ধারালো অস্ত্রের আঘাতে নারীসহ ৩ জন জখম

474

চুয়াডাঙ্গার আকুন্দবাড়িয়া হঠাৎপাড়ায় গভীর রাতে মুখোশধারীদের হামলা
নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গার আলুকদিয়া ইউনিয়নের আকুন্দবাড়িয়া গ্রামে গভীর রাতে রজব আলী (৩৫) নামের এক ব্যক্তিকে কুপিয়েছে মুখোশধারীরা। এ সময় ঠেকাতে গেলে তার স্ত্রি রিনা খাতুন (৩০) ও ছেলে বিল্লাল হোসেনকেও (১৮) কুপিয়ে জখম করে তারা। গতরাত ২টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। তাদের উদ্ধার করে চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
পারিবারিক সুত্রে জানা গেছে, গতকাল রাত ২টার দিকে আকুন্দবাড়িয়া গ্রামের হটাৎ পাড়ার রজব আলীর বাড়িতে প্রবেশ করে চারজনের একদল মুখোশধারী। তারা বাড়িতে থাকা বৈদ্যুতিক মোটর বাঁশ দিয়ে ভাংচুর করতে থাকে। এসময় শব্দ পেয়ে ঘুম ভেঙে যায় রজব আলীর স্ত্রী রিনা খাতুনের। পরে তার স্বামীকে ডেকে বিষয়টি বলার পর বাইরে যান রজব আলী। এসময় মুখোশধারীরা অতর্কিতভাবে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাতারি কুপিয়ে জখম করে। এসময় তার স্ত্রী রিনা খাতুন ও ছেলে বিল্লাল ঠেকাতে গেলে তাদেরকেও কুপিয়ে জখম করে মুখোশধারীরা। পরে তাদের চিৎকারে মুখোশধারীরা পালিয়ে যায়।
এ ঘটনায় আহত রজব আলী বলেন, গত ২০ দিন আগে আমার আপন ভাগ্নে আশিকসহ কয়েক জন আমার বাড়ি এসে শরিকের জমিজমা নিয়ে হত্যার হুমকি দেয়। আশিক মাঝেমাঝেই আমার বাড়িতে এসে হুমকি দিত। এরই জের ধরে গতকাল রাতে ৪জন মুখোশধারী আমাকে, আমার স্ত্রী রিনা খাতুন ও আমার ছেলেকে কুপিয়েছে।