চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ৩১ মে ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নারীপাচারের দায়ে স্বামী-স্ত্রীসহ চারজন আটক

সমীকরণ প্রতিবেদন
মে ৩১, ২০২১ ৯:০২ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ঝিনাইদহ অফিস:
টিকটক মডেল হওয়ার লোভ দেখিয়ে ভারতে নারী পাচার চক্রের মূলহোতা হচ্ছেন শৈলকুপার আশরাফুল মণ্ডল ওরফে রাফি। তাঁর ছত্রছায়া ও হাত ধরেই হৃদয়-বাবুরা আস্তানা গড়ে তোলে ভারতের বেঙ্গালুরে। র‌্যাবের অনুসন্ধানে আশরাফুল ওরফে রাফির নাম আসার পর প্রথমে ঝিনাইদহের শৈলকুপায় অভিযান চালিয়ে স্ত্রী ও দুই ভাগ্নেকে আটক করে র‌্যাবের একটি বিশেষ টিম। তাঁদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক ঝিনাইদহ শহরের কোয়ারেন্টিন সেন্টারে থাকা আশরাফুলকে আটক করে ঢাকায় নিয়ে যাওয়া হয়। আশরাফুলের গ্রামের বাড়ি ঝিনাইদহের শৈলকুপা উপজেলার ৬ নম্বর সারুটিয়া ইউনিয়নের নাদপাড়া গ্রামে। তিনি ওই গ্রামের আয়নুদ্দিন মণ্ডলের ছেলে।
র‌্যাবের একটি সূত্র জানায়, গ্রামের বাড়িতে থেকে প্রথমে তাঁর স্ত্রী ও দুই ভাগ্নেকে আটক করা হয়। পরে তাঁদের স্বীকারোক্তি মোতাবেক আশরাফুলকে ঝিনাইদহ শহরের কোয়ারেন্টিন সেন্টার থেকে আটক করা হয়। আশরাফুল মোবাইলে শক্তিশালী সফটওয়্যার ব্যবহার করে সাইবার ক্রাইম করতেন বলে জানা গেছে।
আশরাফুলের পিতা আয়নুদ্দিন মণ্ডল জানান, ঈদের আগে আশরাফুল ভারতের বেঙ্গালুরু থেকে আসার পর গত ২০ মে পুলিশ ঝিনাইদহ কোয়ারেন্টিন সেন্টারে নিয়ে যান। সেখান থেকেই তাঁকে র‌্যাব আটক করেছে বলে তিনি নিশ্চিত করেন। তাঁর পিতা আরও জানান, আশরাফুল ভারতের নাগরিক হিসেবে বেঙ্গালুরে ১২ বছর বসবাস করে আসছেন। ১২ বছর আগে আশরাফুলের পরিবার আসহায় ও অস্বচ্ছল ছিল। কিন্তু বর্তমানে তাঁর গ্রামের বাড়িতে রয়েছে এসি, ওয়াশিং মেশিনসহ বিলাসী জীবনযাপনের নানা সামগ্রী।


র‌্যাবের ওই সূত্র জানায়, সকাল ৯টার দিকে আশরাফুলকে নিয়ে তাঁর গ্রামের বাড়িতে দ্বিতীয় দফা অভিযান চালায় র‌্যাবের বিশেষ টিম। এসময় আশরাফুলের বাংলাদেশের পাসপোর্ট ও একটি পেনড্রাইভ উদ্ধার করে। এলাকায় র‌্যাবের অভিযানের কথা স্বীকার করেন স্থানীয় ইউপি সদস্য নাদপাড়া গ্রামের ওয়াজেদ আলী।
এবিষয়ে র‌্যাব-৬ ঝিনাইদহের কোম্পানি কমান্ডার কামাল উদ্দিন জানান, ঢাকার র‌্যাব হেড কোয়ার্টার থেকে বিশেষ টিম অভিযান চালিয়েছে। তাই বিস্তারিত তথ্য তাঁদের কাছে নেই।
শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. রাশেদ আল মামুন জানান, শৈলকুপার নাদপাড়া গ্রামের আশরাফুল নামের এক ভারতফেরত যুবককে কোয়ারেন্টিনে নেওয়া হয়েছিল। গত ২২ তারিখে তাঁর করোনা পরীক্ষার জন্য শরীর থেকে নমুনা নেওয়া হয়। গতকাল রোববার (৩০ মে) ভোরে র‌্যাবের একটি টিম কোয়ারেন্টিন সেন্টার থেকে তাঁকে নিয়ে গেছে বলে ওই স্বাস্থ্য কর্মকর্তা স্বীকার করেন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।