‘প্রতিটি সেক্টরে পরিসংখ্যানের নির্ভুল প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে’

43

চুয়াডাঙ্গা ও মেহেরপুরসহ সারা দেশে প্রথমবারের মতো জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালন
সমীকরণ প্রতিবেদক:
পরিকল্পিত অর্থনীতির জন্য সঠিক পরিসংখ্যান অপরিহার্য। আর এ কারণে দিন দিন বাড়ছে পরিসংখ্যানের গুরুত্ব। সে গুরুত্বকে প্রাধান্য দিয়ে গতকাল শনিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) দেশে প্রথমবারের মতো জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস পালিত হয়েছে। এ বছর দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘নির্ভরযোগ্য পরিসংখ্যান, টেকসই উন্নয়নের উপাদান’। দিবসটি উপলক্ষে দেশের বিভিন্ন জায়গায় আলোচনা সভা, র‌্যালিসহ নানা কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।
চুয়াডাঙ্গা:

চুয়াডাঙ্গা ‘নির্ভরযোগ্য পরিসংখ্যান, টেকসই উন্নয়নের উপাদান’ স্লোগানে চুয়াডাঙ্গায় প্রথমবারের মতো জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস-২০২১ পালন করা হয়েছে। এ উপলক্ষে গতকাল শনিবার বেলা ১১টায় পরিসংখ্যান কার্যালয়ে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। আলোচনা সভায় সভাপতিত্বে করেন ভারপ্রাপ্ত উপপরিচালক রাসিউল ইসলাম। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনিরা পরভীন। প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি বলেন, ‘দেশকে উন্নয়নশীল থেকে উন্নত রাষ্ট্রে পরিণত করতে প্রতিটি সেক্টরে নির্ভুল ও সময়ানুগ পরিসংখ্যানের প্রয়োগ নিশ্চিত করতে হবে। দিবসটি পালনের মধ্যদিয়ে দেশের সকল খাতে পরিসংখ্যানের প্রয়োগ বৃদ্ধি পাবে, যা অর্থনৈতিক উন্নয়নের গতিকে ত্বরান্বিত করতে সহায়ক হবে বলে আমি মনে করি।’
এসময় সদর উপজেলা পরিসংখ্যান কর্মকর্তা বিল্লাল হোসেন বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন। অনুষ্ঠানে পাওয়ার পয়েন্টের মাধ্যমে পরিসংখ্যানের কার্যক্রম তুলে ধরেন উপপরিচালক রাসিউল ইসলাম। এসময় পরিসংখ্যানের জরিপকর্মীবৃন্দ ও কর্মকর্তা-কর্মচারীরা উপস্থিত ছিলেন।
আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি মনিরা পারভীন আরও বলেন, জনসংখ্যা অনুযায়ী সরকারের প্রত্যেক বিভাগের কাজ সুচারুরুপে করতে চাইলে পরিসংখ্যানের ডাটা দরকার। সেজন্য বলবো আপনারা ডাটা সংগ্রহ সঠিকভাবে নিয়ে আসবেন। উন্নয়নমূলক সেবা করতে পারি। আপনাদের তথ্য-উপাত্তগুলো জাতীয় পর্যায়ে যুক্ত হয়।
মেহেরপুর:
জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস উপলক্ষে মেহেরপুরে বর্ণাঢ্য র‌্যালি করা হয়েছে। গতকাল শনিবার সকালে মেহেরপুর জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে একটি র‌্যালি বের করা হয়। অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মো. তৌফিকুর রহমানের নেতৃত্বে র‌্যালিটি শহরের প্রধান সড়ক প্রদক্ষিণ শেষে মেহেরপুর জেলা পরিসংখ্যান অফিস প্রাঙ্গণে এসে শেষ হয়। ‘নির্ভরযোগ্য পরিসংখ্যান টেকসই উন্নয়নের উপাদান’ এ প্রতিপাদ্য বিষয়ের উপরে আলোচনায় বলা হয় টেকসই উন্নয়ন করতে হলে যতগুলো নিয়ামক দরকার তার মধ্যে অন্যতম সঠিক পরিসংখ্যান। সঠিক পরিসংখ্যান থেকেই সঠিক পরিকল্পনা সম্ভব। টেকসই উন্নয়নের লক্ষ্যমাত্রা সূচকগুলোকে পরিবীক্ষণের জন্য তথ্য উপাত্ত সংগ্রহের লক্ষ্যে বাংলাদেশ পরিসংখ্যান ব্যুরো নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে।’
এসময় উপস্থিত ছিলেন জেলা পরিসংখ্যান ব্যুরোর উপ-পরিচালক মো. শরিফুল ইসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি আব্দুল হালিম, জেলা প্রতিবন্ধী বিষয়ক কর্মকর্তা তুলসি কুমার পাল প্রমুখ। জাতীয় পরিসংখ্যান দিবস উপলক্ষে বেলুন উড়িয়ে দিবসটির সূচনা করা হয়।