চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ১১ সেপ্টেম্বর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিভাগীয় শ্রেষ্ঠ-শিক্ষক হিসেবে উচ্চতর প্রশিক্ষণে রিপাবলিক কোরিয়ায় আমন্ত্রিত ড. আব্দুর রশীদ

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
সেপ্টেম্বর ১১, ২০২২ ২:৩১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

Girl in a jacket

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গার কৃতী সন্তান খুলনা বিভাগের দুইবারের নির্বাচিত শ্রেষ্ঠ-শিক্ষক (কলেজ-পর্যায়) ড. মো. আব্দুর রশীদ এবার রিপাবলিক কোরিয়ার সরকারের অর্থায়নে উচ্চতর প্রশিক্ষণের জন্য আমন্ত্রিত হয়েছেন। ১৮ সেপ্টেম্বর থেকে ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২২ পর্যন্ত উচ্চতর প্রশিক্ষণের জন্য ১৭ সেপ্টেম্বর ১.৩৫ মিনিটে কোরিয়ার উদ্দেশ্যে যাত্রা করবেন। তিনি সরকারি আদর্শ মহিলা কলেজ, চুয়াডাঙ্গা-এর বাংলা বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ও বিভাগীয় প্রধান।

উল্লেখ্য, তিনি ইতোমধ্যে চুয়াডাঙ্গা জেলার কলেজ পর্যায়ে পঞ্চমবারের মতো শ্রেষ্ঠ শিক্ষক নির্বাচিত হন। তাঁর জন্ম ১৯৮১ সালের ১০ জুলাই চুয়াডাঙ্গা জেলার আলমডাঙ্গা উপজেলার অন্তর্গত নিভৃতপল্লী ডাউকি গ্রামে। পিতা মো. ওয়াজেদ আলী এবং মা হামিদা আকতার। তিনি এরশাদপুর একাডেমি থেকে ১৯৯৬ সালে এসএসসি, আলমডাঙ্গা ডিগ্রি কলেজ থেকে ১৯৯৮ সালে এইচএসসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের বাংলা বিভাগ থেকে ২০০২ সালে বাংলা ভাষা ও সাহিত্যে বিএ অনার্স ও ২০০৩ সালে একই বিষয়ে মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেন। তিনি ২৫তম বিসিএস পরীক্ষার মাধ্যমে সরকারি কলেজে চাকরিতে যোগদান করেন। তিনি ২০১৫ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে পিএইচডি (ডক্টর অব ফিলজফি) ডিগ্রি লাভ করেন। তাঁর পেশা অধ্যাপনা কিন্তু নেশা লেখালেখি করা। পেশা এবং নেশার মধ্যে সমন্বয় সাধন করে তিনি ক্লাসে শিক্ষার্থীদের পাঠদানকে গুণগত নতুন মাত্রায় উপনীত করেছেন। ডক্টর রশীদ মূলত গবেষক, প্রাবন্ধিক, ছোটগল্পকার এবং কবি। শ্রেণিকক্ষে শিক্ষার্থীদের পড়াশোনার-সমস্যা চিহ্নিতকরণ, সমস্যাসমূহের সমাধান, আধুনিক তথ্য-প্রযুক্তির ব্যবহারের মাধ্যমে পাঠদানকে আকর্ষণীয় ও আনন্দময় করে শিক্ষার্থীদের উজ্জীবিত তোলা এ-শিক্ষকের মূল লক্ষ্য। তিনি এ-পর্যন্ত শিক্ষাবিষয়ক ১৫১টি প্রশিক্ষণ গ্রহণ করেছেন। তিনি একাধিক গ্রন্থ-প্রণেতা এবং জাতীয় ও আন্তর্জাতিক পর্যায়েও তাঁর গবেষণামূলক একাধিক প্রবন্ধ-নিবন্ধ প্রকাশ পেয়েছে। তাছাড়া বাংলা কথাসাহিত্য, সমকালীন বিষয় নিয়ে ছোটগল্প ও কবিতা-রচনা তাঁর আগ্রহের বিষয়। উচ্চতর প্রশিক্ষণে গমনের পূর্বে তিনি সকলের কাছে দোয়া প্রার্থনা করেছেন।

Girl in a jacket

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।