চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ২৯ মে ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

পুতিনের যুদ্ধ ইউরোপের মূল্যবোধবিরোধী: শলৎস

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
মে ২৯, ২০২২ ১০:০৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

বিশ্ব প্রতিবেদন: জার্মান চ্যান্সেলর ওলাফ শলৎস বলেছেন, ‘‘ইউক্রেনে একটি অমানবিক যুদ্ধ চালিয়ে পুতিনের ছাড় পাওয়া উচিত নয়।’’ যুদ্ধের সময়ে পুতিন খাদ্য সংকটকে রাজনৈতিক উদ্দেশ্যে ব্যবহার করতে চাইছে বলেও মনে করেন তিনি। জার্মানির স্টুটগার্ট শহরে শুক্রবার (২৭ মে) ক্যাথলিকদের কেন্দ্রীয় কমিটির বৈঠকে এমন মন্তব্য করেন শলৎস। তিনি বলেন, চলমান যুদ্ধে ইউক্রেনকে সহযোগিতা দিয়ে যেতে জার্মানি প্রতিজ্ঞাবদ্ধ। এসময় তিনি যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটি থেকে আসা শরণার্থীদের সহায়তা করায় ক্যাথলিক চার্চগুলোকে ধন্যবাদ জানান। শলৎস বলেন, পুতিনের এই যুদ্ধ শুধু ইউক্রেনের বিরুদ্ধেই নয়, বরং যে মূল্যবোধ ও বিশ্বাস ইউরোপকে গণতন্ত্র, স্বাধীনতা এবং মানবিক মর্যাদার সমাজ হিসেবে গড়ে তুলেছে এ যুদ্ধ তার বিরুদ্ধেও। এসময় তিনি জানান, রাশিয়া হামলা চালানোর পর থেকে এ পর্যন্ত আট লাখ ইউক্রেনীয় শরণার্থী জার্মানিতে আশ্রয় নিয়েছেন। জার্মান চ্যান্সেলর বলেন, তিনি (ভ্লাদিমির পুতিন) সবসময় আমাদেরকে পশ্চিম বলে আখ্যায়িত করেন। তার বিরুদ্ধে যারা কথা বলছে তাদের সবাইকে তিনি শত্রু হিসেবে চিহ্নিত করেতে চান এবং এদের বিরুদ্ধে তিনি বাকি দেশগুলোকে নিয়ে একটি জোট গড়তে চান। খাদ্য সংকটের জন্য পুতিন দায়ী। চলতি মাসের শুরুর দিকে বিশ্ব খাদ্য সংস্থা রাশিয়ার প্রতি কৃষ্ণ সাগরের বন্দরগুলো খুলে দেওয়ার আহ্বান জানায় যেন ইউক্রেনের খাদ্যপণ্য সংকটে থাকা বিভিন্ন দেশ যেমন আফগানিস্তান, ইথিওপিয়া, দক্ষিণ সুদান, সিরিয়া ও ইয়েমেনে সরবরাহ করতে বিঘ্ন না ঘটে। শলৎসের মতে, পুতিন যুদ্ধ শুরু করায় খাদ্য সংকট দেখা দিয়েছে। তবে, এই সংকটের জন্য যে দেশগুলো ইউক্রেনের পাশে দাঁড়িয়েছে তাদেরকে দায়ী করছেন পুতিন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।