চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ৯ জুলাই ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নতুন প্রজন্মকে জানাতেই এ চর্চা

সমীকরণ প্রতিবেদন
জুলাই ৯, ২০২১ ১০:৫৩ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সঙ্গীতানুরাগী বঙ্গবন্ধু শীর্ষক আলোচনাসভায় জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ
সমীকরণ প্রতিবেদন:
জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের আদর্শ, স্বপ্ন ও নীতিনৈতিকতাগুলোকে নতুন প্রজন্মকে জানাতেই মুজিববর্ষে শতঘন্টা মুজিব চর্চার আয়োজন করা হয়েছে। দেশের নতুন প্রজন্ম জাতে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ অনুসরণ করে নিজেদের জীবন সাজাতে পারে। প্রকৃত দেশ প্রেমিক হিসেবে নিজেদের গড়ে তুলতে পারে। বঙ্গবন্ধুর সম্পর্কে আরও অনেক বিষয়ে জানতে পারে সেই উদ্যোশ্যেই এই ব্যতিক্রমী আয়োজন। গত বুধবার রাতে জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে মেহেরপুর জেলা প্রশাসন কর্তৃক আয়োজিত মুজিববর্ষে শতঘন্টা মুজিবচর্চায় সঙ্গীতানুরাগী বঙ্গবন্ধু শীর্ষক আলোচনাসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য এ কথাগুলো বলেন জনপ্রশাসন প্রতিমন্ত্রী ফরহাদ হোসেন।
তিনি বলেন, করোনা মহামারীর কারণে বাংলাদেশের যেভাবে মুজিববর্ষ পালন করার সিদ্ধান্ত ছিলো সেটা সম্ভব হয়নি। সরকারের ব্যাপক প্রস্তুতি ও বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এবং সরকারি কর্মকর্তাদের আন্তরিকতা থাকা সত্বেও মুজিববের্ষর অনুষ্ঠানের ইতি টানতে বাধ্য হয়েছে শুধুমাত্র করোনা ভাইরাসের কারণে। কিন্তু মুজিবনগর থেকে যেহেতু বাংলাদেশের শুরু। মুজিবনগর বাংলাদেশের প্রথম রাজধানী তাই এখান থেকেই মুজিবের প্রচার করা ব্যতিক্রমী আয়োজনের মাধ্যমে। আমরা চেষ্টা করেছি বঙ্গবন্ধুর জীবনের নানা বিষয় দেশের মানুষের সামনে আনার। তিনি গান পছন্ত করতেন কিনা, তিনি আইন বিষয়ে কি নিদের্শনা দিয়েছে, তিনি পুলিশের বিষয়ে কি নিদের্শনা দিয়েছে, তিনি বিভিন্ন বিষয়ে কি ধরনের সিদ্ধান্ত বা কেমন ছিলো তার জীবন-যাপন সেই বিষয়গুলো সাধারণ মানুষের জানা আগ্রহ রয়েছে। তাই ১শ বছরের নানা ঘটনা প্রবাহ নিয়ে আমাদের বার্তার এ অনুষ্ঠান। আমরা জুম কনফারেন্সের মাধ্যমে প্রতিদিনই দেশের বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী, প্রতিমন্ত্রী, খ্যাতনামা ব্যক্তিত্ব, শিল্পী, সাহিত্যিক, রাজনৈতিক, সরকারী কর্মকর্তাদের মাধ্যমে বঙ্গবন্ধুর নানা বিষয়ে আলোচনার পর সেগুলো- ইউটিউব, ফেসবুক, অনলাইন পত্রিকার মাধ্যমে প্রচার করছি। যাতে করে মুজিববর্ষে বঙ্গবন্ধুর আদর্শ নতুন প্রজন্মের নিকট তুলে ধরতে পারি। এতে আমরা সফলও হয়েছি। আর এই ব্যতিক্রমী উদ্যোগটি প্রশংসিত হয়েছে দেশব্যাপী। মাননীয় স্পিকার ড. শিরিন শারমীন বলেছেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ রুপান্তর হওয়ায় এমন চমৎকার একটি অনুষ্ঠান করা সম্ভব হয়েছে। যেখানে প্রতিদিনই অনেকগুনি মানুষের আগমন ঘটে।
অনুষ্ঠানে মেহেরপুর জেলা প্রশাসক ড. মুনসুর আলম খানের সভাপতিত্বে প্রধান আলোচক ছিলেন, প্রথিতযশা সঙ্গীত শিল্পী রেজওয়ানা চৌধুরী বন্যা। বিশেষ অতিথি ছিলেন, সাবেক সচিব আলকামা সিদ্দিক, জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম এ খালেক প্রমুখ।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।