চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ৫ সেপ্টেম্বর ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বেগম জিয়ার নেতৃত্বে জনগণের সহযোগিতায় গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করা হবে

সমীকরণ প্রতিবেদন
সেপ্টেম্বর ৫, ২০১৭ ৭:১৯ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

মেহেরপুরের গাংনী ও ঝিনাইদহে বিএনপির ৩৯তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী পালিত : চুয়াডাঙ্গার আয়োজনে শরীফুজ্জামান

সমীকরণ ডেস্ক: বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র ৩৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী উপলক্ষে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছে বিএনপি। ১ সেপ্টেম্বর শুক্রবার কেক কাটা, র‌্যালী ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করে চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি। এছাড়া, মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা বিএনপি, ঝিনাইদহ জেলা বিএনপি, মহেশপুর ও কালীগঞ্জ উপজেলায় বিভিন্ন কর্মসুচী পালন করে বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নের্তৃবৃন্দরা।
আমাদের শহর প্রতিনিধি জানিয়েছেন, কেক কাটা, র‌্যালী ও আলোচনা সভাসহ বিভিন্ন কর্মসূচীর মধ্য দিয়ে বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দল বিএনপি’র ৩৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালন করেছে চুয়াডাঙ্গা জেলা বিএনপি। গত শুক্রবার রাত ১২টা ১ মিনিটে কেক কেটে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর কর্মসূচীর উদ্বোধন করেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির সদস্য সাবেক ছাত্রনেতা শরীফুজ্জামান শরীফ। ১লা সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী দলের প্রতিষ্ঠার ৩৯ বছর উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৬টায় স্থানীয় সাহিত্য পরিষদ চত্ত্বরে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। এ সময় জেলা বিএনপি, যুবদল, সেচ্ছাসেবক দল, ছাত্রদল, শ্রমিকদলসহ ভ্রাতৃপ্রতীম সংগঠনের নের্তৃবৃন্দ মিছিল সহকারে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর অনুষ্ঠানে দলে দলে যোগ দেয়। মুহুর্মুহু স্লোগানে সাহিত্য পরিষদ চত্বর মুখরিত হয়ে ওঠে। তবে পুলিশি বাঁধার কারণে প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীর র‌্যালীটি সাহিত্য পরিষদ থেকে বের হতে পারেনি। পরে সেখানে এক আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় জেলা বিএনপি’র আহ্বায়ক কমিটির সদস্য পৌর কাউন্সিলর সিরাজুল ইসলাম মনির সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন জেলা বিএনপির আহ্বায়ক কমিটির অন্যতম সদস্য সাবেক ছাত্রনেতা শরীফুজ্জামান শরীফ।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে শরীফুজ্জামান শরীফ বলেন, একদলীয় শাসন বাকশাল কায়েমের পরে দেশে যে রাজনৈতিক শূন্যতা তৈরী হয়েছিল, সেটি পূরণ করতে জিয়াউর রহমান বিএনপি প্রতিষ্ঠা করেছেন। তিনি বলেন, বর্তমানে দেশে গণতন্ত্র সম্পূর্ণ অনুপস্থিত। স্বৈরাচারী শাসকেরা একদিকে জনগণের অধিকার হরণ করছে, অন্যদিকে নির্যাতনের স্টীম রোলার চালিয়ে বিএনপিকে নির্মূল করে দিতে চায়। কিন্তু বিএনপি জনগণের দল, এই দলকে নির্মূল বা পরাজিত করা যাবে না। প্রতিবারই বিভিন্ন বাধা উপেক্ষা করে প্রতিকূল অবস্থার মধ্য দিয়ে ঘুরে দাঁড়িয়েছে। এবারো ইনশাল্লাহ দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার নেতৃত্বে জনগণের সক্রিয় সহযোগিতায় আমরা অবশ্যই গণতন্ত্র পুনরুদ্ধার করতে সক্ষম হবো। ৩৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকীতে এটাই আমাদের শপথ।
চুয়াডাঙ্গা জেলা জাসাসের সাধারণ সম্পাদক সেলিমুল হাবিব সেলিমের প্রানবন্ত সঞ্চালনায় আরো বক্তব্য রাখেন সদর থানা বিএনপি’র সিনিয়র সহ সভাপতি নজরুল ইসলাম, পৌর বিএনপির সিনিয়র সভাপতি রাফিতুল্লাহ মহলদার, থানা বিএনপি প্রচার সম্পাদক মুন্সি আলাউদ্দিন, পৌর বিএনপি সাংগঠনিক সম্পাদক শফিকুল ইসলাম পিটু, পৌর বিএনপি যুগ্ম সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ, পৌর বিএনপি প্রচার সম্পাদক ইয়াছিন হাসান কাকন, আলমডাঙ্গা উপজেলা বিএনপি’র সহ সভাপতি তবারক হোসেন, গাংনী ইউনিয়ন বিএনপি’র সভাপতি রেজাউর রহমান রেজু, সাবেক ছাত্রনেতা হাবিবুর রহমান সাদিদ, জেলা যুবদলের যুগ্ম আহ্বায়ক মোকাররম হোসেন, সদস্য আসাদুল হক বটুল, জেলা যুবদলের নেতা মনিরুজ্জামান লিপটন, কুদ্দুস মহলদার, হাফিজুল ইসলাম মুক্ত, আব্দুল হান্নান, আব্দুস সালাম, সুমন পারভেজ খান, মাসুদ রানা আপেল, ইমরুল হাসান ফটিক, এরসাদ আলী, জামাল, মেহেবুব, সালাম, বকুল, তুহিন আহম্মেদ, আব্দুস সালাম, জেলা তরুন দলের আহ্বায়ক মাবুদ সরকার, জেলা ছাত্রদলের নেতা শাকিল আহমেদ নাঈম, রিন্টু মহলদার, শাহাবুদ্দিন, অনিক আহমেদ, আসাদুল হক, পিয়াস, মান্না দেওয়ান, জুয়েল প্রমুখ।
অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন, মহান স্বাধীনতার ঘোষক শহিদ জিয়াউর রহমান বাংলাদেশের মানুষের বাক স্বাধীনতা ও গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়েছেন। শহীদ জিয়া ছিলেন বহু দলীয় গণতন্ত্রের প্রবর্তক, শহিদ জিয়ার জন্ম না হলে বাংলাদেশে গণতন্ত্র আসত না। তাই এই গণতন্ত্রকে ফিরে পেতে আওয়ামী দুঃশাসন রুখতে দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়ার হাতকে শক্তিশালী করে সকলকে একসাথে কাজ করতে হবে। সামরিক বাহিনী থেকে রাষ্ট্র ক্ষমতায় এসে জিয়াউর রহমান ১৯৭৮ সালের ১ সেপ্টেম্বর জাতীয়তাবাদী দলের সংগঠনটি গড়ে তোলেন।
গাংনী অফিস জানিয়েছে, বাংলাদেশ জাতীয়তাবাদী দলের (বিএনপি) ৩৯ তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালনে মেহেরপুরের গাংনী উপজেলা বিএনপি বিভিন্ন কর্মসুচী পালন করছে। সকালে উপজেলা বিএনপি কার্যালয়ে সামনে পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসুচী শুরু হয়। সকাল সাড়ে দশটায় দলীয় কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্ততৃায় বিএনপির ইতিহাস ও আগামি আন্দোলনের দিক নির্দেশনা প্রদান করেন জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ও সাবেক এমপি আমজাদ হোসেন।
বক্তব্যে তিনি বলেন, আগামি জাতীয় সংসদ নির্বাচন ও সরকার বিরোধী আন্দোলনের জন্য সকলকে প্রস্তুত হতে হবে। তৃণমূল পর্যায় থেকে সংগঠনকে আরো গতিশীল করে রুখে দিতে হবে বর্তমান দুঃশাসন। মামলা হামলা করে জাতীয়তাবাদী চেতনা মুছে দেয়া যাবে না উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রবক্তা শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান একটি সুখি সম্মৃদ্ধশীল দেশ গড়ার স্বপ্ন নিয়ে নেতৃত্ব দিয়েছেন। তাই কিন্তু গণতন্ত্রকে গলাটিপে হত্যা করা হচ্ছে। জাতীয়তাবাদী শক্তির সবাইকে ঐক্যদ্ধ হয়ে বেগম জিয়া নির্দেশিত আগামি আন্দোলন কর্মসুচী সফল করতে নেতাকর্মীদের প্রতি আহবান জানান তিনি।
অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন গাংনী উপজেলা বিএনপি সভাপতি রেজাউল হক, সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান বাবলু, পৌর বিএনপি সাধারণ সম্পাদক মকবুল হোসেন মেঘলা, জেলা মহিলা দলের সভাপতি গাংনী উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান লায়লা আরজুমান বানু, উপজেলা যুবদল সভাপতি আক্তারুজ্জামান, জেলা ছাত্রদল সাধারণ সম্পাদক আব্দাল হক, ষোলটাকা ইউপি বিএনপি সাধারণ সম্পাদক কামরুল ইসলামসহ বিএনপি ও অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।
ঝিনাইদহ অফিস জানিয়েছে, ঝিনাইদহে নানা কর্মসুচির মধ্য দিয়ে বিএনপির ৩৯তম প্রতিষ্ঠা বার্ষিকী পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে আলোচনা সভা ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে জেলা বিএনপি। সকালে দলীয় কার্যালয়ে জাতীয় ও দলীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে কর্মসুচি শুরু হয়। দুপুরে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আব্দুল মালেকের সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন জেলা বিএনপির সভাপতি ও চেয়ারপার্সনের উপদেষ্টা মো. মসিউর রহমান। আলোচনা সভায় অন্যান্যের মধ্যে এড. এসএম মশিয়ার রহমান, আব্দুল মজিদ বিশ্বাস, জাহিদুজ্জামান মনা, জাহিদুল ইসলাম ও আনোয়ারুল ইসলাম বাদশা প্রমুখ বক্তব্য রাখেন। মসিউর রহমান তার বক্তৃতায় বলেন, হাসিনা সরকারের পতন শুরু হয়ে গেছে। চারিদিকে কেবল মসনদ ভাঙ্গার রব উঠেছে। তিনি হুসিয়ার উচ্চারণ করে বলেন, আওয়ামী লীগ নেতারা যতই হাকডাক মারুক, নিরপেক্ষ সরকার ছাড়া দেশে কোন নির্বাচন হবে না। এদিকে ঝিনাইদহের মহেশপুর উপজেলায় দিবসটি পালনে বিস্তারিত কর্মসুচি গ্রহন করা হয়। সাবেক এমপি শহিদুল ইসলাম মাস্টারের ছেলে মেহেদী হাসান রণি ও প্রকৌশলী মোমিনুর রহমান পৃথক ভাবে কর্মসুচি পালন করেন। এদিকে কালীগঞ্জ উপজেলায় সাবেক প্যানেল মেয়র বিএনপি নেতা হামিদুল ইসলামের নেতৃত্বে এক আলোচনা সভার আয়োজন করা হয় বলে এক প্রেসবিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।