চুয়াডাঙ্গা শনিবার , ১১ জুন ২০২২
আজকের সর্বশেষ সবখবর

‘দ্বন্দ্ব বেধে যেতে পারে’ তুরস্ক-ইরানের মধ্যে

সমীকরণ প্রতিবেদনঃ
জুন ১১, ২০২২ ১১:২১ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

সমীকরণ প্রতিবেদন: সিরিয়ার উত্তর দিকে অবস্থান করা কুর্দি যোদ্ধাদের বিরুদ্ধে সামরিক অভিযান পরিচালনা করার জন্য রসদ যোগাচ্ছে তুরস্ক। প্রেসিডেন্ট রিস্যেপ তাইয়্যেপ এরদোগানের নির্দেশের পর এ প্রস্তুতি নিচ্ছে তার্কিস সেনারা। আর এর মধ্যে ইরানের সাবেক রাষ্ট্রদূত আকবর ফারাজি সতর্কতা  দিয়েছেন যুদ্ধ বিধ্বস্ত সিরিয়ার ভেতর দ্বন্দ্ব লাগতে পারে ইরান ও তুরস্কের সেনাদের মধ্যে। খবর মিডল ইস্ট আইয়ের।  আকবর ফারাজি রোমানিয়া, সাইপ্রাস এবং হাঙ্গেরিতে ইরানের রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব পালন করেছেন। ইরান সিরিয়ার বর্তমান স্বৈরশাসক বাসার আল আসাদকে সমর্থন দিচ্ছে। অন্যদিকে তুরস্ক সরকার বিরোধীদের সমর্থন দিয়ে আসছে। তুরস্ক যেসকল কুর্দিদের বিরুদ্ধে অভিযান পরিচালনার প্রস্তুতি নিচ্ছে তাদের সমর্থন দেন বাশার আল আসাদ এবং ইরান। এ ব্যাপারে সাবেক রাষ্ট্রদূত আকবর ফারাজি বলেন, সিরিয়ায় ইরান ও তুরস্কের সেনাদের মুখোমুখি হওয়ার খুবই সম্ভাবনা রয়েছে। এমন মুখোমুখি হওয়ার কারণে দুই দেশের সেনাদের মধ্যে দ্বন্দ্ব লেগে যাবে। অবসরে যাওয়া এ কূটনৈতিক জানান, উত্তর সিরিয়ায় এর আগেও যখন তুরস্ক অভিযান চালিয়েছে তখনও ইরান-তুরস্কের সেনারা লড়াই করেছে। তিনি বলেন, এর আগে তুরস্কের সেনাবাহিনী ইরানের সেনা ও  সেনা স্থাপনার ওপর হামলা চালিয়েছে। এর মাধ্যমে ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে। তিনি আরও বলেন, তুরস্ক তার লক্ষ্য অর্জন করতে ‘রেড লাইন’ নিয়ে ভাবে না। রাষ্ট্রদূত আকবর ফারাজি জানান, ইরান বিশেষ করে হোমস নিয়ে চিন্তিত। যেটি তুরস্ক দখল করতে পারে। এই রাষ্ট্রদূতের দাবি, গত কয়েক বছরে তুরস্ক প্রমাণ করেছে তারা আক্রমণাত্বক হামলা চালায়। আর এ আক্রমণাত্মক নীতি এবং নতুন অটোমান সাম্রাজ্য নীতির ওপর ভিত্তি করে তুরস্ক ইরাক ও সিরিয়ায় হামলা চালিয়েছে এবং এ দুটি দেশের কিছু অঞ্চল দখল করে সেগুলো নিজেদের সঙ্গে যুক্ত করেছে।

সূত্র: মিডল ইস্ট আই

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান, আইন ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো মন্তব্য না করার জন্য পাঠকদের বিশেষভাবে অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য অপসারণ করার ক্ষমতা রাখে।