চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ২২ আগস্ট ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পৃথিবীর কাছের পাথুরে গ্রহে অক্সিজেন

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ২২, ২০১৬ ৫:২৬ অপরাহ্ণ
Link Copied!

p

প্রযুক্তি ডেস্ক: গত বছর আবিস্কার হওয়ার পর থেকেই জ্যোতির্বিজ্ঞানীদের নজর কেড়েছিল শুক্রের মতো দেখতে জিজে১১৩২বি গ্রহটি। সৌরজগতের বাইরের এই গ্রহটিকে সে সময়ই অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ গ্রহ হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছিল। কারণ এটিই হলো পৃথিবীর সবচেয়ে কাছের পাথুরে গ্রহ। গ্রহটির আবহাওয়া অবিশ্বাস্য রকম গরম, তাপমাত্রা ২৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস ৪৫০ ডিগ্রি ফারেনহাইট। সম্প্রতি এই গ্রহটির বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেনের উপস্থিতি শনাক্ত করেছেন বিজ্ঞানীরা। অর্থাৎ এটিই সৌরজগতের বাইরে অন্য একটি নক্ষত্রজগতের প্রথম পাথুরে গ্রহ যেখানে অক্সিজেনের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গেছে। কিন্তু গ্রহটির তাপমাত্রা যে পরিমাণ উত্তপ্ত, তাতে প্রাণের অস্তিত্ব থাকার সম্ভাবনা নেই বলেই মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। ৩২ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় বেঁচে থাকাটা প্রায় অসম্ভবই বলে জানিয়েছেন জ্যোতির্বিজ্ঞানীরা। জিজে১১৩২বি গ্রহটি ৩৯ আলোকবর্ষ দূরে অবস্থিত। হার্ভার্ড-স্মিথসোনিয়ান সেন্টার ফর অ্যাস্ট্রোফিজিক্সের জ্যোতির্বিজ্ঞানী লরা স্কেফার বলেন, ‘ঠান্ডা গ্রহে অক্সিজেন থাকা মানে সেখানে জীবনের অস্তিত্ব থাকারই কথা। কিন্তু জিজে১১৩২বি-এর মতো উত্তপ্ত গ্রহের ক্ষেত্রে বিষয়টি পুরোপুরি বিপরীত।’ তবে, এই গ্রহের বায়ুমণ্ডলে জলীয় বাষ্প রয়েছে কী না তাও পরীক্ষা করে দেখছেন বিজ্ঞানীরা। কারণ জলীয় বাষ্প থাকা মানে এই গ্রহে গ্রিনহাউজয়ের প্রভাব থাকবে। আবার অন্যদিকে এই গ্রহের অপরিভাগ লাভার স্তর ও গবেষকদের একটা দিশা দেখাতে পারে। কারণ ওই লাভাস্তর বায়ু থেকে কিছু অক্সিজেন গ্রহণ করতে পারে। কিন্তু, তা দশভাগের একভাগ বলে পরীক্ষায় জানা গেছে। বাকি ৯০ শতাংশ অক্সিজেন মহাকাশে মিলিয়ে যায়। গ্রহটি সম্পর্কে আরো বিস্তারিত তথ্য সংগ্রহ করতে জায়ান্ট ম্যাগেলান টেলিস্কোপ এবং জেমস ওয়েব স্পেস টেলিস্কোপের মাধ্যমে গবেষণা করা হবে বলে জানিয়েছেন বিজ্ঞানীরা।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।