চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২ অক্টোবর ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিদেশী কর্মীদের জন্য কুয়েতে নতুন আইন হচ্ছে

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
অক্টোবর ২, ২০২২ ৮:৫৪ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: বাংলাদেশসহ বিদেশী শ্রমিকদের জন্য কুয়েত সরকার নতুন আইন চালু করতে যাচ্ছে। নতুন আইনে প্রবাসী শ্রমিকদের ভিসা ইস্যুর আগে দক্ষতা এবং জ্ঞান পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে দেশটির শ্রম ও জনশক্তি মন্ত্রণালয়। মূলত জনসংখ্যার ভারসাম্য ঠিক রাখতে বিদেশীদের ‘দক্ষতা যাচাই পরীক্ষা’ নেয়ার পরিকল্পনা করছে কুয়েত সরকার। এবিষয়ে সম্প্রতি স্থানীয় সংবাদমাধ্যম আল কাবাসে একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়।

ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, নতুন আগত শ্রমিকদের ওয়ার্ক পারমিট প্রদান ও নবায়নের শর্ত হিসেবে এই পরীক্ষাটি নেয়া হতে পারে। কুয়েতি নাগরিকদের বেকারত্ব দূরীকরণের লক্ষ্যে প্রবাসী শ্রমিক ও দেশটির নাগরিকদের মধ্যে ভারসাম্য ফিরিয়ে আনতেই এমন পদক্ষেপ নেয়া হচ্ছে বলে ওই প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। কুয়েতের পাবলিক অথরিটির মহাপরিচালক ড. মুবারক আল-আজমি গণমাধ্যমকে বলেছেন, আবেদনকারীর চাকরি সম্পর্কে ভালো দক্ষতা এবং জ্ঞান রয়েছে এটি নিশ্চিত করতে এমন উদ্যোগ। কুয়েত সোসাইটি অব ইঞ্জিনিয়ার্সের (কেএসই) সহযোগিতায় এটি বাস্তবায়ন করা হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। কেএসই’র এসব পরীক্ষা প্রথম ধাপে আগত নতুন বিদেশীদের জন্য হবে। পরবর্তী সময়ে যারা দেশের ভেতরে রয়েছেন এমন কেউ ওয়ার্ক পারমিট (আকামা) নবায়ন করতে চাইলে তাদেরটা অন্তর্ভুক্ত করা হবে। ওয়ার্ক পারমিট নবায়নের ক্ষেত্রে তাদের একটি শর্ত দেয়া হবে। ওই শর্ত পূরণে ব্যর্থ হলে সেই বিদেশী শ্রমিককে কুয়েত ছেড়ে যাওয়ার জন্য একটি সময় নির্ধারণ করে দেয়া হবে। বর্তমানে কুয়েতে চার লাখের মতো বাংলাদেশী বিভিন্ন সেক্টরে কাজ করছেন। বাংলাদেশের অবস্থান তৃতীয় হলেও বর্তমানে ভিসা জটিলতার কারণে সহজে কুয়েতে প্রবেশ করতে পারছে না বাংলাদেশীরা। এই বিষয়ে জানতে গতকাল কুয়েতে নিযুক্ত বাংলাদেশ দূতাবাসের প্রথম সচিব (রাজ:) ও দূতালয় প্রধান নিয়াজ মোর্শেদের সাথে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি। কুয়েত সিটির একটি কোম্পানিতে এক যুগ ধরে কর্মরত বাংলাদেশী শ্রমিক জালাল উদ্দিন গতকাল নয়া দিগন্তকে বলেন, এমন একটি আইন সরকার করতে যাচ্ছে বলে আমরা শুনতে পাচ্ছি। তবে এখনো এ ব্যাপারে আনুষ্ঠানিক কোনো ঘোষণা আসেনি।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।