চুয়াডাঙ্গা বৃহস্পতিবার , ২১ জুলাই ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নিষিদ্ধ পাবজি গেমের টুর্নামেন্ট, হতবাক সবাই!

ওসি মাহাব্বুর রহমানের নেতৃত্বে চুয়াডাঙ্গা দৌলতদিয়াড়ের তাসনিম নূর কমিউনিটি সেন্টারে অভিযান
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুলাই ২১, ২০২২ ৮:১৮ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সারাদেশ থেকে চুয়াডাঙ্গায় আসা ১০৮ জন আটক : বয়স বিবেচনায় নিয়ে শুধুমাত্র ২৪ জনকে কারাদণ্ড

 

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গায় আয়োজন করে নিষিদ্ধ মোবাইল গেমস পাবজি প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার দায়ে ১০৮ জনকে আটকের পর ২৪ জনকে দুই দিনের কারাদণ্ড ও বাকিদের মুচলেকায় অভিভাবকের কাছে ছেড়ে দেয়া হয়েছে। গতকাল বুধবার দুপুরে শহরতলীর দৌলতদিয়াড় এলাকার তাসনিম নূর কমিউনিটি সেন্টারের হলরুম থেকে তাদেরকে আটক করা হয়। তারা সবাই ঢাকা, নারায়ণগঞ্জ, কক্সবাজারসহ বিভিন্ন জেলা থেকে পাবজি টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়ার জন্য চুয়াডাঙ্গায় একত্রিত হয়েছিলেন।

পুলিশ জানায়, গত মঙ্গলবার রাতে দেশের বিভিন্ন জেলা থেকে চুয়াডাঙ্গায় আসে শতাধিক উঠতি বয়সী কিশোর ও যুবক। শহরতলীর দৌলতদিয়াড় এলাকায় একটি কমিউনিটি সেন্টারে রাতভর পাবজি গেমস প্রতিযোগিতায় অংশ নেয়। এমন খবর পেয়ে গতকাল সকালে ওই কমিউনিটি সেন্টারে অভিযান চালায় থানা পুলিশের একটি দল। এসময় পাবজি টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া ১০৮ কিশোর যুবককে আটক করা হয়।

প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়া কিশোর যুবকরা বলেন, অনলাইনের মাধ্যমে আমন্ত্রণ পেয়ে চুয়াডাঙ্গায় খেলতে আসি। এখানে ১৯টা গ্রুপে আমরা খেলোয়াড়রা অংশগ্রহণ করি। প্রতি গ্রুপে ৪ জন করে সদস্য ছিলো। সকলের সাথে সকলের খেলা হয়। খেলায় বিজয়ীদের ট্রফি উপহারও দেওয়া হয়।

পরবর্তীতে আটককৃতের বিরুদ্ধে ঘটনাস্থলে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসানো হয়। আদালতটি পরিচালনা করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শামীম ভূইয়া ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) মাজহারুল ইসলাম।

চুয়াডাঙ্গা সদর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মাহাব্বুর রহমান কাজল জানান, ‘আটককৃত সবাই বিভিন্ন স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী। তাদের সবার কাছ থেকে দামী মোবাইলফোন উদ্ধার করা হয়েছে।’

ওসি আরও জানান, ‘এখানে অর্থ লেনদেনের বিষয়টি লক্ষণীয়। তারা সরাসরি জুয়া না খেললেও নিজেদের মধ্যে অর্থ আদান-প্রদান করে।’

চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (সদর সার্কেল) আনিসুজ্জামান বলেন, ‘আটককৃতদের বয়স বিবেচনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যারা অপ্রাপ্ত বয়স্ক তাদের অভিভাবকের কাছে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে।’

চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) শামিম ভূঁইয়া বলেন, ‘পাবজি গেমের ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা রয়েছে। তাছাড়া, তারা কোনো প্রকার অনুমতি বা অবহিত না করেই এ রকম একটা আয়োজন করে গণউপদ্রব সৃষ্টি করেছে। আটককৃতদের বয়স বিবেচনা করে ২৪জন প্রাপ্ত বয়স্ককে গণউপদ্রব আইনের ২৯১ ধারায় দুইদিনের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছে। বাকিদের অভিভাবকের কাছে মুচলেকা নিয়ে ছেড়ে দেয়া হয়েছে।’

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।