বীমা মানুষের সম্পত্তির ক্ষয়-ক্ষতিতে নিরাপত্তা দেয়

199

চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহে জাতীয় বীমা দিবস পালন, আলোচনা সভায় বক্তারা
সমীকরণ প্রতিবেদন:
‘বীমা দিবসে শপথ করি উন্নত দেশ গড়ি’ স্লোগানে চুয়াডাঙ্গা, মেহেরপুর ও ঝিনাইদহে প্রথমবারের মতো জাতীয় বীমা দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল রোববার পৃথক আয়োজনে বর্ণ্যাঢ্য শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।
চুয়াডাঙ্গা:
‘বীমা দিবসে শপথ করি উন্নত দেশ গড়ি’ স্লোগানে চুয়াডাঙ্গায় প্রথম জাতীয় বীমা দিবস পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টায় শহরে বর্ণাঢ্য শোভাযাত্রা ও আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়। জেলা প্রশাসনের আয়োজনে চুয়াডাঙ্গা ডিসি সাহিত্য মঞ্চে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় সভাপতিত্ব করেন ভারপ্রাপ্ত জেলা প্রশাসক মনিরা পারভীন। তিনি বলেন, বীমা মানুষের সম্পত্তির ক্ষয়-ক্ষতিতে নিরাপত্তা দেয় এবং তহবিল সৃষ্টিতেও সহযোগিতা করে। আপনাদের খেয়াল রাখতে হবে যেন বীমা করে কোনো সাধারণ মানুষ ভোগান্তির শিকার না হয়। তাঁদের কষ্টে জমানো তহবিলটি যেন সঠিকভাবেই তাঁরা সময় মতো পাই।
আলোচনা সভায় জেলা প্রশাসনের সহকারী কমিশনার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আমজাদ হোসেন, সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজের অর্থনীতি বিভাগের প্রভাষক শাহিনুর রহমান, মহিলাবিষয়ক অধিদপ্তরের উপপরিচালক আব্দুল আওয়াল ও বীমা কোম্পানির আহ্বায়ক আবুল কালাম বক্তব্য দেন। বীমা দিবসে চুয়াডাঙ্গায় কর্মরত ১৫টি লাইফ ইন্স্যুরেন্স ও নন-লাইফ ইন্স্যুরেন্স কোম্পানির কর্মকর্তা-কর্মচারীরা অংশগ্রহণ করেন।
উল্লেখ্য, ১৯৫৮ সাল থেকে আইযুব খানের মার্শাল ল’ জারি হওয়ার কারণে দেশে রাজনীতি বন্ধ ছিল। বঙ্গবন্ধু আপাতমস্তক একজন রাজনীতিবিদ ছিলেন। তাঁর পক্ষে রাজনীতি না করে থাকা সম্ভব ছিল না। এ অবস্থায় তিনি আলফা ইন্স্যুরেন্সে যোগ দিয়ে চাকরির আবরণে রাজনীতি করতেন। গাজী গোলাম মোস্তফা, জহুর আহমেদ চৌধুরী ও মোহাম্মদ হানিফকে নিয়ে বঙ্গবন্ধু চট্টগ্রাম, খুলনা, সিলেট যেতেন। সেখানে বীমা কোম্পানির কাজে গেলেও তিনি লোকজনের সঙ্গে দেখা করে নানা ধরনের রাজনৈতিক দিকনির্দেশনা দিতেন।
আইডিআরএ সূত্র জানায়, পৃথিবীর অনেক দেশেই বীমার প্রতি মানুষের আগ্রহ বাড়ানোর জন্য একটি দিন, সপ্তাহ অথবা মাসকে বীমা সেবা দিবস, সপ্তাহ বা মাস হিসেবে পালন করা হয়। বাংলাদেশে কোনো বীমা দিবস না থাকলেও বীমা-নীতি ২০১৪ তে বীমা দিবস রাখার বিষয়টি স্থান পায়। পরে ২৬ জানুয়ারি আইডিআরএ যাত্রা শুরুর দিনটিকে বীমা দিবস হিসেবে ঘোষণার প্রাথমিক সিদ্ধান্ত হয়েছিল। কিন্তু সম্প্রতি বঙ্গবন্ধু স্মৃতি ট্রাস্ট ও বঙ্গবন্ধু স্মৃতি জাদুঘর থেকে নিশ্চিত করা হয়েছে যে, ১৯৬০ সালের ১ মার্চ বঙ্গবন্ধু তৎকালীন পাকিস্তানের আলফা ইন্স্যুরেন্স কোম্পানিতে যোগদান করেছিলেন। তাই এখন এই দিনটিকে জাতীয় বীমা দিবস হিসেবে ঘোষণা করা করেছে সরকার।
আলমডাঙ্গা:


