চুয়াডাঙ্গা শুক্রবার , ২২ অক্টোবর ২০২১
আজকের সর্বশেষ সবখবর

ধর্মীয় ভাবগাম্ভির্য্য ও নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালন

‘রাসুল (সা.)-এর আদর্শ মেনে চললে ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রাখা সম্ভব’
সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
অক্টোবর ২২, ২০২১ ১২:৫৮ অপরাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন:
যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভির্য্যরে মধ্যদিয়ে চুয়াডাঙ্গা ও ঝিনাইদহ পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালিত হয়েছে। প্রথম বারের মতো রাষ্ট্রীয়ভাবে এদিবসটি উপলক্ষে নানা কর্মসূচি পালিত হয়।
চুয়াডাঙ্গা:
নানা কর্মসূচির মধ্যদিয়ে চুয়াডাঙ্গায় পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালন করা হয়েছে। দিবসটি উপলক্ষে ইসলামিক ফাউন্ডেশন চুয়াডাঙ্গার আয়োজনে ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা, জেলা শিশু একাডেমির উদ্যোগে হামদ ও নাত প্রতিযোগিতা, জেলা প্রশাসন ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের আয়োজনে চুয়াডাঙ্গা কোর্ট জামে মসজিদে দোয়া মাহফিলের আয়োজন করা হয়।
গত বুধবার চুয়াডাঙ্গা জেলা শিশু একাডেমির হামদ ও নাত প্রতিযোগিতায় বিভিন্ন শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা অংশগ্রহণ করে। প্রতিযোগিতা শেষে পুরস্কার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন চুয়াডাঙ্গার অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) সাজিয়া আফরিন। পরে বাদ মাগরিব জেলা প্রশাসন ও ইসলামিক ফাউন্ডেশনের আয়োজনে চুয়াডাঙ্গা কোর্ট জামে মসজিদে দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।


ঝিনাইদহ:
ঝিনাইদহ বিস্তারিত কর্মসূচি ও ধর্মীয় ভাবগাম্ভির্য্য পরিবেশের মধ্যদিয়ে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) পালিত হয়েছে। এ উপলক্ষে গত বুধবার এক আলোচনা সভা ঝিনাইদহ শিল্পকলা একাডেমি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত হয়। ঝিনাইদহ ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক মোহাম্মদ আব্দুল হামিদ খানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জেলা প্রশাসক মোহাম্মদ মজিবর রহমান।
বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার মুনতাসিরুল ইসলাম, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সেলিম রেজা, ঝিনাইদহ পৌরসভার মেয়র সাইদুল করিম মিণ্টু, ঝিনাইদহ সদর উপজেলার নির্বাহী অফিসার এস এম শাহীন, কোটচাঁদপুর কামিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ মাওলানা বাহারুল ইসলাম, মাওলানা ওবায়দুল ইসলাম, ইসলামিক ফাউন্ডেশনের মাস্টার ট্রেইনার মাওলানা আব্দুল্লাহ আল মামুন ও ফিল্ড সুপারভাইজার মোহাম্মদ আব্দুর রাজ্জাক।
প্রধান অতিথির বক্তব্যে ডিসি মজিবর রহমান বলেন, হযরত মুহাম্মদ (সা.) বিশ্বমানবতার মুক্তির সনদ নিয়ে পৃথিবীতে এসেছিলেন। তিনি বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় কাজ করে গেছেন। মসজিদে নববীতে একজন ইহুদি প্রসাব করলে তিনি রাগান্বিত না হয়ে বরং তাকে বুঝিয়েছিলেন যে এটা মুসলমানদের ইবাদতখানা। এখানে প্রসাব করা ঠিক নয়। ওই ইহুদি রাসুল পাক (সা.) এঁর কাছ থেকে সুন্দর ব্যবহারে মুগ্ধ হয়ে পরবর্তীতে ইসলাম গ্রহণ করেন।
ডিসি বলেন, রাসুল পাক (সা.)-এঁর নীতি ও আদর্শ মেনে চললে আমাদের দেশেও সকল ধর্মের লোক নিয়ে সমাজে ধর্মীয় সম্প্রীতি বজায় রাখা সম্ভব। তিনি বলেন, যারা ধর্মীয় সম্প্রীতি নষ্ট করে, তারা দেশ ও মানুষের শদ্রু। এদেরকে চিহ্নিত করে বিচারের ব্যবস্থা করতে হবে।
অনুষ্ঠান শেষে পবিত্র ঈদে মিলাদুন্নবী (সা.) উপলক্ষে ইসলামী সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতায় অংশগ্রহণকারী ৩০ জন বিজয়ীকে ইসলামিক ফাউন্ডেশন থেকে প্রকাশিত বই উপহার দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানে দেশ জাতির সমৃদ্ধি ও শান্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করা হয়।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।