চুয়াডাঙ্গা রবিবার , ১৬ জুলাই ২০১৭
আজকের সর্বশেষ সবখবর

দৌলতদিয়াড়ে গোরস্তানের টাকা আত্মসাতের : অভিযোগের ঘটনায় সংবাদ সম্মেলন

সমীকরণ প্রতিবেদন
জুলাই ১৬, ২০১৭ ৪:২৬ পূর্বাহ্ণ
Link Copied!

নিজস্ব প্রতিবেদক: চুয়াডাঙ্গা শহরতলীর দৌলতদিয়াড়ে গোরস্তান স্থাপন নিয়ে নানা গুঞ্জন শোনা যাচ্ছে। গোরস্তান স্থাপনের জন্য মহল্লাবাসীসহ বিভিন্ন মানুষের কাছে থেকে তোলা টাকা আত্মসাতের অভিযোগ ওঠে হাফিজুল ইসলাম লাল্টুর বিরুদ্ধে। পরে অবশ্য তার নিজ নামীয় ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে গোরস্তানের সব টাকা ফেরত দিয়েছেন। এদিকে, গোরস্তানের টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তুলে লাল্টুকে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ ও হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছে কিছু উচ্ছৃঙ্খল যুবক। শহীদ হাসান চত্ত্বরে তাকে মারধরও করে স্থানীয় ওই যুবকরা। এছাড়া লাল্টুর বাড়িতে গিয়েও অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ হুমকি-ধামকি দিয়ে আসছে তারা। ফলে নিরাপত্তাহীনতায় জীবন যাপন করছে তার পরিবার। গতকাল শনিবার চুয়াডাঙ্গা প্রেসক্লাবে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে একথা বলেন দৌলতদিয়াড়ের মৃত আইউব আলীর ছেলে হাফিজুল ইসলাম লাল্টু।
লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, গত রোজার মাসে গোরস্তান স্থাপনের জন্য ৩ লাখ ৩৩ হাজার টাকা সংগ্রহ করা হয়। কমিটির বেশিরভাগ সদস্যের অনুরোধে ওই টাকা নিজের ব্যাংক অ্যাকাউন্টে জমা রাখেন হাফিজুল ইসলাম লাল্টু। তিনি ওই কমিটির সাধারণ সম্পাদক হওয়ায় তিনি ঈদের পরেরদিন এক সভার আয়োজন করলেও সভায় হিসাব-নিকাশের কোন খাতাপত্র দিবেন না বলে জানিয়ে দেন কোষাধ্যক্ষ আজাদ। ওই দিনই সভাপতি-সম্পাদক ব্যতিত নতুন কমিটি করার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। অপরদিকে, কোষাধ্যক্ষ নিজে সভাপতি-সম্পাদককে না জানিয়ে একটি মিটিং ডাকেন। সভায় সভাপতি-সম্পাদককে তলব করলে সেখানে যাওয়া মাত্র লাল্টুকে উদ্দেশ্য করে কিছু উচ্ছৃঙ্খল যুবক গালিগালাজ করতে থাকে। একইসাথে গোরস্তানের টাকা কোথায় আছে তা জানতে চেয়ে পরবর্তি কয়েকদিনের মধ্যে আগের অ্যাকাউন্টে জমা দিতে বলে। টাকা জমা না দিলে লাল্টুর বিরুদ্ধে টাকা আত্মসাতের অভিযোগ তোলে তারা। শহীদ হাসান চত্ত্বরে তাকে মারধরও করে। কয়েকদিন পরেই নিজের অ্যাকাউন্ট থেকে ওই অ্যাকাউন্টে টাকা জমা দেন লাল্টু। এরপরও লাল্টুকে রাস্তা-ঘাটে অপমান-অপদস্তসহ বাড়িতে গিয়েও হুমকি ধামকি দিচ্ছে যুবকরা। এঘটনায় তিনি ও তার পরিবার চরম নিরাপত্তাহীনতায় ভূগছেন বলে জানান লাল্টু।

দৈনিক সময়ের সমীকরণ সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।