চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২০ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিয়ের প্রস্তাবকারীদের হৃদয় ভাঙার কিছু অদ্ভূত কারণ!

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ২০, ২০১৬ ১:২৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

marry

বিস্ময় ডেস্ক: প্রতিটা মানুষই তার নিজের বিয়ের প্রস্তাব দেওয়ার বা পাওয়ার ক্ষেত্রে সুন্দর একটি গল্প শুনতে পছন্দ করেন। বিষয়টা রূপকথার গল্পের মতো হলে যেন আরও ভালো হয়। অনেক চিন্তা-ভাবনা ও প্রস্তুতি নিয়ে ছেলেটি মেয়েটিকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। এরপর কি ঘটবে তা জানা নেই। কিন্তু ভালো কিছুই হবে এমনটাই চিন্তা করেন সবাই। তবে সব সময় যে ভাল কিছু হয় তা কিন্তু নয়, খারাপ কিছুও ঘটতে পারে। সোশাল প্লাটফর্ম ‘রেডি’তে একজন এই আলোচনাটা শুরু করেন। তিনি প্রশ্ন রাখেন, বিয়ের প্রস্তাব দিয়ে ব্যর্থ কেন হয়েছেন এবং এর পর কি ঘটেছে? এ প্রশ্নে সাড়া দেন ১১ হাজার মানুষ। সবাই জানিয়েছেন, এক হাঁটু মুড়ে বসে প্রস্তাব দেওয়ার সময় কি ঘটেছে। তবে অনেকেই নিষ্ঠুর জবাব দিয়েছেন। একজন লিখেছেন তার অভিজ্ঞতার কথা। তিনি বলেছেন, “একবার পার্ক দিয়ে হাঁটছিলাম। এক লোক এসে আমাকে বললেন তার ও সঙ্গিনীর একটা ছবি তুলে দিতে। লোকটি দ্রুত তার সঙ্গিনীর চোখের দিকে তাকালেন এবং হাঁটু মুড়ে বসে পড়লেন। বিনয়ী সুরে তার প্রস্তাব দিলেন। মেয়েটি কেঁদে ফেললেন এবং বললেন, ‘তোমার ভাইয়ের সঙ্গে শুয়েছি আমি।” আরেকজন লিখেছেন, “তিন বছর প্রেম করার পর প্রস্তাব করি আমি। এক বছর আমার সঙ্গে লিভ টুগেদার করার পর জবাব মিলল ‘না’। আমি তাকে আমার দাদির আঙটি পরাতে চেয়েছিলাম। একদিন রাতে মেয়েটি ফেরত আসল আর আমাকে বলল যে সে নাকি সমকামী।” অন্য আরেকজন লিখেছেন, “চার সপ্তাহ ডেটিংয়ের পর ছেলেটি আমার সামনে বসে পড়ল। বিশাল এক হীরার আঙটি নিয়ে বিয়ের প্রস্তাব দিল। অথচ আমি তাকে বেশিদিন হয়নি চিনেছি। আমি ‘না’ বলে দিলাম। পরে দিনের বাকি সময় সে আমার সঙ্গে কোনো কথা বলেনি। বাড়ি ফিরে আমি তাকে লিখলাম, আমি আর তোমার সঙ্গে দেখা করতে চাই না। তবে তোমাকে ভালোবাসি।” অন্য একজন লিখেছেন, “প্রেমিকা অফিস থেকে ফেরার পর তার প্রিয় খাবার টেবিলে রাখলাম। মোমের আলোয় তাকে প্রস্তাব দিলাম। কিন্তু সে একাধিকবার ‘না’ বলে দিল। মেডিক্যালে কাজ করে সে। তার গায়ে নোংরা লেগেছিল। গোসলের পর অবশ্য বলল ‘হ্যাঁ’।”

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।