চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২০ জানুয়ারি ২০২৩
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় পর্ব শুরু আজ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জানুয়ারি ২০, ২০২৩ ৯:০২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

সমীকরণ প্রাতবেদন:

চার দিন বিরতির পর আজ শুক্রবার দ্বিতীয় ধাপে শুরু হচ্ছে ৫৬তম বিশ্ব ইজতেমা। এ ধাপের আয়োজক বিশ্ব তাবলিগ জামাতের দিল্লির (ভারত) ‘নিজামুদ্দিন মারকাজ’। মাওলানা সাদ কান্দলভি অনুসারীরা তাদের কেন্দ্রীয় দফতর ‘নিজামুদ্দিন মারকাজ’ কেন্দ্রিক দাওয়াতি কার্যক্রম পরিচালনা করছেন। তাবলিগ জামাতে বিভক্তির পর বাংলাদেশের মাওলানা জোবায়েরপন্থী গ্রুপ বিশ্ব তাবলিগ জামাতের “আ’লমী শূরা” ও মাওলানা সাদ কান্দলভিপন্থী গ্রুপ বিশ্ব তাবলিগ জামাতের ‘নিজামুদ্দিন মারকাজ’ নামে আলাদা পরিচয়ে কার্যক্রম চালাচ্ছেন। যদিও সাধারণ সাথীরা তাবলিগ জামাতের শত বছরের ঐক্যবদ্ধ ঐতিহ্য ফিরিয়ে আনার পক্ষে। এর আগে গত রোববার আখেরি মুনাজাতের মাধ্যমে শেষ হয় প্রথম ধাপে আ’লমী শূরার তিন দিনের বিশ্ব ইজতেমা। ইজতেমায় নিজামুদ্দিন মারকাজের মিডিয়া সেল জানায়, আজ শুক্রবার ইজতেমা ময়দানে বৃহত্তর জুমার জামাতে মাওলানা সাদ কান্দলভির বড় ছেলে ইউসুফ বিন সাদ ইমামতি করবেন। মাওলানা সাদ কান্দলভির তিন ছেলে মাওলানা ইউসুফ কান্দলভি, মাওলানা সাঈদ কান্দলভি, মাওলানা ইলিয়াস কান্দলভি ও মেয়ে জামাতা মাওলানা হাসান গতকাল বৃহস্পতিবার সকাল সাড়ে ১০টায় ইজতেমা ময়দানে এসে পৌঁছালে তাবলিগ জামাতের স্বাগতিক বাংলাদেশের সাথীরা ফুল দিয়ে তাদের অভ্যর্থনা জানান। এ দিকে আজ শুক্রবার থেকে দ্বিতীয় ধাপে বিশ্ব ইজতেমা শুরু হওয়ার কথা থাকলেও গত বুধবার থেকেই দেশী-বিদেশী মুসল্লিরা ইজতেমা ময়দানে এসে নিজ নিজ এলাকার নির্ধারিত স্থানে অবস্থান নিচ্ছেন। প্রথম ধাপের মতোই নির্ধারিত সময়ের আগেই মুসল্লিরা ময়দানে এসে অবস্থান নেয়ায় গতকাল বৃহস্পতিবার থেকেই সমবেত মুসল্লিদের উদ্দেশে তাবলিগ জামাতের মুরুব্বিদের বয়ান শুরু হয়েছে। বৃহস্পতিবার বাদ ফজর নিজামুদ্দিন মারকাজের মাওলানা চেরাগ উদ্দিন উর্দু ভাষায় বয়ান করেন এবং তরজমা করেন মাওলানা আজিমুদ্দিন। এরপর সকাল ১০টা থেকে নানা নির্ধারিত নানা কর্মসূচি শুরু হয়। কর্মসূচির মধ্যে ছিল বিদেশী মেহমানদের মুজাকারার তালিকা, মধ্যপ্রাচ্য থেকে আসা আরবি ভাষাভাষীদের উদ্দেশে বয়ান করেন পাকিস্তানের মাওলানা ওসমান, ইংরেজি ভাষাভাষীদের উদ্দেশে বয়ান করেন এনামুল হক ও মো: খসরু মিয়া, মালয়েশিয়া থেকে আগত মেহমানদের সামনে বয়ান করেন মাওলানা ওমর ফারুক ও মাওলানা ওমর মেওয়াতি, ফারসি ভাষাভাষীদের উদ্দেশে বয়ান করেন মুফতি গোলাম নবী ও মুফতি জহির উদ্দিন, থাইল্যান্ড থেকে আগত মুসল্লিদের উদ্দেশে বয়ান করেন মাস্টার হারুন অর রশিদ, মাওলানা সাঈদী, চীন থেকে আগত মেহমানদের সামনে বয়ান করেন মাওলানা জামশেদ ও মাওলানা আবদুল্লাহ এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গের মেহমানদের উদ্দেশে বয়ান করেন মাওলানা মোশারফ হোসেন। একই সময় নিজামুদ্দিন মারকাজ-কেন্দ্রিক বাংলাদেশে সময় লাগানো প্রায় ১০০ জামাতের মেহনতের কারগুজারি শোনেন মুফতি রিয়াসাত ও হারুন অর রশিদ। ইজতেমা ময়দানের বিভিন্ন নির্ধারিত খিত্তায় এসব কর্মসূচি পালিত হয়। এ ছাড়া দুপুর সোয়া ১২টায় অন্যান্য কর্মসূচি বাস্তবায়নের বিষয়ে মুরুব্বিরা মাসোয়ারা করেন। তাবলিগের সাথী মো: হাবিবুর রহমান সোহেল জানান, গত মঙ্গলবার থেকে ইজতেমা ময়দানে বাংলাদেশের ৬৪ জেলার মারকাজ মসজিদের পয়েন্টের জামাত, খিত্তা জামাত, পাহারা জামাত, জুরনিওয়ালা জামাতে হেদায়েতি কথা হয়। এরই মধ্যে বিশ্বের অর্ধশতাধিক দেশ থেকে প্রায় সাড়ে চার হাজার বিদেশী মেহমান ময়দানের বিদেশী কামরায় অবস্থান করছেন। দেশী জামাতগুলো ৬৪ জেলাভিত্তিক খিত্তায় অবস্থান করছেন। আজ শুক্রবার থেকে বিশ্ব মারকাজ মসজিদ ভারতের দিল্লি নিজামুদ্দিনের ও বাংলাদেশের তাবলিগ জামাতের কেন্দ্রীয় মারকাজ কাকরাইল মসজিদের শীর্ষ মুরুব্বিরা বয়ান রাখবেন। কিভাবে সারা বিশ্বের মানুষ মহান আল্লাহ তায়ালার হুকুম ও প্রিয় নবী হজরত মুহাম্মদ সা:-এর সহিহ সুন্নত তরিকা সবার মাঝে এসে যায় সে বিষয়ে মুরুব্বিরা বয়ান করবেন। প্রতিদিন থাকবে ফরজ বাদ পয়েন্টে তালিম তাসকিল জিকির আসকারসহ ইবাদত বন্দেগির বিভিন্ন কর্মসূচি। আগামী রোববার সকালে বিদেশ সফর একসাল চার মাসের সফর এবং চিল্লা সাথীদের উদ্দেশে হেদায়েতি কথা হবে। তার পর আখেরি মুনাজাত হবে। মুনাজাতের পর দেশ-বিদেশে সফরের জন্য যেসব জামাত বের হবে তাদের রুক করা হবে।

 

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।