বাল্যবিয়ের অপরাধে দামুড়হুদায় কনের পিতাকে জরিমানা

379

দামুড়হুদা প্রতিনিধি: দামুড়হুদায় গোপনে বাল্য বিয়ে দেয়ার অপরাধে কনের পিতার বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। গতকাল শুক্রবার বিকেলে দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রফিকুল হাসান ওই ভ্রাম্যমান আদালত পরিচালনা করেন। ভ্রাম্যমাণ আদালত সূত্রে জানা গেছে, দামুড়হুদা উপজেলা উজিরপুর গাংপাড়ার আব্দুর রহমানের ৮ম শ্রেণিতে পড়–য়া নাবালিকা কন্যা পলি খাতুনের ৫ দিন আগে চুয়াডাঙ্গা জেলা সদরের সুমুরদিয়া গ্রামে গোপনে বাল্য বিয়ে দেয়া হয়। গতকাল শুক্রবার বরপক্ষ ঘটা করে বউ তুলতে আসে। এলাকাবাসী বিষয়টি জানতে পেরে উপজেলা নির্বাহী অফিসারকে জানালে তিনি তাৎক্ষনিক ঘটনাস্থলে ছুটে যান। তার আগেই বরসহ বরপক্ষ সটকে পড়ে। আটক করা হয় নাবালিকা কনের পিতা আব্দুর রহমানকে। তার বিরুদ্ধে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বাল্য বিয়ে দেয়ার অপরাধে বাল্য বিবাহ নিরোধ আইনে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে ৫ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে ১ মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ডের আদেশ দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট দামুড়হুদা উপজেলা নির্বাহী অফিসার রফিকুল হাসান। জরিমানার টাকা নগদে পরিশোধ করলে তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। আটক কনের পিতা আব্দুর রহমান বলেন, তার মেয়ে নানা বাড়ি কার্পাসডাঙ্গায় থেকে মাদরাসায় পড়তো। কিন্ত সে লেখাপড়ায় ভাল না। গত ৫ দিন আগে দেখতে এসে তার বিয়ে হয়ে যায়। তাছাড়া আমি ওই বিয়ের বিষয়ে তেমন কিছুই বলতে পারবোনা। কারণ আমি ঢাকায় ছিলাম। যা করার মেয়ের মা আর ঘটক হানিফা করেছে।