বৈদ্যুতিক জটিলতায় আটকে আছে ‘আইসিইউ সেবা’

26

নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ছয় শয্যার আইসিইউ স্থাপনের কাজ এখনো সম্পন্ন হয়নি। গতকাল শনিবার থেকেই আইসিইউতে রোগীদের সেবা দেওয়ার কথা থাকলেও বৈদ্যুতিক জটিলতার কারণে তা স্থগিত রয়েছে। তবে বৈদ্যুতিক জটিলতার সমাধান হলেই দুই থেকে তিন-দিনের মধ্যে আইসিইউ ইউনিটে রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া শুরু হবে বলে জানিয়েছেন সাজেদা ফাউন্ডেশনের করোনা ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. নাফিজ উল্লাহ সানি।
জানা যায়, গত সোমবার (২৬ জুলাই) আইসিইউ সরঞ্জামসহ প্রয়োজনীয় বিভিন্ন চিকিৎসা-সামগ্রী নিয়ে চিকিৎসক, নার্সসহ ৪৪ জনের জনবল সদর হাসপাতালে পৌঁছায় সাজেদা ফাইন্ডেশনের একটি দল। সেদিন (সোমবার) থেকেই সদর হাসপাতালের কোভিড ইউনিটের চতুর্থ তলায় আইসিইউ স্থাপন কার্যক্রম শুরু করেন তাঁরা। গতকাল শনিবার থেকেই আইসিইউ ইউনিটে রোগী সেবা দেওয়ার কথা থাকলেও বৈদ্যুতিক জটিলতায় তা পিছিয়েছে আরও কয়েক দিন।
এবিষয়ে জানতে চাইলে সাজেদা ফাউন্ডেশনের করোনা ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. নাফিজ উল্লাহ সানি বলেন, ‘গত সোমবার থেকে আমরা চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ছয় শয্যার আইসিইউ স্থাপন কাজ শুরু করি। আমাদের কাজের অধিকাংশই সম্পন্ন হয়েছে। তবে আইসিইউ বিভাগে যে প্রক্রিয়ায় ও যেভাবে বিদ্যুৎ সরবরাহ প্রয়োজন, তা না থাকায় জটিলতা সৃষ্টি হয়েছে। এর সমাধানে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে গণপূর্ত বিভাগকে জানানো হয়েছে। আগামীকাল রোববার (আজ) প্রয়োজনীয় বৈদ্যুতিক সরবরাহ পাব বলে আশা করছি। বৈদ্যুতিক সরবরাহ পেলে দুই থেকে তিন দিনের মধ্যে আইসিইউ সেটআপ সম্পন্ন করে আমরা রোগীদের চিকিৎসা কার্যক্রম শুরু করতে পারব। আমাদের যে সংখ্যক চিকিৎসক, নার্স চুয়াডাঙ্গাতে আছেন, তাঁরা সকলেই শিফ্ট করে করোনা ইউনিটে কাজ করছেন।