প্রথমবার দ্বৈত চরিত্রে ঐশ্বর্য

184

বিনোদন ডেস্ক:
চলচ্চিত্রের পর্দায় ফিরছেন ঐশ্বর্য রাই বচ্চন। ‘মণিরত্নম’ ছবি দিয়ে কামব্যাক করছেন তিনি। শোনা যাচ্ছে এই ছবিতে নাকি দ্বৈত ভূমিকায় দেখা যাবে প্রাক্তন বিশ্ব সুন্দরীকে। কল্কি কৃষ্ণমূর্তির বিখ্যাত তামিল উপন্যাস ‘পোন্নিইয়ান সেলভান’ (পোন্নির ছেলে) অবলম্বনে তৈরি হচ্ছে ছবিটি। অভিনেত্রী নিজেও জানিয়েছেন, এই খবর মিথ্যা নয়। সত্যিই মণিরত্নমের হাত ধরে পর্দায় ফিরতে চলেছেন তিনি। রাই সুন্দরী এখন পুরোপুরি সংসারে মন দিয়েছেন। মাঝে মাঝে দু’একটা কাজ করছেন ঠিকই। কিন্তু বেশিরভাগ সময়টা তিনি আরাধ্যাকে বড় করার কাজেই ব্যয় করছেন। শেষ তাকে দেখা গিয়েছেন ‘ফন্নে খাঁ’ ছবিতে। তবে সেই ছবিতে তিনি প্রধান চরিত্রে ছিলেন না। তাও সেই গত বছরের কথা। তার আগে ‘অ্যায় দিল হ্যায় মুশকিল’ ছবিতে অবশ্য অন্যতম মুখ্য চরিত্রেই ছিলেন তিনি। কিন্তু ডাবল রোলে তাঁকে গত কয়েক বছরে দেখা যায়নি। ঐশ্বর্য-অনুরাগীদের সেই ইচ্ছা এবার পূরণ করবেন ‘মণিরত্নম’। এখনও পর্যন্ত যা খবর পাওয়া গিয়েছে, তাতে পরের বছর শুরু হবে এই ছবির কাজ। ‘পোন্নিইয়ান সেলভান’ উপন্যাসের কাহিনি চোল বংশের অরুলমোজি বর্মনের সময়কার। মণিরত্নমের এই ছবি মূলত পিরিয়ড ড্রামা। চোল ইতিহাসের পর্দার আড়ালে থাকা এমন অনেক চরিত্রদের তুলে ধরবেন পরিচালক এই ছবিতে। ছবিতে ঐশ্বর্যকে দেখা যাবে পেরিয়া পাজুভেত্তারাইয়ারের স্ত্রী নন্দিনীর চরিত্রে। উপন্যাস অনুযায়ী, পাজুভেত্তারাইয়ার আসলে চোল বংশের কোষাধ্যক্ষ ছিলেন। নন্দিনী ক্ষমতালোভী একজন মহিলা। চোল বংশের ক্ষমতা ক্ষুক্ষিগত করার নেশায় বুঁদ নন্দিনী সর্বদাই স্বামীকে ব্যবহার করতেন। চোল বংশের অপরাধের জন্য প্রতিশোধ নিতে চান নন্দিনী। কীভাবে চোল সাম্রাজ্যকে ধ্বংস করা যায়, সেই ছক কষতে থাকেন। আর এই রকম একটা চরিত্রেই দেখা যাবে ঐশ্বর্যকে। তবে অন্য চরিত্রটি কী, তা নিয়ে এখনও ধোঁয়াশা রয়েছে। ছবির অন্যতম আকর্ষণ অমিতাভ বচ্চন। এছাড়া বিক্রম, কীর্তি সুরেশ, মোহন বাবু এবং কার্থিকেও অভিনয় করতে দেখা যাবে বলে খবর।