চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ২৪ অক্টোবর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বাংলাদেশের প্রথম রাজধানী চুয়াডাঙ্গায় কাল উদ্বোধন হচ্ছে ‘অরিন্দম সাংস্কৃতিক উৎসব’ শহর সেজেছে বর্ণিল সাজে : উৎসবের আমেজে নাট্যাঙ্গন

সমীকরণ প্রতিবেদন
অক্টোবর ২৪, ২০১৬ ৩:১৫ অপরাহ্ণ
Link Copied!

IMG_3224

সাজ্জাদ হোসেন: বাংলাদেশের প্রথম রাজধানী চুয়াডাঙ্গা এখন নান্দনিক সাজে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনাবাহী সংগঠন অরিন্দম সাংস্কৃতিক সংগঠনের উদ্যোগে আগামী কাল উদ্বোধন হচ্ছে ‘অরিন্দম সাংস্কৃতিক উৎসব’। বিকাল তিন টায় ত্রিশটি প্রদীপ প্রজ্বলনের মধ্যে দিয়ে উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন ঘোষিত হবে। উৎসবকে ঘিরে এরই মধ্যে চুয়াডাঙ্গা শহর জুড়ে নানান রকম গেইট, ফেষ্টুন, পোষ্টার ও আলোকসজ্জা করা হয়েছে। যার রঙ ছড়িয়ে পড়ছে দশদিক। ‘ছন্দ তুলুক সংস্কৃতি চর্চা-বিনাশ হবেই সাম্প্রদায়িকতা’ এই মূলমন্ত্রে অরিন্দম সাংস্কৃতিক সংগঠনের ত্রিশতম প্রতিষ্ঠা বাষির্কীতে জেলা শিল্পকলা একাডেমি চত্ত্বরকে ঘিরে এই বর্ণিল আয়োজন। চলবে টানা সাত দিন। উৎসবের উদ্বোধনী আয়োজনে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের সংস্কৃতি মন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর। বিশেষ অতিথি চুয়াডাঙ্গা-১ আসনের সংসদ সদস্য ও জাতীয় সংসদের হুইপ সোলাইমান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন এবং চুয়াডাঙ্গা-২ আসনের সংসদ সদস্য আলী আজগার টগর। প্রথম দিনের অনুষ্ঠানমালায় থাকছে আনন্দ শোভাযাত্রা, সম্মাননা প্রদান, আলোচনা ‘ছন্দ তুলুক সংস্কৃতি চর্চা-বিনাশ হবেই সাম্প্রদায়িকতা’, দেশাত্ববোধক গানের অনুষ্ঠান জন্ম আমার ধন্য হলো এবং অরিন্দমের নাটক ‘অহম তমশায়’। দ্বিতীয় দিন সন্ধ্যায় থাকছে নজরুল সংগীতের অনুষ্ঠান বুলবুল, আলোচনা ‘নজরুল চেতনায় দেশাত্ববোধ ও মানবিকতা’, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের উজান থিয়েটারের দুইটি নাটক ‘ইতিহাসের কাঠগড়ায়’ এবং ‘জ্যাম্বো ও একটি চিত্রনাট্য’। তৃতীয় দিন সন্ধ্যায় থাকছে হারানো দিনের গানের অনুষ্ঠান একি সোনার আলোয়, আলোচনা ‘বাংলা গানের একাল-সেকাল’ এবং মেহেরপুর জেলা শিল্পকলা একাডেমির নাটক ‘জাস্ট টু ইট’। চতুর্থ দিন সন্ধ্যায় থাকছে লালন গীতির অনুষ্ঠান যেখানে সাঁই’র বারামখানা, আলোচনা ‘লালন : অসাম্প্রদায়িক চেতনার প্্রাণপুরুষ’ এবং শেষে কুষ্টিয়া বোধন থিয়েটারের নাটক চন্দ্রাবতী কথা। পঞ্চম দিন সন্ধ্যায় থাকছে রবীন্দ্র সংগীতের অনুষ্ঠান আলোর ভূবন ভরা, আলোচনা ‘রবীন্দ্র মানচিত্র : বিশ্ব মানবের বি¯তৃতভূবন’ ও সবশেষে বিবর্তন যশোরের নাটক মাতব্রং। ষষ্ঠ দিন সন্ধ্যায় থাকছে লোকসংগীতের আসর মাটির টানে গানে গানে, আলোচনা ‘বাংলার চিরায়ত লোকসংগীত : মানব প্রেমের মর্মকথা’ এবং ভারতের পশ্চিমবঙ্গের সায়ূধ নাট্য সংস্থার নাটক ‘অপরাজিতা’। উৎসবের সমাপনী সন্ধ্যায় থাকছে নৃত্যানুষ্ঠান তা-থৈ তা থৈ, আলোচনা ‘জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে নাটক : সময়ের দাবী’ এবং ঢাকা জেলা শিল্পকলা একাডেমির নাটক ‘মুল্লুক’। উৎসবের সর্বশেষ প্রস্তুতি সম্পর্কে অরিন্দমের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সালাম সৈকত বলেন-‘উৎসবের সমস্ত প্রস্তুতি এরই মধ্যে শেষ হয়েছে। এখন অপেক্ষা এই বর্ণিল আয়োজনের পর্দা উঠার। এবারের উৎসবে বাংলাদেশ-ভারত সাংস্কৃতিক বিনিময়, সাংস্কৃতিক কর্মীদের মধ্যে আন্তঃসম্পর্ক উন্নয়ন ও অভিজ্ঞতা বিনিময়কে জোর দেওয়া হয়েছে। অরিন্দম বিশ্বাস করে এই সম্পর্কের মহাসড়ক ধরেই একদিন আন্তর্জাতিক সন্ত্রাসবাদ-জঙ্গীবাদ নির্মূল করা সম্ভব হবে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।