চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ২৩ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বিক্ষোভকারীদের হটাল সেনাবাহিনী: দীনেশ শ্রীলঙ্কার নতুন প্রধানমন্ত্রী

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ২৩, ২০২২ ৭:৪৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট হিসেবে রাজাপক্ষে পরিবারের মিত্র রনিল বিক্রমাসিংহে দায়িত্ব নেওয়ার পর নতুন প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হলেন রনিলের স্কুলের সহপাঠী দীনেশ গুনাবর্ধনে (৭৩)। তিনি সাবেক প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া ও মাহিন্দা রাজাপক্ষের দল পডুজানা পেরামুনা পার্টির সদস্য ও সাবেক মন্ত্রী। গতকাল শুক্রবার  সেনাবাহিনী ও পুলিশ বল প্রয়োগ করে বিক্ষোভকারীদের সড়ক থেকে সরিয়ে দেওয়ার পর তাকে শপথ পাঠ করানো হয়। শপথ অনুষ্ঠানে রনিল ও ঊর্ধ্বতন সামরিক কর্মকর্তারা ছাড়াও আইনপ্রণেতা ও উচ্চপদস্থ সরকারি কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। খবর বার্তা সংস্থা এপি ও কলম্বো গেজেটের। চরম অর্থনৈতিক সংকটে থাকা শ্রীলঙ্কার প্রেসিডেন্ট গোতাবায়া রাজাপক্ষে তীব্র গণআন্দোলনের মুখে সম্প্রতি দেশ ছেড়ে পালিয়ে যান। পরে ইমেইলে পদত্যাগপত্র পাঠান তিনি। অন্তর্বর্তীকালীন ভারপ্রাপ্ত প্রেসিডেন্টের দায়িত্ব গ্রহণ করেন রাজাপক্ষে পরিবারের ঘনিষ্ঠ প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে। ২০ জুলাই পার্লামেন্টে ভোটের মাধ্যমে নতুন প্রেসিডেন্ট হিসেবে নির্বাচিত হন তিনি। রাজাপক্ষে পরিবারের মিত্র হওয়ায় তাকে মেনে নেননি বিক্ষোভকারীরা। রনিলের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছিলেন বিক্ষোভকারীরা। প্রেসিডেন্ট হিসেবে শপথ নেওয়ার একদিন পর গতকাল রনিল বিক্রমাসিংহে নতুন প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচন করেন তারই স্কুলের সহপাঠী ও গোতাবায়া রাজাপক্ষের দলের সদস্য দীনেশ গুনাবর্ধনেকে। প্রধানমন্ত্রীর শপথের আগে বিক্ষোভস্থলে অভিযান চালায় পুলিশ ও সেনাবাহিনী। গতকাল ভোরের আগেই প্রেসিডেন্টের প্রাসাদের কাছাকাছি অবস্থিত বিক্ষোভকারীদের শিবির খালি করে দেয় পুলিশ। এখানেই বিক্ষোভকারীরা ১০৪ দিন ধরে অবস্থান নিয়েছিলেন।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ট্রাক ও বাসে করে পরশু রাত ১২টার দিকে পুলিশ ও সেনাবাহিনীর সদস্যরা বিক্ষোভস্থলে আসতে শুরু করেন। তারা তাঁবুগুলো সরিয়ে ফেলেন এবং সেখানে পৌঁছানোর সব রাস্তা বন্ধ করে দেন। প্রত্যক্ষদর্শীদের দাবি, অন্তত দুই সাংবাদিককে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা মারধর করেছেন। ঘটনাস্থলে উপস্থিত দুই আইনজীবীকেও মারধর করার অভিযোগ এনেছে শ্রীলঙ্কার আইনজীবীদের মূল সংস্থা, ‘বার অ্যাসোসিয়েশন অব শ্রীলঙ্কা’। অভিযানে সাংবাদিক, আইনজীবীসহ বেশ কয়েকজনকে গ্রেফতারের অভিযোগ উঠেছে। তাদের সরানোর ক্ষেত্রে বল প্রয়োগের নিন্দা জানিয়েছে জাতিসংঘ, যুক্তরাষ্ট্র ও অন্যান্যরা। এদিকে দেশের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির উন্নয়ন ও নতুন সরকারপ্রধান শপথ নেওয়ার পরেও আন্তর্জাতিক মুদ্রা তহবিলের (আইএমএফ) বেলআউট চুক্তি চূড়ান্ত হওয়ার বিষয়টি এখনো পরিষ্কার নয়। আইএমএফ প্রধান ক্রিস্টালিনা জর্জিভা জাপানের সংবাদমাধ্যম নিক্কেই এশিয়াকে এ সপ্তাহে জানান, ‘আইএমএফ চায় যত দ্রুত সম্ভব চুক্তি চূড়ান্ত হোক।’ তবে প্রেসিডেন্ট রনিল এ মাসের শুরুর দিকে জানিয়েছিলেন, চুক্তি চূড়ান্ত হওয়ার বিষয়টি ঝামেলাপূর্ণ হয়েছে, কারণ শ্রীলঙ্কা এখন দেউলিয়া রাষ্ট্রে পরিণত হয়েছে।

 

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।