নৈতিকতা সম্পন্ন জাতি গঠনে ধর্মীয় শিক্ষার বিকল্প নেই

25

চুয়াডাঙ্গা ও আলমডাঙ্গায় মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম কর্মশালায় বক্তারা
নিজস্ব প্রতিবেদক:
চুয়াডাঙ্গায় ‘মানবিক মূল্যবোধ ও নৈতিকতা সম্পন্ন জাতি গঠনে মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রমের ভূমিকা’ শীর্ষক কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় জুম ক্লাউড অ্যাপের মাধ্যমে ভার্চুয়ালভাবে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয়ের অধীন হিন্দুধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন মন্দিরভিত্তিক ‘শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায়’ প্রকল্পের আওতায় জেলা পর্যায়ে এ কর্মশালা অনুষ্ঠিত হয়। কর্মশালায় সভাপতিত্ব করেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার।
স্বাগত বক্তব্য দেন মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা কার্যক্রম-৫ম পর্যায়ের প্রকল্প পরিচালক (অতিরিক্ত সচিব) রঞ্জিত কুমার দাস। সুপারিশমালা উপস্থাপন করেন উপ-প্রকল্প পরিচালক (উপ-সচিব) সৌরেন্দ্র নাথ সাহা। শুভেচ্ছা বক্তব্য দেন চুয়াডাঙ্গার সহকারী প্রকল্প পরিচালক মৌসুমি সুলতানা। জুম ক্লাউড অ্যাপে যুক্ত থেকে অতিথি হিসেবে বক্তব্য দেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মনিরা পারভীন, চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক খোকন, আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. লিটন আলী, জীবননগর উপজেলা নির্বাহী অফিসার এস এম মুনিম লিংকন, চুয়াডাঙ্গায় প্রকল্পের ট্রাস্টি নাণ্টু রায়, সাবেক জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার নুরুল ইসলাম মালিক, সাংবাদিক শাহ আলম সনি, জেলা সমাজসেবা অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক সন্তোষ কুমার, জেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক এবিএম রবিউল ইসলাম, বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদ চুয়াডাঙ্গার সাধারণ সম্পাদক জয়ন্ত কুমার সিংহ রায়, দামুড়হদা উপজেলা মনিটরিং কমিটির সদস্য উত্তম রঞ্জন দেবনাথ ও সদর উপজেলা মনিটরিং কমিটির সদস্য শ্যামল কুমার নাথ। কেন্দ্র মনিটরিং কমিটির মধ্যে বক্তব্য দেন মুন্সিগঞ্জ বারোয়ারী শ্রী শ্রী হরিবাসর নাট মন্দিরের সাধারণ সম্পাদক দেবেন্দ্র নাথ দোবে।
অনুষ্ঠানটি যৌথভাবে উপস্থাপনা করেন মাগুরার সহকারী প্রকল্প পরিচালক চৈতি মহলদার ও মেহেরপুরের সহকারী প্রকল্প পরিচালক হ্যাপি সাহা। জুম ক্লাউড অ্যাপ পরিচালনা করেন প্রকল্পের খুলনা বিভাগীয় মাস্টার ট্রেইনার মনোতোষ কুমার মণ্ডল। কেন্দ্র শিক্ষকের মধ্যে বক্তব্য দেন জীবননগর শ্রী শ্রী সার্বজনীন দূর্গা মন্দিরের আভা রানী ঘোষ ও চুয়াডাঙ্গা বড় বাজার দূর্গা মন্দিরের অন্তর কুমার ঘোষ।
কর্মশালায় বক্তারা বলেন, মানবিক মূল্যবোধ ও নৈতিকতা সম্পন্ন জাতি গঠনে ধর্মীয় শিক্ষার বিকল্প নেই। প্রত্যেকটি শিশুকে সৎ, আদর্শ, মানবিক মূল্যবোধ ও নৈতিকতা শিক্ষা প্রদানের মাধ্যমে ধর্মবিষয়ক মন্ত্রণালয় কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন মন্দিরভিত্তিক শিশু ও গণশিক্ষা প্রকল্প মানবিক মূল্যবোধ ও নৈতিকতা সম্পন্ন জাতিগঠনে সহায়ক ভূমিকা পালন করছে। এ কার্যক্রমের মাধ্যমে শিশুদের প্রাক-প্রাথমিক শিক্ষা, বয়স্কদের স্বাক্ষর জ্ঞান এবং শিক্ষার্থীদের ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষা প্রদান করা হচ্ছে। ফলে দেশে প্রাথমিক শিক্ষার হার বৃদ্ধি পাচ্ছে, নিরক্ষরতা দূরীভূত হচ্ছে এবং ধর্মীয় ও নৈতিক শিক্ষার মাধ্যমে দেশের তরুণ ও যুবকদের মাঝে আদর্শ, নৈতিকতা, সহনশীলতা ও মানবিক মূল্যবোধের উন্মেষ ঘটছে।
আলমডাঙ্গা:
আলমডাঙ্গা সত্যনারায়ণ মন্দিরে মন্দিরভিত্তিক শিক্ষা কার্যক্রমের ভার্চুয়াল আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ভার্চুয়াল আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গা জেলা প্রশাসক নজরুল ইসলাম সরকার। আলোচনা সভায় অংশ নেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক মনিরা পারভীন, জেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার মোস্তাফিজুর রহমান, ডিডিএলজি সাজিয়া আরেফিন, চুয়াডাঙ্গা ইসলামি ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক এবিএম রবিউল ইসলাম, চুয়াডাঙ্গা পৌর মেয়র জাহাঙ্গীর আলম মালিক, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার মুহাম্মদ সাদিকুর রহমান, আলমডাঙ্গা উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. লিটন আলী, সমাজসেবা কর্মকর্তা মো. আফাজ উদ্দীন, হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা মনিন্দ্রনাথ দত্ত, আলমডাঙ্গা পূজা উদ্যাপন পরিষদের সভাপতি ড. অমল বিশ্বাস, জেলা পূজা উদ্যাপন পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক বাবু প্রশান্ত অধিকারী প্রমুখ।