চুয়াডাঙ্গা মঙ্গলবার , ২২ নভেম্বর ২০১৬
আজকের সর্বশেষ সবখবর

নবির ব্যাটে তৃতীয় জয় চিটাগংয়ের

সমীকরণ প্রতিবেদন
নভেম্বর ২২, ২০১৬ ১:১৩ অপরাহ্ণ
Link Copied!

hhfhjksdg78

খেলাধুলা ডেস্ক: ব্যাটে-বলের সমানে সমান লড়াইয়ে জিতলো চিটাগং ভাইকিংস। ১৮৪ রানের লক্ষ্যে চিটাগংয়ের কেউ ফিফটি করতে না পারলেও জয় নিয়েই ফিরেছে তারা। সাত খেলায় এটি তাদের তৃতীয় জয়। আর কুমিল্লার ষষ্ঠ হার। ১২ বলে দরকার ছিল ১৭। সোহেল তানভির উনিশতম ওভারের প্রথম বলেই উইকেট উপরে ফেলেন স্বদেশী ব্যাটসম্যান শোয়েব মালিকের। শোয়েব অবশ্য তার কাজ করে যান। ২৫ বলে ৩৮ রান করেন তিনি ৫ চারের সাহায্যে। এরপর তিন বলে এক রান হওয়ায় কুমিল্লার শিবিরে আশার আলো দেখা দেয়। কিন্তু তানভিরের ওই ওভারের পঞ্চম বলে ছক্কা মেরে চিটাগংকে খেলায় ফেরান মোহাম্মদ নবি। শেষ ওভারের সমীকরণ দাঁড়ায় ৬ বলে আট রান। কিন্তু মোহাম্মদ সাইফুদ্দিনের প্রথম দুই বলে দুই চার মেরে সব উত্তেজনায় পানি ঢেলে দেন নবি। চার বল আর ছয় উইকেট হাতে রেখে তৃতীয জয়ের স্বাদ পেলো তামিম ইকবালের দল। নবি ২৪ বলে হার না মানা ৪৬ রান করার পথে নবি দুটি ছক্কা আর পাঁচটি চার মারেন। চতুর্থ উইকেটে পাকিস্তানি শোয়েব মালিক আর আফগানি মোহাম্মদ নবি মিলে ৬৪ রান তুলে খেলা কুমিল্লার নাগালের বাইরে নিয়ে যান। দশম ওভারের শেষ বলে তামিম ইকবাল যখন আউট হন তখনও আশাবাদি ছিলেন কুমিল্লার সমর্থকরা। ২৭ বলে ৩০ করে রায়ান ডেসকাটের বলে বোল্ড হন লোকাল হিরো তামিম। এর আগে ২৮ রানের ম্থাায় ২১ রান করে লেগ বিফোর উইকেট হন ডুয়েইন স্মিথ। মাশরাফির বলে লেগ বিফোর উইকেট হন তিনি। এরপর এনামুল হক বিজয় ৩০ বলে ৫০ রানের ইনিংস খেলে চিটাগংকে জয়ের পথেই রাখেন। ২ চার আর ২ ছক্কা হাঁকান তিনি। সোমবার প্রথম খেলাতেও ঢাকা ১৮২ রান করে যায় রাজশাহীর কাছে। ১৮৩/৩ সংগ্রহ নিয়ে ইনিংস শেষ করে শিরোপাধারী কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স।  এদিন নো-বলে রানআউট হন কুমিল্লার পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান খালিদ লতিফ। উইকেট দেয়ার আগে ৫২ বলে ৭৬ রানের ইনিংস খেলেন এ পাকিস্তানি ওপেনার। এতে খালিদ হাঁকান হাফডজন বাউন্ডারি ও পাঁচটি ছক্কা। বক্তিগত ৩৬ রানে রানআউট হন ইমরুল কায়েসও। ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত করেন ১৭ রান। ২৫ বলের ইনিংসে ৪০ রানে অপরাজিত থাকেন কুমিল্লার অপর পাকিস্তানি ব্যাটসম্যান আহমেদ শেহজাদ। দুই প্রতিবেশী বিভাগের লড়াইয়ে মুখোমুখি চিটাগং ভাইকিংস ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরী স্টেডিয়ামে টসে জিতে কুমিল্লাকে ব্যাটিংয়ে পাঠান চিটাগং অধিনায়ক তামিম ইকবাল। ১০ ওভারে মাশরাফির কুমিল্লার সংগ্রহ এক উইকেটে ৮০ রান। দলী ২৯ রানের মাথায় ওপেন করতে নামা নাজমুল হোসেন শান্তকে বোল্ড করেন তাসকিন। নাজমুল ১৫ বলে  করেছিলেন ১৭ রান। দ্বিতীয় উইকেটে ইমরুল ও খালিদ লতিফ ৫০ রান যোগ করেন। টানা ব্যর্থতার পর ইমরুলকে এ খেলায় ওয়ান ডাউনে নামানো হয়। আগের ছয় খেলায় তার সর্বোচ্চ ছিল ৩৪। প্রথম দেখায় কুমিল্লাকে হারিয়েছিল ভাইকিংস। এর মধ্যে চিটাগং দুটি আর কুমিল্লা এক খেলায় জিতে রয়েছে পয়েন্ট তালিকার তলানিতে।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।