চুয়াডাঙ্গা সোমবার , ২৮ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নারীদের বিশেষ চারটি গুণ

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ২৮, ২০১৬ ৬:০৭ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

ধর্ম ডেস্ক: নারীদের আল্লাহ তায়ালা এমন চারটি গুণ দিয়েছেন, যা তারা সঠিক ক্ষেত্রে ব্যবহার করতে পারলে ইহ ও পরকালে সফল হতে পারবে। প্রথমত, আল্লাহ তায়ালা নারীদের অনবরত কথা বলার গুণ দিয়েছেন। একজন নারী সারাদিন কথা বলে মাতিয়ে রাখতে পারে। আল্লাহ প্রদত্ত নারীদের এই বিশেষ ক্ষমতা অহেতুক আড্ডা বা আনন্দ-বিনোদনের জন্য না হয়ে যদি আল্লাহর রাস্তায় দাওয়াতের ব্যাপারে হয় তাহলে তার দ্বারা অনেক নারী ইসলামের কথা শুনতে পারবে এবং তারও অনেক আল্লাহর জিকির হবে, দাওয়াতের দায়িত্ব পালন হবে। পরিবারে স্বামী-সন্তান ইসলামের আদর্শের কথা শুনে ঘরে এক ইমানি পরিবেশ সৃষ্টি হবে। দ্বিতীয়ত, আল্লাহ তায়ালা নারীদের কান্নার জাদু দিয়েছেন। এই কান্না দ্বারা একজন নারী অনেক কঠিন কিছুও তার বাবা, মা, ভাই অথবা স্বামী থেকে আদায় করে নিতে পারেন। স্বামী তার এই কান্নার জন্য সব কিছু করতে রাজি হয়ে যায়। কিন্তু কোনো নারী এই কান্না যদি স্বামী-সন্তানকে আল্লাহর পথে এগিয়ে নেয়ার জন্য, স্বামী-সন্তানের হেদায়েতের জন্য, মানুষের উপকারের জন্য ব্যবহার করে তাহলে প্রতিটা পরিবারে আলোকিত মানুষ তৈরি হবে। তৃতীয়ত, আল্লাহ তায়ালা নারীদেরকে ধৈর্যের গুণ দিয়ে সৃষ্টি করেছেন। একজন নারী কত আদরে বড় হয়। বাবা-মা তাকে চোখে চোখে রেখে গড়ে তোলেন, পড়ালেখা শেখান। কিন্তু সে যখন অন্য কারো ঘরে বউ হয়ে যায় প্রথম থেকেই সে অতি ধৈর্যের সঙ্গে অপরিচিত একটি সংসারের সবার নানা নির্দেশনা পালন করতে থাকে। তাই এই জীবনে একজন নারী যদি ধৈর্যের সঙ্গে একটি আদর্শ পরিবার গঠনে চেষ্টা করে তাহলে তার চেষ্টা অনেক ফলপ্রসূ হবে। চতুর্থত, একজন নারীকে আল্লাহ দৃঢ়তা দিয়েছেন। রাসুলুল্লাহ (সা.) এর পর অনেক পুরুষ মুরতাদ হলেও একজন নারীও মুরতাদ খুঁজে পাওয়া যায় না। তারা এমন দৃঢ়তার সঙ্গে সংসার করে যে, একবার যার সঙ্গে বিয়ে হয় সেই ঘর থেকে তার লাশ বের হয়। এই দৃঢ়তা যদি নারীরা ইসলাম ও দেশের কাজে লাগাতে পারে তাহলে ইসলাম ও দেশ তার মাধ্যমে অনেক উপকৃত হবে। আল্লাহ তায়ালা মুসলিম নারীদের ইসলাম ও দেশের সেবা করার তাওফিক দান করুন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।