চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ১৯ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ভারতে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ভোট গ্রহণ শেষ, এগিয়ে দ্রৌপদী

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ১৯, ২০২২ ৯:২৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: ভারতে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের ভোটগ্রহণ শেষ হয়েছে। স্থানীয় সময় সোমবার সকালে দক্ষিণ এশিয়ার এই দেশটির ১৫তম রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের প্রক্রিয়া শুরু হয়। নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন দেশটির বিরোধী দলগুলোর প্রার্থী যশবন্ত সিনহা এবং এনডিএ প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মু। মূলত ভারতের পরবর্তী রাষ্ট্রপতিকে বেছে নিতে দেশটির প্রায় চার হাজার ৮০০ জন এমপি ও বিধায়ক ভোট দিয়েছেন। সংবাদসূত্র : এনডিটিভি

দ্রৌপদী মুর্মু ভারতের ক্ষমতাসীন দল ভারতীয় জনতা পার্টির (বিজেপি) মনোনীত প্রার্থী। বিজেপি নেতৃত্বের হিসাব অনুযায়ী, দ্রৌপদী মোট ভোটের অন্তত ৬২ শতাংশ ভোট পেয়ে জয়লাভের মাধ্যমে ভারতের ১৫তম রাষ্ট্রপতি হিসেবে নির্বাচিত হতে যাচ্ছেন। অন্যদিকে, বিরোধী দলগুলোর মনোনীত রাষ্ট্রপতি পদপ্রার্থী যশবন্ত সিনহা প্রায় প্রতিদিনই নির্বাচনের প্রচারে নিজের প্রচারণা চালিয়েছেন। পশ্চিমবঙ্গের ক্ষমতাসীন তৃণমূল কংগ্রেস জানিয়েছে, যশবন্ত সিনহা যেন বিরোধীদের পুরো ভোটটিই পান, তার ব্যবস্থা করেছে তারা। রাষ্ট্রপতি নির্বাচনের এক দিন আগে এনডিএ প্রার্থী দ্রৌপদী মুর্মু বলেন, তিনি প্রার্থী হওয়ায় দেশের আদিবাসী ও নারীরা আনন্দিত। রোববার দিলিস্নতে এনডিএ এমপিদের সামনে হাজির হয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে তাদের সমর্থন চেয়ে দ্রৌপদী বলেন, ‘আমাকে প্রার্থী করায় আদিবাসী ও নারীদের মধ্যে আনন্দ ছড়িয়ে পড়েছে। দেশে ১০ কোটি আদিবাসী রয়েছেন। আদিবাসীদের মধ্যে সাত শতাধিক সম্প্রদায় রয়েছে। সবাই আমার মনোনয়নে আনন্দিত।’ বিজেপি মনে করছে, দুই-তৃতীয়াংশ ভোট পেয়ে দ্রৌপদী ভারতের প্রথম আদিবাসী নারী হিসেবে পঞ্চদশ রাষ্ট্রপতি পদে শপথ নেবেন। গত রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে রামনাথ কোবিন্দ ৬৫.৬৫ শতাংশ ভোট পেয়ে জিতেছিলেন।

এবার ১০ লাখ ৮৬ হাজার ৪৩১ ভোটের মধ্যে দ্রৌপদী মুর্মু ছয় লাখ ৬৭ হাজারের বেশি ভোট পাবেন বলে বিজেপির ধারণা। কারণ বিজেপি তথা এনডিএর বাইরেও বিজেডি, ওয়াইএসআর কংগ্রেস, বিএসপি, তেলুগু দেশম, জেডিএস, আকালি দল, শিবসেনা, জেএমএম দ্রৌপদী মুর্মুকে সমর্থন করেছে। এর বাইরে অন্য দলের অনেকে তাকে ভোট দিতে পারেন। নির্বাচনে জেতার জন্য কোনো প্রার্থীকে পাঁচ লাখ ৪৩ হাজার ২১৬ ভোট পেতে হবে। সোমবার ভোটগ্রহণ শেষ হওয়ার পর আগামী ২১ জুলাই ফল ঘোষণা করা হবে। এরপর ২৫ জুলাই শপথ গ্রহণ করবেন নতুন রাষ্ট্রপতি। এরপর আগামী ৬ আগস্ট হবে উপ-রাষ্ট্রপতি নির্বাচন। উল্লেখ্য, ভারতে রাষ্ট্রপতি নির্বাচনে ইভিএম ব্যবহার করা হয় না। সংসদ সদস্য, বিধায়কদের ব্যালটে ভোট দিতে হয়। জানাতে হয় প্রথম এবং দ্বিতীয় পছন্দও। বেগুনি রঙের কলম দিয়ে ভোট দিতে হয় এমপি, বিধায়কদের। তবে এমপিদের জন্য ছিল সবুজ রঙের ব্যালট পেপার, বিধায়কদের জন্য গোলাপি রঙের।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।