চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ২৩ এপ্রিল ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নিউমার্কেটে সংঘর্ষের মামলায় বিএনপি নেতা মকবুল গ্রেফতার

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
এপ্রিল ২৩, ২০২২ ৯:০৫ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

রাজধানীর নিউমার্কেট এলাকায় ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনায় স্থানীয় বিএনপি নেতা মকবুল হোসেন সর্দারকে গ্রেফতার করেছে গোয়েন্দা পুলিশ। গতকাল শুক্রবার বিকেলে ধানমন্ডির বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন ডিএমপি গোয়েন্দা বিভাগের অতিরিক্ত কমিশনার এ কে এম হাফিজ আক্তার। তিনি সাংবাদিকদের বলেন, মকবুল হোসেন মামলার এজহারভুক্ত আসামি। গ্রেফতারের পর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। এরপর আইনিপ্রক্রিয়া অনুযায়ী তাকে থানায় হস্তান্তর করা হবে। ঢাকা মহানগর পুলিশের নিউ মার্কেট জোনের অতিরিক্ত কমিশনার শাহেনশাহ সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে শতাধিক সিসি ক্যামেরার ভিডিও সংগ্রহ করে বিশ্লেষণ করছে। এ ছাড়া গোয়েন্দা পুলিশ ও বিভিন্ন সংস্থাও ভিডিও সংগ্রহ করে কাজ করছে। সরকারি কাজে বাধা, পুলিশের ওপর আক্রমণ, ইটপাটকেল নিক্ষেপ, ভাঙচুর ও জখম করার অভিযোগে মামলাগুলোতে যে ২৪ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে তাতে এক নম্বরে আছে নিউমার্কেট থানা বিএনপির সাবেক সভাপতি অ্যাডভোকেট মকবুল হোসেনের নাম।

জানা গেছে, ওয়েলকাম ও ক্যাপিটাল ফাস্টফুড নামের যে দুই দোকানের কর্মচারীদের দ্বন্দ্ব থেকে সংঘর্ষের সূত্রপাত, সেই দোকান দু’টি সিটি করপোরেশন থেকে মকবুলের নামে বরাদ্দ হওয়া। তবে কোনো দোকানই তিনি নিজে চালান না। রফিকুল ইসলাম ও শহিদুল ইসলাম নামে দু’জনকে ভাড়া দিয়েছেন। রফিকুল ও শহিদুল আবার পরস্পরের আত্মীয়। এ দিকে গ্রেফতারের আগে মকবুল হোসেন দাবি করেন, বিএনপি করায় পুলিশ তাকে মামলার আসামি বানিয়েছে। এ বিষয়ে জানতে চাইলে এডিসি শাহেনশাহ বলেন, তারা (আসামিরা) ঘটনার সুযোগ নিয়েছে। ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে কারা কারা মাঠে ছিল, তাদের সবাইকে চিহ্নিত করা হচ্ছে। অন্য দিকে পুলিশের মহাপরিদর্শক (আইজিপি) বেনজীর আহমেদ বলেছেন, নিউমার্কেটে ব্যবসায়ী ও শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের ঘটনায় অবশ্যই আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে। এ ঘটনা সবার সামনে ঘটেছে। এরই মধ্যে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। এ জন্য একটু ধৈর্যধারণ করার কথা বলেছেন তিনি। গতকাল রাজধানীর রাজারবাগে পুলিশ কেন্দ্রীয় জামে মসজিদে পুলিশের বার্ষিক আজান, কিরাত ও রচনা প্রতিযোগিতার পুরস্কার বিতরণ শেষে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন। আইজিপি বলেন, শুধু সিসিটিভি ফুটেজ নয়, প্রত্যেক সাংবাদিকের ক্যামেরার ফুটেজও রয়েছে। সংঘর্ষে প্রাণহানি ঘটেছে, আইন লঙ্ঘনের ঘটনা ঘটেছে। এ বিষয়ে যে ধরনের আইনগত ব্যবস্থা নেয়া দরকার তা নেয়া হবে। নিউমার্কেটের ব্যবসায়ী ও ঢাকা কলেজের শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে আইজিপি বলেন, এ ধরনের ঘটনা সবার পরিহার করা উচিত। এতে দেশ ও দেশের বাইরে জাতি হিসেবে নেতিবাচক ধারণা তৈরি হয়।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।