চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ৬ আগস্ট ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নানা আয়োজনে চুয়াডাঙ্গায় স্থানীয় শহীদ দিবস পালিত

সমীকরণ প্রতিবেদন
আগস্ট ৬, ২০১৬ ২:৪৭ অপরাহ্ণ
Link Copied!

কার্পাসডাঙ্গা অফিস: নানা আয়োজনে চুয়াডাঙ্গার স্থানীয় শহীদ দিবস গতকাল শুক্রবার পালিত হয়েছে। ১৯৭১ সালের ৫ আগস্ট মুক্তিযুদ্ধ চলাকালে জেলার দামুড়হুদা উপজেলার জগন্নাথপুরে পাকিস্তানি বাহিনীর সঙ্গে সম্মুখ সমরে চুয়াডাঙ্গার ৮ জন বীর মুক্তিযোদ্ধা শহীদ হন। দিবসটি উপলক্ষে জগন্নাথপুরে ৮ শহীদের সমাধি (আটকবর) চত্বরে জাতীয় সংসদের হুইপ, জেলা প্রশাসন, উপজেলা প্রশাসন, জেলা আওয়ামী লীগ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ও আওয়ামী লীগসহ সমমনা দলগুলো নানা কর্মসূচি পালন করে। সকাল সাড়ে ১০টার দিকে জাতীয় পতাকা উত্তোলনের মধ্য দিয়ে দিনের কর্মসূচি শুরু হয়।
পতাকা উত্তোলন করেন পর জাতীয় সংসদের হুইপ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন, জেলা প্রশাসক সায়মা ইউনুসসহ জেলা মুক্তিযোদ্ধা ইউনিট কমান্ডার, প্রশাসনের কর্মকর্তা, রাজনৈতিক দলের নেতারা এবং মুক্তিযোদ্ধা ও শহীদ মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যরা শহীদ সমাধিতে পর্যায়ক্রমে পুষ্পমাল্য অর্পণ করেন। শেষে আটকবর চত্বরে জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের কমান্ডার আবু হোসেনের সভাপতিত্বে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। প্রধান অতিথি ছিলেন জাতীয় সংসদের হুইপ জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন। বিশেষ অতিথি ছিলেন জেলা পরিষদের প্রশাসক মাহফুজুর রহমান মনজু, জেলা আওয়ামী লীগের সহসভাপতি সদর উপজেলা চেয়ারম্যান আসাদুল হক বিশ্বাস, যুগ্ম সম্পাদক সাবেক মেয়র রিয়াজুল ইসলাম জোয়র্দ্দার টোটন, সাংগঠনিক সম্পাদক মাসুদ উদ-জ্জামান লিটু বিশ্বাস, প্রচার সম্পাদক ফেরদৌস ওয়ারা সুন্না, জেলা মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডের সাবেক কমান্ডার নুরুল ইসলাম মালিক, সদর উপজেলা কমান্ডার আব্দুর শুকুর বাঙ্গালী, জেলা মহিলা লীগের সভানেত্রী কোহিনুর বেগম, সাধারণ সম্পাদিকা নুরুন্নাহার কাকলী, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান হাবিবুল্লাহ বাহার, দামুড়হুদা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সিরাজুল আলম ঝন্টু, যুগ্মসম্পাদক নতিপোতা ইউপি চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান, জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারণ সম্পাদক মোহাইমেন হাসান জোয়ার্দ্দার অনিক। উল্লেখ্য, শহীদ ৮ জন হলেন- আবুল কাশেম, হাসানুজ্জামান, রবিউল ইসলাম, তারেক, আফাজ উদ্দিন, কেয়ামদ্দিন, রওশন ও খোকন।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।