি। পরে ওই ছেলে কে চড়-থাপ্পড় মেরে ছেড়ে দিই। এঘটনার জের ধরে তারা বুধবার সশস্ত্র অবস্থায় ২০/২৫ জন আমার উপর হামলা চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ তাদেরকে ঘটনাস্থল থেকে আটক করে। বাকিরা পালিয়ে যায়। তারা দুইটি মটরসাইকেল, দুইটি মাইক্রো বাসে এসে এহামলা চালায়। কোটচাঁদপুর থানার ওসি (তদন্ত) জয়নাল আবেদীন সরকার জানান, বুধবার কালিগঞ্জ থেকে কিছু দুর্বৃত্ত দেশীয় অস্ত্রে সজ্জিত হয়ে কোটচাঁদপুরের জালালপুর গ্রামের ইউপি সদস্য নাসিরের উপর হামলা চালায়। খবর পেয়ে পুলিশ তাদেরকে জালালপুর বাজার থেকে আটক করে। এসময় তাদের কাছ থেকে ১টা ছুরি, ১টি রাম দা, ১চাইনিজ কুড়াল, ২টি হকস্টিক, ২টি মাইক্রোবাস উদ্ধার করা হয়েছে। আটককৃতদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের পূর্বক গতকালই আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।  কোটচাঁদপুর থানার ভারপ্রাপ্ত ওসি (তদন্ত) জয়নাল আবেদীন সরকার জানান কোটচাঁদপুর উপজেলার জালালপুর গ্রামের এক মেয়েকে অপহরনের বাঁধা দেওয়ায় দুটি মাইক্রোবাসে করে সন্ত্রাসীরা উপজেলা সেচ্ছাসেবকলীগের যুগ্ম আহাবায়ক ও ৩ নং ওয়ার্ডের সদস্য নাসির উদ্দিনকে মারার জন্য আসছিলো। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কোটচাঁদপুর থানা পুলিশ ঘটনাস্থল উপস্থিত হয়ে দেশি অস্ত্রসহ ১১ জনকে আটক করে।