পকেট ভরতেই আবারও গ্যাস-তেলের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত: বিএনপি

411

সমীকরণ ডেস্ক: বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম-মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী গ্যাস ও জ্বালানি তেলের দাম বাড়ানোর ‘গণবিরোধী’ সিদ্ধান্ত থেকে সরে আসার আহ্বান জানিয়ে বলেছেন, সরকার নিজেদের দলের লোকদের পকেট ভরতে আবারও গ্যাস ও তেলের দাম বাড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এ প্রক্রিয়া হচ্ছে গরীব মানুষকে পথে বসানোর চক্রান্ত। এমনিতেই দ্রব্যমূল্যের উর্দ্ধগতির কারণে মানুষের ত্রাহি ত্রাহি অবস্থা। তার ওপর চালের মূল্য বর্তমানে আবারো ৫০ থেকে ৭০ টাকা। বর্তমানে সাধারণ মানুষ কোনমতে খেয়ে না খেয়ে বেঁচে আছে। গরীব মানুষরা পেট ভরে ভাত খেতে পায় না। বিদ্যুতের অভাবে এই সেচ মৌসুমে কৃষি কাজ চরমভাবে ব্যাহত হচ্ছে। তার ওপর সরকার গ্যাস ও জ্বালানি তেলের দাম বৃদ্ধির যে উদ্যোগ নিচ্ছে তা শুধু ধ্বংসাত্মক নয়, গরীব মানুষকে পথে বসিয়ে দেয়ার ষড়যন্ত্র। তিনি বলেন, সরকারের এই গণবিরোধী ও জনস্বার্থবিরোধী এবং রক্তশোষণের নীতির বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াবেন বলেই বাক স্বাধীনতা, মানুষের মৌলিক-মানবাধিকার তথা বহুদলীয় গণতন্ত্রের প্রতীক বেগম খালেদা জিয়াকে কারারুদ্ধ করা হয়েছে। ভয়ঙ্কর এক খেলায় মেতেছে সরকার। বিএনপি চেয়ারপার্সনকে কারাবন্দী করা যেন সরকারের বহুদিনের মনের আশা। সেটি পূরণ করতে পেরে এখন আরও বেপরোয়া। গতকাল মঙ্গলবার বিকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এসব কথা বলেন। সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আতাউর রহমান ঢালী, বিএনপির মুক্তিযোদ্ধা বিষয়ক সম্পাদক ইশতিয়াক আজিজ উলফাত, সহদফতর সম্পাদক বেলাল আহমদ প্রমুখ। রিজভী বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের সাহেব বলেছেন, দেশি-বিদেশি ষড়যন্ত্রকারীরা সরকার হটানোর ষড়যন্ত্র করছে। রাষ্ট্রক্ষমতা দীর্ঘ মেয়াদে ভোগ করতে নীল নকশা করছে আওয়ামী লীগ। সরকারই তো ষড়যন্ত্রের হেড মাস্টার।