আলমডাঙ্গা উপজেলা প্রশাসনের আয়োজনে জাতীয় বীমা দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল রোববার সকাল ১০টার দিকে উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে এসে শেষ হয়। পরে উপজেলা পরিষদের হলরুমে এক আলোচনা সভা ও পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. লিটন আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব আইয়ুব হোসেন। সভায় বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান অ্যাড. সালমুন আহম্মেদ ডন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান কাজী মারজাহান নিতু, আলমডাঙ্গা সরকারি কলেজের ভারপ্রাপ্ত অধ্যক্ষ কৃষিবিদ গোলাম সরোয়ার, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান খান ও ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম। আলমডাঙ্গা কলেজিয়েট স্কুলের অধ্যক্ষ শামিম রেজার উপস্থাপনায় সভায় উপস্থিত ছিলেন আল-ইকরা ক্যাডেট একাডেমির অধ্যক্ষ এনামুল হক, বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মনিরুজ্জামান, প্রেসক্লাবের সভাপতি খন্দকার শাহ আলম মণ্টু, সম্পাদক হামিদুল ইসলাম, বিআরডিবি কর্মকর্তা সায়লা সারমিন, তথ্য কর্মকর্তা স্নিদ্ধা দাস, বীর মুক্তিযোদ্ধা নুরুল হক, অ্যাড. কাজী স্নিগ্ধা হক, আব্দুর রশিদ প্রমুখ। অনুষ্ঠানে ফারইস্ট, ইনসিয়রপেন্স, সাবদেশ, ডেল্টা লাইফ, পপুলার লাইফ, সানলাইফসহ বিভিন্ন বীমা কোম্পানি অংশ নেয়।
জীবননগর:


‘বীমা দিবসে শপথ করি, উন্নত দেশ গড়ি’ এ প্রতিপাদ্যে বর্ণাঢ্য আয়োজনে জীবননগরে জাতীয় বীমা সপ্তাহ পালিত হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে গতকাল রোববার সকাল ১০টায় জীবননগর উপজেলা পরিষদ চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের হয়। এ র‌্যালিতে উপজেলার সব বীমা কোম্পানি অংশ নেয়। র‌্যালিটি শহরের প্রধান প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে একই স্থানে শেষ হয়। পরে উপজেলা পরিষদের হলরুমে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সিরাজুল ইসলামের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জীবননগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান হাজি হাফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি ছিলেন উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আ. সালাম ইশা, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আয়েসা সুলতানা লাকী, সমাজসেবা কর্মকর্তা মাসুদুর রহমান। এ ছাড়া সমবায় কর্মকর্তা মতেহার হোসেন, নারীনেত্রী রেনুকা আক্তার, চামেলী খাতুনসহ বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তা- কর্মচারীগণ উপস্থিত ছিলেন। আলোচনা শেষে বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের অংশগ্রহণে রচনা প্রতিযোগিতা অনুষ্ঠিত এবং বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানটি পরিচালনা করেন উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা কর্মকর্তা দ্বিনেশচন্দ্র পাল।
মেহেরপুর:


র‌্যালি, আলোচনা সভা ও চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণের মধ্য দিয়ে মেহেরপুরে ১ম জাতীয় বীমা দিবস পালন কর হয়েছে। গতকাল রোববার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের সম্মেলনকক্ষে এ উপলক্ষে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মো. তৌফিকুর রহমানের সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মো. আতাউল গনি। অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন সহকারী কমিশনার মিথিলা দাস ও জেসমিন আক্তার। পরে সেখানে চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয়। এদিকে, এর আগে ১ম জাতীয় বীমা দিবস উপলক্ষে সকাল সাড়ে ৯টার দিকে একটি র‌্যালি বের হয়। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক তৌফিকুর রহমানের নেতৃত্বে জেলা শিল্পকলা একাডেমির সামনে থেকে শুরু করে র‌্যালিটি শহরের প্রধান সড়ক অতিক্রম করে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় চত্বরে গিয়ে শেষ হয়। র‌্যালিতে অন্যদের মধ্যে স্থানীয় সরকার বিভাগের উপপরিচালক মৃধা মো. মুজাহিদুল ইসলাম, জীবন বীমা কর্পোরেশনের কর্মকর্তা আনোয়ারুল হকসহ বিভিন্ন বীমা কোম্পানির কর্মকর্তা-কর্মচারীগণ অংশগ্রহণ করেন।
ঝিনাইদহ:


‘বীমা দিবসে শপথ করি, উন্নত দেশ গড়ি’ এ স্লোগানে ঝিনাইদহে জাতীয় বীমা দিবস পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে গতকাল রোববার সকালে কালেক্টরেট চত্বর থেকে একটি র‌্যালি বের হয়। র‌্যালিটি শহরের বিভিন্ন সড়ক ঘুরে একই স্থানে এসে শেষ হয়। এতে সরকারি বিভিন্ন দপ্তরের কর্মকর্তাসহ বীমা অফিসের কর্মকর্তা ও গ্রাহকেরা অংশ নেন। পরে সেখানে এক সংক্ষিপ্ত আলোচনা সভায় জেলা প্রশাসক সরোজ কুমার নাথ, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মিলু মিয়া বিশ্বাস, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (রাজস্ব) সেলিম রেজাসহসহ অন্যরা বক্তব্য দেন। বক্তারা, উন্নত দেশ গড়তে ও জান-মালের নিরাপত্তায় সবাইকে বীমা করার আহ্বান জানান।